ঢাকা ০৩:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

মোঃ রাছেল : কচুয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে মিন্টু দেবনাথ (২৪) নামের এক যুবক তার নিজ গৃহে আড়ার সাথে গামছা পেঁছিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

Model Hospital

মঙ্গলবার দিবাগত রাতের কোন একসময়ে কচুয়া পৌরসভাধীন করই গ্রামের পোদ্দার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। সে পোদ্দার বাড়ির তপন দেবনাথের দ্বিতীয় পুত্র।

মিন্টু দেবনাথের বড় ভাই প্রিন্টু দেবনাথ জানান, আমি ও আমার ছোট ভাই মিন্টু বাড়ির পাশে একসাথে ব্যাটমিন্টন খেলা শেষে রাত ১১টার দিকে বাড়ি চলে যাই। আমার ভাই মিন্টু তার নিজ গৃহে ঘুমিয়ে পড়ে। পরের দিন বুধবার সকাল ৮টার দিকে আমার বাবা তপন দেবনাথ মিন্টু ঘরে গিয়ে টিভিতে সংবাদ দেখার উদ্দেশ্যে তার গৃহের দরজা ধাক্কা দেয়। কিন্ত দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। এ পর্যায়ে গৃহের জানালা দিয়ে উকি মেরে দেখে গলায় গামছা বাঁধা অবস্থায় ঘরের মেঝে মিন্টুর লাশ পড়ে আছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মিন্টুর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইব্রাহিম খলিল জানান, তার আত্মহত্যার সঠিক কারন জানা যায়নি। কারন অনুসন্ধান করা হচ্ছে। এব্যাপারে একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করে গতকাল বুধবার লাশ ময়না তদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়া সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুর শহরে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালো অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন

কচুয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ১০:৪৮:০৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০২২

মোঃ রাছেল : কচুয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে মিন্টু দেবনাথ (২৪) নামের এক যুবক তার নিজ গৃহে আড়ার সাথে গামছা পেঁছিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

Model Hospital

মঙ্গলবার দিবাগত রাতের কোন একসময়ে কচুয়া পৌরসভাধীন করই গ্রামের পোদ্দার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। সে পোদ্দার বাড়ির তপন দেবনাথের দ্বিতীয় পুত্র।

মিন্টু দেবনাথের বড় ভাই প্রিন্টু দেবনাথ জানান, আমি ও আমার ছোট ভাই মিন্টু বাড়ির পাশে একসাথে ব্যাটমিন্টন খেলা শেষে রাত ১১টার দিকে বাড়ি চলে যাই। আমার ভাই মিন্টু তার নিজ গৃহে ঘুমিয়ে পড়ে। পরের দিন বুধবার সকাল ৮টার দিকে আমার বাবা তপন দেবনাথ মিন্টু ঘরে গিয়ে টিভিতে সংবাদ দেখার উদ্দেশ্যে তার গৃহের দরজা ধাক্কা দেয়। কিন্ত দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। এ পর্যায়ে গৃহের জানালা দিয়ে উকি মেরে দেখে গলায় গামছা বাঁধা অবস্থায় ঘরের মেঝে মিন্টুর লাশ পড়ে আছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মিন্টুর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইব্রাহিম খলিল জানান, তার আত্মহত্যার সঠিক কারন জানা যায়নি। কারন অনুসন্ধান করা হচ্ছে। এব্যাপারে একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করে গতকাল বুধবার লাশ ময়না তদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়া সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।