ঢাকা ০১:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে দু‘বখাটে মেয়েকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় বাবাকে রক্তাক্ত জখম

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের পাটওয়ারী বাজারে ২ এপ্রিল সোমবার রাতে আবুল কাশেম গাজীকে দুর্বৃত্ত মোঃ হাসান ,মোঃ ফারুক ও মোঃ সাব্বির সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্রদিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে।
ঘটনার বিবরণে আবুল কাশেম গাজী জানায়, আমার অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া মেয়েকে প্রায়ই বখাটে হাসান উত্ত্যক্ত করে আসছিল। ঘটনার দিন সন্ধ্যার পর আমার বাড়িতে হাসান ও তার সাথে আরোও দু‘বখাটে এসে আমার মেয়েকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আসলে তাদের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। পূর্বের ন্যায় আবারও তাকে সর্তক করে দিয়েছি। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাজারের প্রয়োজনে পাটওয়ারী বাজারে গেলে ওঁত পেতে থাকা ওঁই দুর্বৃত্তরা আমাকে কিল ঘুষি ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে। স্থানীয় লোকজন আমাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা করায়।
এ বিষয়ে আমি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। আমি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নিকট এদের কঠোর শাস্তির দাবী জানাই।
এ বিষয়ে প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সাবেক মেম্বার খোরশেদ মিয়া জানান, ঘটনার সময় আমি ওঁই স্থানে ছিলাম। সম্পূর্ণ অন্যায় ভাবে সংঘবদ্ধ হয়ে কাশেমের উপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয়েছে। মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদই হলো কাশেমের অপরাধ।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত হাসান জানায়, আবুল কাশেমের কাছে টাকা পাবো আমি টাকা চাইতে গিয়েছি। তাছাড়া তার মেয়ের সাথে আমার রিলেশন রয়েছে। আমাকে গাল মন্দ করে কথা বলায় আমি ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে পিটিয়েছি।
এ বিষয়ে থানা পুলিশ জানায়, অভিযোগটি ডিউটি অফিসারের নিকট জমা দিয়েছে। দায়ীত্বপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে অটো চালকের মৃত্যু

ফরিদগঞ্জে দু‘বখাটে মেয়েকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় বাবাকে রক্তাক্ত জখম

আপডেট সময় : ০৬:৩৬:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০২৩
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের পাটওয়ারী বাজারে ২ এপ্রিল সোমবার রাতে আবুল কাশেম গাজীকে দুর্বৃত্ত মোঃ হাসান ,মোঃ ফারুক ও মোঃ সাব্বির সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্রদিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে।
ঘটনার বিবরণে আবুল কাশেম গাজী জানায়, আমার অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া মেয়েকে প্রায়ই বখাটে হাসান উত্ত্যক্ত করে আসছিল। ঘটনার দিন সন্ধ্যার পর আমার বাড়িতে হাসান ও তার সাথে আরোও দু‘বখাটে এসে আমার মেয়েকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আসলে তাদের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। পূর্বের ন্যায় আবারও তাকে সর্তক করে দিয়েছি। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাজারের প্রয়োজনে পাটওয়ারী বাজারে গেলে ওঁত পেতে থাকা ওঁই দুর্বৃত্তরা আমাকে কিল ঘুষি ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে। স্থানীয় লোকজন আমাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা করায়।
এ বিষয়ে আমি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। আমি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নিকট এদের কঠোর শাস্তির দাবী জানাই।
এ বিষয়ে প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সাবেক মেম্বার খোরশেদ মিয়া জানান, ঘটনার সময় আমি ওঁই স্থানে ছিলাম। সম্পূর্ণ অন্যায় ভাবে সংঘবদ্ধ হয়ে কাশেমের উপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয়েছে। মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদই হলো কাশেমের অপরাধ।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত হাসান জানায়, আবুল কাশেমের কাছে টাকা পাবো আমি টাকা চাইতে গিয়েছি। তাছাড়া তার মেয়ের সাথে আমার রিলেশন রয়েছে। আমাকে গাল মন্দ করে কথা বলায় আমি ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে পিটিয়েছি।
এ বিষয়ে থানা পুলিশ জানায়, অভিযোগটি ডিউটি অফিসারের নিকট জমা দিয়েছে। দায়ীত্বপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।