ঢাকা ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাজীগঞ্জে বেলের শোরুম থেকে শার্ট কিনে প্রতারিত: ১৫’শ টাকার শার্টের দুই মাসেই রং উধাও!

হাজীগঞ্জ বাজারস্থ হকার্স মার্কেটের বকুলতলা রোডে অবস্থিত পোশাক ব্র্যান্ড বেল লাইফ-স্টাইল লিমিটেডের শোরুম থেকে শার্ট কিনে প্রতারিত হয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে রিয়াজ শাওন নামে ভুক্তভোগী।

Model Hospital

অভিযোগে বলা হয়েছে, গত ২১ এপ্রিল দুপুরে হাজিগঞ্জ বাজারস্থ পোশাক ব্র্যান্ড বেলের শোরুম থেকে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ১৫৯০ টাকা মূল্যের একটি শার্ট ১০% ডিসকাউন্টে ১৪৩০ টাকা দিয়ে ক্রয় করেন রিয়াজ শাওন নামে ওই ক্রেতা। সে সময় শার্টের রঙ নীলও সবুুজ রঙের সংমিশ্রণে প্রিন্টের ডিজাইন ছিলো । কিন্তু ব্যবহারের এক মাস ২৫ দিনের মাঝেই শার্টটির রং উঠে সম্পূর্ণ পরিবর্তন হয়ে দোসরা বর্ণের হয়ে গেছে। শার্টটি পুরো বিকৃত হয়ে গেছে।

এই বিষয়ে ভুক্তভোগী সাংবাদিক রিয়াজ শাওন বলেন, আমি গত দেড় মাসে ১০/১২ দিন শার্টটা গায়ে দিয়েছি। এর ভিতর ৪/৫ বার শার্টটা ধোয়া হয়েছে। এরই মাঝেই শার্টের রঙ উঠে একেবারে পরিবর্তন হয়ে গেছে। এত দাম দিয়ে ব্র্যান্ডের শোরুম থেকে শার্ট কিনে কি লাভ হলো? এখানে ব্র্যান্ডের নাম করে নিম্ন মানের কাপড়ের পোশাক বিক্রি করছে। আমার সাথে প্রতোরনা হয়েছে। তাই এই বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের লিখিত অভিযোগ ইমেইল পাঠিয়েছি। আশাবাদী আমার সাথে করা এই প্রতারোনার বিচার আমি পাবো।

এই বিষয়ে শোরুমের ম্যানেজার রিয়াদ বলেন, আমাদের শার্ট এমন হওয়ার কথা না। হয় তো তিনি হুইল পাউডার দিয়ে শার্ট ধুয়েছে। এতে এই অবস্থা হয়েছে। তাকে শার্ট আনতে বলছি। আমরা উপরে কথা বলে কিছু করতে পারি কি না দেখবো।

আর এরিয়া ম্যানেজার আরাফাত মুঠোফোনে বলেন, আমরা অনেক শার্ট তৈরি করি। এরমাঝে দুই-চারটা শার্ট খারাপ হতেই পারে। এটা স্বাভাবিক।

অভিযোগের বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক নূর হোসেন রুবেল বলেন, আমরা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি পরবর্তীতে আমরা এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেব।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

হাজীগঞ্জে বেলের শোরুম থেকে শার্ট কিনে প্রতারিত: ১৫’শ টাকার শার্টের দুই মাসেই রং উধাও!

আপডেট সময় : ১০:০৯:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৭ জুন ২০২৩

হাজীগঞ্জ বাজারস্থ হকার্স মার্কেটের বকুলতলা রোডে অবস্থিত পোশাক ব্র্যান্ড বেল লাইফ-স্টাইল লিমিটেডের শোরুম থেকে শার্ট কিনে প্রতারিত হয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে রিয়াজ শাওন নামে ভুক্তভোগী।

Model Hospital

অভিযোগে বলা হয়েছে, গত ২১ এপ্রিল দুপুরে হাজিগঞ্জ বাজারস্থ পোশাক ব্র্যান্ড বেলের শোরুম থেকে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ১৫৯০ টাকা মূল্যের একটি শার্ট ১০% ডিসকাউন্টে ১৪৩০ টাকা দিয়ে ক্রয় করেন রিয়াজ শাওন নামে ওই ক্রেতা। সে সময় শার্টের রঙ নীলও সবুুজ রঙের সংমিশ্রণে প্রিন্টের ডিজাইন ছিলো । কিন্তু ব্যবহারের এক মাস ২৫ দিনের মাঝেই শার্টটির রং উঠে সম্পূর্ণ পরিবর্তন হয়ে দোসরা বর্ণের হয়ে গেছে। শার্টটি পুরো বিকৃত হয়ে গেছে।

এই বিষয়ে ভুক্তভোগী সাংবাদিক রিয়াজ শাওন বলেন, আমি গত দেড় মাসে ১০/১২ দিন শার্টটা গায়ে দিয়েছি। এর ভিতর ৪/৫ বার শার্টটা ধোয়া হয়েছে। এরই মাঝেই শার্টের রঙ উঠে একেবারে পরিবর্তন হয়ে গেছে। এত দাম দিয়ে ব্র্যান্ডের শোরুম থেকে শার্ট কিনে কি লাভ হলো? এখানে ব্র্যান্ডের নাম করে নিম্ন মানের কাপড়ের পোশাক বিক্রি করছে। আমার সাথে প্রতোরনা হয়েছে। তাই এই বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের লিখিত অভিযোগ ইমেইল পাঠিয়েছি। আশাবাদী আমার সাথে করা এই প্রতারোনার বিচার আমি পাবো।

এই বিষয়ে শোরুমের ম্যানেজার রিয়াদ বলেন, আমাদের শার্ট এমন হওয়ার কথা না। হয় তো তিনি হুইল পাউডার দিয়ে শার্ট ধুয়েছে। এতে এই অবস্থা হয়েছে। তাকে শার্ট আনতে বলছি। আমরা উপরে কথা বলে কিছু করতে পারি কি না দেখবো।

আর এরিয়া ম্যানেজার আরাফাত মুঠোফোনে বলেন, আমরা অনেক শার্ট তৈরি করি। এরমাঝে দুই-চারটা শার্ট খারাপ হতেই পারে। এটা স্বাভাবিক।

অভিযোগের বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক নূর হোসেন রুবেল বলেন, আমরা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি পরবর্তীতে আমরা এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেব।