ঢাকা ০৭:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাহরাস্তিতে ২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন

শাহরাস্তিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের ভিওিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন শেষে ২টি  জনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার (২১-জুন) সকালে শাহরাস্তি উপজেলা প্রশাসন, এলজিইডি,শিক্ষা প্রকৌশলের তত্ত্বাবধানে পৌরশহরের ঠাকুরবাজার চিশতিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার এবং শাহরাস্তি সরকারি বহুমুখী উবির আয়োজনে অনুষ্ঠান দুটি অনুষ্ঠিত হয় ।
ওইদিন সকাল ১১ টায় শাহরাস্তি চিশতিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার ৪তলা ভীত বিশিষ্ট নবনির্মিত একতলা একাডেমিক ভবন ৮২ হাজার ৫৬ লক্ষ টাকা প্রাক্কলন ব্যয়ে  এবং  দুই, তিন ও চারতলার উর্দ্ধমূখী সম্প্রসারণ কাজের ১কোটি ৭৫ লক্ষ প্রাক্কলন ব্যয়ে এবং একইদিন দুপুর ১২ টায় শাহরাস্তি সরকারি বহুমূখী উবির তিনতলা ভীত বিশিষ্ট ও দ্বিতীয় ও তৃতীয়তলা উর্দ্ধমূখী সম্প্রসারিত ভবনের ১ কোটি ১১ লক্ষ ২০হাজার টাকা প্রাক্কলন ব্যয়ে ভিওি প্রস্তর স্থাপন ও শুভ উদ্বোধন করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হুমায়ন রশীদ ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল লতিফের পৃথক সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে আসন অলংকৃত করেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি ১ নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি,বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত, মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি।
তিনি জনসভা গুলোতে বক্তব্য বলেন, সমগ্র বাংলাদেশের মধ্যে হাজীগঞ্জ শাহরাস্তি সংসদীয় আসন ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। যেটি সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে। এই উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী ৪১ সালের মধ্যে আগামী প্রজন্মের জন্য স্মার্ট উন্নত সমৃদ্ধশালী একটি বাংলাদেশ গড়া সময়ের দাবি ।
হাজীগঞ্জ শাহরাস্তিতে যত মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে এটির বেশিরভাগেই তিনি বাস্তবায়ন করেন বলে অভিমত ব্যক্ত করেন ।
যার মধ্যে হাজীগঞ্জে শাহরাস্তির ডাকাতিয়া নদীর উপর ৯টি ব্রিজ, ৭শ’ ব্রিজ কালভার্ট,৬ থেকে ৭শ’স্কুল কলেজ মাদ্রাসা ভবন,প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা,ডিজিটাল টেলিফোন এক্সচেঞ্জ সহ উন্নয়ন ফিরিস্তি তুলে ধরেন তিনি। এই উন্নয়ন ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী ৪১ সালের ধনি এবং দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ পরিনত এটি।
তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে করে বলেন আমরা ভৌত অবকাঠামো শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টি করে যাব। কিন্তু মেধা অর্জনে তোমাদেরকে দায়িত্ব নিয়ে সুশিক্ষা অর্জন করে জীবনে প্রতিষ্ঠিত হয়ে পিতা মাতার দুঃখ কষ্ট লাগব করতে হবে।
এছাড়া তিনি শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন আপনারা শিক্ষার্থীদের নিজের সন্তান মনে করে পাঠদান করবেন। তিনি স্বাধীনতা সংগ্রামের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন এ প্রজন্ম তোমরা তোমাদের জন্য ওইদিন জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছিলাম। একপর্যায়ে তিনি হত দরিদ্র মানুষের কষ্ট লাগবে সরকারের এবং সাংসদের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে অনুদান বিতরণের কথা বলেন।
এছাড়া  ড্রেজার বেকু দিয়ে কৃষকের আবাদি জমি বিনষ্টের হাত থেকে রক্ষা করতে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টিতে গুরুত্ব আরোপ করেন। আবাদি জমিন রক্ষা পেলে দেশ খাদ্য স্বয়ংসম্পূর্ণ থাকবে।
একেই ভাবে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকারকে মসনদে পাঠিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।
এছাড়া ২টি  প্রকল্পের আলোচনা সভার আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য সম্পন্ন করেন।
ওইদিন দুপুরে শাহরাস্তি সরকারি বহুমূখী উবিতে সাবেক পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক শাহ এনামুল হক কমল একইদিন সকালে ঠাকুরবাজার চিশতিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসায় জহিরুল ইসলাম বিএসসির পৃথক সঞ্চালনায় এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান চৌধুরী শেফালী, উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোহাম্মদ হুমায়ন রশীদ, পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ, উপজেলা আলীগের সাধারণ সম্পাদক জেড এম আনোয়ার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন্নাহার কাজল,  তোফায়েল আহমেদ ইরান, শাহরাস্তি মডেল থানার  ওসি  তদন্ত খায়রুল আলম, সাবেক পৌর মেয়র মোশাররফ হোসেন মশু, পৌর আ’লীগের সভাপতি আহসান মঞ্জরুল ইসলাম জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম চৌধুরী , মশিউর রহমান শাহীন, মাসুদ হাসান, শাহরাস্তি চিশতিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ বেলাল হোসেন, শাহরাস্তি সরকারি উবির প্রধান শিক্ষক ইমাম হোসেন। ওই ২টি জনসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগ, ইউপি, ওয়ার্ড পর্যায়ের এবং সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বিদ্যালয় ও মাদ্রাসা ২টির শিক্ষক শিক্ষার্থী অভিভাবক সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ গণমাধ্যম কর্মী উপস্থিত ছিলেন।
ট্যাগস :

শাহরাস্তিতে ২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন

আপডেট সময় : ১২:১১:৪৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ জুন ২০২৩
শাহরাস্তিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের ভিওিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন শেষে ২টি  জনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার (২১-জুন) সকালে শাহরাস্তি উপজেলা প্রশাসন, এলজিইডি,শিক্ষা প্রকৌশলের তত্ত্বাবধানে পৌরশহরের ঠাকুরবাজার চিশতিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার এবং শাহরাস্তি সরকারি বহুমুখী উবির আয়োজনে অনুষ্ঠান দুটি অনুষ্ঠিত হয় ।
ওইদিন সকাল ১১ টায় শাহরাস্তি চিশতিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার ৪তলা ভীত বিশিষ্ট নবনির্মিত একতলা একাডেমিক ভবন ৮২ হাজার ৫৬ লক্ষ টাকা প্রাক্কলন ব্যয়ে  এবং  দুই, তিন ও চারতলার উর্দ্ধমূখী সম্প্রসারণ কাজের ১কোটি ৭৫ লক্ষ প্রাক্কলন ব্যয়ে এবং একইদিন দুপুর ১২ টায় শাহরাস্তি সরকারি বহুমূখী উবির তিনতলা ভীত বিশিষ্ট ও দ্বিতীয় ও তৃতীয়তলা উর্দ্ধমূখী সম্প্রসারিত ভবনের ১ কোটি ১১ লক্ষ ২০হাজার টাকা প্রাক্কলন ব্যয়ে ভিওি প্রস্তর স্থাপন ও শুভ উদ্বোধন করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হুমায়ন রশীদ ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল লতিফের পৃথক সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে আসন অলংকৃত করেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি ১ নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি,বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত, মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি।
তিনি জনসভা গুলোতে বক্তব্য বলেন, সমগ্র বাংলাদেশের মধ্যে হাজীগঞ্জ শাহরাস্তি সংসদীয় আসন ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। যেটি সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে। এই উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী ৪১ সালের মধ্যে আগামী প্রজন্মের জন্য স্মার্ট উন্নত সমৃদ্ধশালী একটি বাংলাদেশ গড়া সময়ের দাবি ।
হাজীগঞ্জ শাহরাস্তিতে যত মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে এটির বেশিরভাগেই তিনি বাস্তবায়ন করেন বলে অভিমত ব্যক্ত করেন ।
যার মধ্যে হাজীগঞ্জে শাহরাস্তির ডাকাতিয়া নদীর উপর ৯টি ব্রিজ, ৭শ’ ব্রিজ কালভার্ট,৬ থেকে ৭শ’স্কুল কলেজ মাদ্রাসা ভবন,প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা,ডিজিটাল টেলিফোন এক্সচেঞ্জ সহ উন্নয়ন ফিরিস্তি তুলে ধরেন তিনি। এই উন্নয়ন ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী ৪১ সালের ধনি এবং দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ পরিনত এটি।
তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে করে বলেন আমরা ভৌত অবকাঠামো শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টি করে যাব। কিন্তু মেধা অর্জনে তোমাদেরকে দায়িত্ব নিয়ে সুশিক্ষা অর্জন করে জীবনে প্রতিষ্ঠিত হয়ে পিতা মাতার দুঃখ কষ্ট লাগব করতে হবে।
এছাড়া তিনি শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন আপনারা শিক্ষার্থীদের নিজের সন্তান মনে করে পাঠদান করবেন। তিনি স্বাধীনতা সংগ্রামের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন এ প্রজন্ম তোমরা তোমাদের জন্য ওইদিন জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছিলাম। একপর্যায়ে তিনি হত দরিদ্র মানুষের কষ্ট লাগবে সরকারের এবং সাংসদের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে অনুদান বিতরণের কথা বলেন।
এছাড়া  ড্রেজার বেকু দিয়ে কৃষকের আবাদি জমি বিনষ্টের হাত থেকে রক্ষা করতে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টিতে গুরুত্ব আরোপ করেন। আবাদি জমিন রক্ষা পেলে দেশ খাদ্য স্বয়ংসম্পূর্ণ থাকবে।
একেই ভাবে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকারকে মসনদে পাঠিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।
এছাড়া ২টি  প্রকল্পের আলোচনা সভার আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য সম্পন্ন করেন।
ওইদিন দুপুরে শাহরাস্তি সরকারি বহুমূখী উবিতে সাবেক পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক শাহ এনামুল হক কমল একইদিন সকালে ঠাকুরবাজার চিশতিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসায় জহিরুল ইসলাম বিএসসির পৃথক সঞ্চালনায় এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান চৌধুরী শেফালী, উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোহাম্মদ হুমায়ন রশীদ, পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ, উপজেলা আলীগের সাধারণ সম্পাদক জেড এম আনোয়ার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন্নাহার কাজল,  তোফায়েল আহমেদ ইরান, শাহরাস্তি মডেল থানার  ওসি  তদন্ত খায়রুল আলম, সাবেক পৌর মেয়র মোশাররফ হোসেন মশু, পৌর আ’লীগের সভাপতি আহসান মঞ্জরুল ইসলাম জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম চৌধুরী , মশিউর রহমান শাহীন, মাসুদ হাসান, শাহরাস্তি চিশতিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ বেলাল হোসেন, শাহরাস্তি সরকারি উবির প্রধান শিক্ষক ইমাম হোসেন। ওই ২টি জনসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগ, ইউপি, ওয়ার্ড পর্যায়ের এবং সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বিদ্যালয় ও মাদ্রাসা ২টির শিক্ষক শিক্ষার্থী অভিভাবক সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ গণমাধ্যম কর্মী উপস্থিত ছিলেন।