ঢাকা ০১:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মতলব উত্তরে আগুনে বসতঘরসহ ১০ দোকান পুড়ে ছাই

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের আমিরাবাদ বাজারে ১০টি দোকানে আগুন লেগে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

মতলব উত্তর ব্যুরো : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের আমিরাবাদ বাজারে ১০টি দোকানে আগুন লেগে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে এই ঘটনাটি ঘটে।

Model Hospital

খবর পেয়ে মতলব দক্ষিণ ফায়ার সার্ভিস এর ২টি ইউনিট দীর্ঘ ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
স্থানীয় এক ব্যবসায়ী জানান, দুপুর আনুমানিক সোয়া ১২টার সময় হঠাৎ করেই আগুনের সূত্রপাত হয় পরে মুহূূর্তে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে এবং বাজারের ১০ টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত দোকানগুলোর মধ্যে পাটের গুদাম, ওয়ার্কশপ, লেপ তোশকের দোকান, কাঠের দোকান, রেষ্টুরেন্ট, কনফেকশনারী, কসমেটিকস দোকান ও ১টি বসত ঘর রয়েছে। এতে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী তাদের।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, মতলব উত্তর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে এখন উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছে। যত শিগগিরই উদ্বোধন করা হবে, আমরা ব্যবসায়ীরা তত নিরাপদ থাকবো। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কাছে অনুরোধ প্রয়োজনীয় জনবল এবং অগ্নি নির্বাপণ কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জমাদী প্রদান করে অগ্নিকাণ্ডের হাত তেকে জানমাল রক্ষা করতে অনুরোধ জানান।

খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি আফরোজা হাবিব শাপলা, উপ পুলিশ পরিদর্শক প্রকাশ প্রণয় দে, আউয়াল, নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান রেজাউল করিম অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন।

ক্ষতিগ্রস্থ হার্ডওয়্যারের দোকানের মালিক আল আমিন তপাদার জানান, প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার মালামাল ছিল, আমি এখন নিস্ব। পাশের দোকানদার মোজাম্মেল বলেন, আমার দোকানের ২ লাখ টাকার মাল পুরে শেষ হয়ে গেছে। কাঠের দোকান মালিক সরোয়ার জানান, তার দোকানের ১০ লাখ টাকার মালামাল ছিল যা পুড়ে যায়। গুদাম মালিক আসলাম জানান, তার দোকানের ৭ লাখ টাকার মালামাল ছিল যা পুরে যায়। লেপ তোশকের দোকান মালিক আলী জানান, তার দোকানের ৩লাখ টাকার মালামাল ছিল যা পুড়ে যায়। এছাড়াও আশেপাশের কয়েকটি দোকানের মালামাল ক্ষতি হয়েছে।

চাঁদপুর থেকে আসা ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক রবিউল বলেন, খবর পাওয়ার পর তাৎক্ষনিক ১৭ জনের একটি টিম নিয়ে মতলব দক্ষিণ ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার আসাদুজ্জামান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টায় ও এলাকাবাসীর সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণ আনতে সক্ষম হয়েছি। আগুনের সূত্রপাত ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমান তদন্ত স্বাপেক্ষে জানা যাবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তির কৃতি সন্তান মাসুদ আলম যশোরের নতুন এসপি 

মতলব উত্তরে আগুনে বসতঘরসহ ১০ দোকান পুড়ে ছাই

আপডেট সময় : ০৩:১০:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০২১

মতলব উত্তর ব্যুরো : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের আমিরাবাদ বাজারে ১০টি দোকানে আগুন লেগে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে এই ঘটনাটি ঘটে।

Model Hospital

খবর পেয়ে মতলব দক্ষিণ ফায়ার সার্ভিস এর ২টি ইউনিট দীর্ঘ ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
স্থানীয় এক ব্যবসায়ী জানান, দুপুর আনুমানিক সোয়া ১২টার সময় হঠাৎ করেই আগুনের সূত্রপাত হয় পরে মুহূূর্তে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে এবং বাজারের ১০ টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত দোকানগুলোর মধ্যে পাটের গুদাম, ওয়ার্কশপ, লেপ তোশকের দোকান, কাঠের দোকান, রেষ্টুরেন্ট, কনফেকশনারী, কসমেটিকস দোকান ও ১টি বসত ঘর রয়েছে। এতে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী তাদের।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, মতলব উত্তর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে এখন উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছে। যত শিগগিরই উদ্বোধন করা হবে, আমরা ব্যবসায়ীরা তত নিরাপদ থাকবো। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কাছে অনুরোধ প্রয়োজনীয় জনবল এবং অগ্নি নির্বাপণ কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জমাদী প্রদান করে অগ্নিকাণ্ডের হাত তেকে জানমাল রক্ষা করতে অনুরোধ জানান।

খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি আফরোজা হাবিব শাপলা, উপ পুলিশ পরিদর্শক প্রকাশ প্রণয় দে, আউয়াল, নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান রেজাউল করিম অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন।

ক্ষতিগ্রস্থ হার্ডওয়্যারের দোকানের মালিক আল আমিন তপাদার জানান, প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার মালামাল ছিল, আমি এখন নিস্ব। পাশের দোকানদার মোজাম্মেল বলেন, আমার দোকানের ২ লাখ টাকার মাল পুরে শেষ হয়ে গেছে। কাঠের দোকান মালিক সরোয়ার জানান, তার দোকানের ১০ লাখ টাকার মালামাল ছিল যা পুড়ে যায়। গুদাম মালিক আসলাম জানান, তার দোকানের ৭ লাখ টাকার মালামাল ছিল যা পুরে যায়। লেপ তোশকের দোকান মালিক আলী জানান, তার দোকানের ৩লাখ টাকার মালামাল ছিল যা পুড়ে যায়। এছাড়াও আশেপাশের কয়েকটি দোকানের মালামাল ক্ষতি হয়েছে।

চাঁদপুর থেকে আসা ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক রবিউল বলেন, খবর পাওয়ার পর তাৎক্ষনিক ১৭ জনের একটি টিম নিয়ে মতলব দক্ষিণ ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার আসাদুজ্জামান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টায় ও এলাকাবাসীর সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণ আনতে সক্ষম হয়েছি। আগুনের সূত্রপাত ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমান তদন্ত স্বাপেক্ষে জানা যাবে।