ঢাকা ০৮:৫৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে লাপাত্তা দম্পতি; মতলব উত্তরে টাকা ফেরত পেতে মানববন্ধন

মতলব উত্তর উপজেলার দক্ষিণ মুক্তিরকান্দি গ্রামের টাকা হাতিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী নারী-পুরুষ।

মতলব উত্তর ব্যুরো : অভিনব কায়দায় প্রতারণা করে প্রায় ৩২ জন মানুষের কাছ থেকে, ২২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে লাপাত্তা হয়েছে এক দম্পতি। ঘটনাটি চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ মুক্তিরকান্দি গ্রামের। কবির হোসেন এবং তার স্ত্রী লাভলী বেগম, পেশায় কৃষক ও কৃষাণী। এ ঘটনার বিচার ও টাকা হাতিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী নারী-পুরুষ।

Model Hospital

সোমবার দুপুরে প্রতারক কবির হোসেন ও লাভলী বেগমের বাড়িতে দক্ষিণ মুক্তিরকান্দি গ্রামের ভুক্তভোগীরা মানববন্ধন করে।

এ ঘটনায়, মতলব উত্তর থানায় ভুক্তভোগী জীবন নেছা সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। অভিযোগ নিয়ে অপেক্ষায় আরো কমপক্ষে ৩০ জন।
কবির হোসেন ও তার স্ত্রী লাভলী বেগম থাকতেন, দক্ষিণ মুক্তিরকান্দি গ্রামের। তারা গত প্রায় দু’বছরে, কমপক্ষে ৩২ জন নারীর নামে গ্রামীন ব্যাংক, ব্র্যাক, উদ্দীপন ও এসডিএফ থেকে ক্ষুদ্রঋণ নিয়ে নিয়ে লাপাত্তা।

ভুক্তভোগীরা বলছেন, লাভলী বেগম এ গ্রামেরই বাসিন্দা। বিভিন্ন সময় আমাদের সাথে মিশে আমাদের নিজ নামীয় বই দিয়ে এনজিও থেকে টাকা উত্তোলন করে নিয়েছে। সে নারীদের প্রতারণার টার্গেট বানাতেন।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, কবির-লাভলী দম্পতি, টাকা ধার নেয়ার জন্য কৌশল করতেন। বিভিন্ন এনজিও থেকে টাকা উত্তোলন করে তাদের দিতেন স্থানীয় নারীরা। কয়েকটি কিস্তি চালিয়ে হঠাৎ করে, রাতারাতি পুরো পরিবার লাপাত্তা হয়ে যাওয়ার পরে, সব পাওনাদারদের টনক নড়ে।

৩নং সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন এর ৩২টি পরিবারকে ধোকা দিয়ে প্রতারক লাভলী বেগম ও তার স্বামী কবির ২২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- ফজলুল হক মাস্টার, শাহজাহান মেম্বার, মানিক প্রধান, সফিকুল ইসলাম প্রধান, আরিফ প্রধান, মোস্তফা প্রধান, মুক্তার প্রধান, শিউলি বেগম, লাকী বেগম, জীবন নেছা, শাহীনূর, শাকিলা বেগম’সহ অন্যান্যরা।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

উদয়ন প্রিমিয়ার লীগ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ সম্পূর্ণ

২২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে লাপাত্তা দম্পতি; মতলব উত্তরে টাকা ফেরত পেতে মানববন্ধন

আপডেট সময় : ০২:৪৮:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ ডিসেম্বর ২০২১

মতলব উত্তর ব্যুরো : অভিনব কায়দায় প্রতারণা করে প্রায় ৩২ জন মানুষের কাছ থেকে, ২২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে লাপাত্তা হয়েছে এক দম্পতি। ঘটনাটি চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ মুক্তিরকান্দি গ্রামের। কবির হোসেন এবং তার স্ত্রী লাভলী বেগম, পেশায় কৃষক ও কৃষাণী। এ ঘটনার বিচার ও টাকা হাতিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী নারী-পুরুষ।

Model Hospital

সোমবার দুপুরে প্রতারক কবির হোসেন ও লাভলী বেগমের বাড়িতে দক্ষিণ মুক্তিরকান্দি গ্রামের ভুক্তভোগীরা মানববন্ধন করে।

এ ঘটনায়, মতলব উত্তর থানায় ভুক্তভোগী জীবন নেছা সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। অভিযোগ নিয়ে অপেক্ষায় আরো কমপক্ষে ৩০ জন।
কবির হোসেন ও তার স্ত্রী লাভলী বেগম থাকতেন, দক্ষিণ মুক্তিরকান্দি গ্রামের। তারা গত প্রায় দু’বছরে, কমপক্ষে ৩২ জন নারীর নামে গ্রামীন ব্যাংক, ব্র্যাক, উদ্দীপন ও এসডিএফ থেকে ক্ষুদ্রঋণ নিয়ে নিয়ে লাপাত্তা।

ভুক্তভোগীরা বলছেন, লাভলী বেগম এ গ্রামেরই বাসিন্দা। বিভিন্ন সময় আমাদের সাথে মিশে আমাদের নিজ নামীয় বই দিয়ে এনজিও থেকে টাকা উত্তোলন করে নিয়েছে। সে নারীদের প্রতারণার টার্গেট বানাতেন।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, কবির-লাভলী দম্পতি, টাকা ধার নেয়ার জন্য কৌশল করতেন। বিভিন্ন এনজিও থেকে টাকা উত্তোলন করে তাদের দিতেন স্থানীয় নারীরা। কয়েকটি কিস্তি চালিয়ে হঠাৎ করে, রাতারাতি পুরো পরিবার লাপাত্তা হয়ে যাওয়ার পরে, সব পাওনাদারদের টনক নড়ে।

৩নং সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন এর ৩২টি পরিবারকে ধোকা দিয়ে প্রতারক লাভলী বেগম ও তার স্বামী কবির ২২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- ফজলুল হক মাস্টার, শাহজাহান মেম্বার, মানিক প্রধান, সফিকুল ইসলাম প্রধান, আরিফ প্রধান, মোস্তফা প্রধান, মুক্তার প্রধান, শিউলি বেগম, লাকী বেগম, জীবন নেছা, শাহীনূর, শাকিলা বেগম’সহ অন্যান্যরা।