ঢাকা ০৯:৫৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শাহরাস্তির কেশরাঙ্গায় ট্রাক প্রতিকের পথসভা

জননেত্রী সুযোগ দিয়েছেন বলেই আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি : সফিকুল আলম ফিরোজ

চাঁদপুর-৫ (শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জ) নির্বাচনী এলাকায় ট্রাক প্রতিকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ সফিকুল আলম ফিরোজ সোমবার (২৫  ডিসেম্বর) বিকেলে শাহরাস্তি উপজেলার সুচিপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের কেশরাঙ্গায় এক পথসভায় ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, জননেত্রীর কৃপায় এবার তিনি সুযোগ দিয়েছেন বলে আমরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি।
আমরা যদি নির্বাচনে না আসতাম আপনি বিনা ভোটে নির্বাচিত হতেন, এই সংসদ আর কার্যকর থাকতো না, জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার পতন হয়ে যেত। আপনারা তো পতনের পক্ষের লোকজন, আমরা তো দুর্দিনে জানের বাজি রেখে সংগঠন করেছি। আমরা পতন চাইনা, এজন্য আমরা এ প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এসেছি।
ভোটারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমার ধারণা ও ছিল না আপনারা যে পরিমাণ ভালোবাসা দিচ্ছেন দিন দিন আমার সমর্থন বাড়ছে, আপনাদের কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আমি আমার কৃতজ্ঞতা শেষ করতে পারবো না। আমি কল্পনাও করিনি আপনাদের কাছ থেকে এত ভালোবাসা পাবো।
আজকে ফেসবুকে দেখি ৭ তারিখের পরে অনেকেই অনেক কিছু করে ফেলবে। যদি আল্লাহ আমাদের বিজয়ী করেন আমরা এসব স্ট্যাটাস দিব না, আমাদের যে আনন্দ মিছিল হবে সেখানে আপনাদের পোলাও কোর্মার দাওয়াত রইলো। আপনাদের মনে এত ভীতি কেন? আপনারা নৌকা মার্কা আওয়ামী লীগ, আমরা কি হারিকেন মার্কা মুসলিম লীগ? আমি আপনাদের উদ্দেশ্যে এইটুকুই বলবো কোন প্রকার ভয় ভীতির সুযোগ নেই। আমাদের সুযোগ ছিল না জননেত্রী শেখ হাসিনা বারবার আমাদের থেকে ওয়াদা নিয়েছেন প্রার্থী যাকে দেবেন তার পক্ষে কাজ করার জন্য। আমরাও বারবার ওয়াদা দিয়েছি। এবার আল্লাহর রহমত হয়েছে, আপনাদের দোয়া কবুল হয়েছে, জননেত্রী শেখ হাসিনা ৩০০ লোককে নৌকা দিয়েছেন বাকিদের স্বতন্ত্র নির্বাচন করার অনুমতি দিয়েছেন। আপনাদের আর্তনাদের ফলে এই সুযোগটাই আমি কাজে লাগিয়েছি।
উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা খিজির হায়দারের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাসুদ আলম পাটোয়ারীর সঞ্চালনায় পথসভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ কামরুজ্জামান মিন্টু, পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক রেজাউল করিম মিন্টু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক  জাহাঙ্গীর মোঃ আদেল, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক খোকন সরকার, সূচীপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহতাবউদ্দিন হেলাল, আওয়ামীলীগ নেতা হুমায়ুন কবির হিরু, জাকির হোসেন পাটোয়ারী, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আবুল হাসেম মাস্টার প্রমূখ।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে অটো চালকের মৃত্যু

শাহরাস্তির কেশরাঙ্গায় ট্রাক প্রতিকের পথসভা

জননেত্রী সুযোগ দিয়েছেন বলেই আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি : সফিকুল আলম ফিরোজ

আপডেট সময় : ১০:০৮:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩
চাঁদপুর-৫ (শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জ) নির্বাচনী এলাকায় ট্রাক প্রতিকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ সফিকুল আলম ফিরোজ সোমবার (২৫  ডিসেম্বর) বিকেলে শাহরাস্তি উপজেলার সুচিপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের কেশরাঙ্গায় এক পথসভায় ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, জননেত্রীর কৃপায় এবার তিনি সুযোগ দিয়েছেন বলে আমরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি।
আমরা যদি নির্বাচনে না আসতাম আপনি বিনা ভোটে নির্বাচিত হতেন, এই সংসদ আর কার্যকর থাকতো না, জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার পতন হয়ে যেত। আপনারা তো পতনের পক্ষের লোকজন, আমরা তো দুর্দিনে জানের বাজি রেখে সংগঠন করেছি। আমরা পতন চাইনা, এজন্য আমরা এ প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এসেছি।
ভোটারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমার ধারণা ও ছিল না আপনারা যে পরিমাণ ভালোবাসা দিচ্ছেন দিন দিন আমার সমর্থন বাড়ছে, আপনাদের কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আমি আমার কৃতজ্ঞতা শেষ করতে পারবো না। আমি কল্পনাও করিনি আপনাদের কাছ থেকে এত ভালোবাসা পাবো।
আজকে ফেসবুকে দেখি ৭ তারিখের পরে অনেকেই অনেক কিছু করে ফেলবে। যদি আল্লাহ আমাদের বিজয়ী করেন আমরা এসব স্ট্যাটাস দিব না, আমাদের যে আনন্দ মিছিল হবে সেখানে আপনাদের পোলাও কোর্মার দাওয়াত রইলো। আপনাদের মনে এত ভীতি কেন? আপনারা নৌকা মার্কা আওয়ামী লীগ, আমরা কি হারিকেন মার্কা মুসলিম লীগ? আমি আপনাদের উদ্দেশ্যে এইটুকুই বলবো কোন প্রকার ভয় ভীতির সুযোগ নেই। আমাদের সুযোগ ছিল না জননেত্রী শেখ হাসিনা বারবার আমাদের থেকে ওয়াদা নিয়েছেন প্রার্থী যাকে দেবেন তার পক্ষে কাজ করার জন্য। আমরাও বারবার ওয়াদা দিয়েছি। এবার আল্লাহর রহমত হয়েছে, আপনাদের দোয়া কবুল হয়েছে, জননেত্রী শেখ হাসিনা ৩০০ লোককে নৌকা দিয়েছেন বাকিদের স্বতন্ত্র নির্বাচন করার অনুমতি দিয়েছেন। আপনাদের আর্তনাদের ফলে এই সুযোগটাই আমি কাজে লাগিয়েছি।
উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা খিজির হায়দারের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাসুদ আলম পাটোয়ারীর সঞ্চালনায় পথসভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ কামরুজ্জামান মিন্টু, পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক রেজাউল করিম মিন্টু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক  জাহাঙ্গীর মোঃ আদেল, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক খোকন সরকার, সূচীপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহতাবউদ্দিন হেলাল, আওয়ামীলীগ নেতা হুমায়ুন কবির হিরু, জাকির হোসেন পাটোয়ারী, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আবুল হাসেম মাস্টার প্রমূখ।