ঢাকা ০১:১৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে শিক্ষামন্ত্রীর প্রচারণা চালানোয় শিক্ষক বরখাস্ত

সরকারি কর্মচারী আচরণবিধি অমান্য করে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির নৌকা প্রতীকের প্রচারণা চালানোয় চাঁদপুরের হাইমচরে সালাউদ্দিন মিয়া নামে এক প্রাথমিক স্কুল শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

Model Hospital

বুধবার (৩ জানুয়ারি) এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা ইয়াসমিন মেহের।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বরখাস্তকৃত শিক্ষক সালাউদ্দিন হাইমচরের ৫৯ নম্বর গন্ডারামা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। তবুও তিনি সরকারি কর্মচারী আচরণবিধি অমান্য করে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে নির্বাচনি প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন। তাই সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮-এর ২(ই) ও ৩(খ) অনুযায়ী তাকে অভিযুক্ত করা হয়। একই বিধিমালার বিধি ১২ (১) অনুযায়ী তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

হাইমচর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মনিরুজ্জামান খান বলেন, একজন সরকারি শিক্ষক হিসেবে কোন শিক্ষকই সরাসরি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করতে পারেন না। তবুও তিনি তার সোশ্যাল মিডিয়াসহ সরাসরি রাজনৈতিক কর্মকান্ডে জড়িয়ে একজন প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছেন। তার বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফাতেমা ইয়াসমিন মেহের বলেন, সরকারি কর্মচারী আচরণবিধি সম্পর্কে সকলকে সচেতন করা হয়েছে। এক শিক্ষক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকারি কর্মচারী হিসেবে যে নীতিমালা মানা জরুরি তা অমান্য করায় তাকে সাময়িক বরখাস্তসহ বিভাগীয় মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

অভিযোগ প্রসঙ্গে শিক্ষক সালাহউদ্দিন বলেন, পূর্বের একটি ছবি ছড়িয়ে দিয়ে আমাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানো হচ্ছে। আমি আইনানুগভাবে বিষয়টির ব্যাখ্যা দিবো।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে অটো চালকের মৃত্যু

চাঁদপুরে শিক্ষামন্ত্রীর প্রচারণা চালানোয় শিক্ষক বরখাস্ত

আপডেট সময় : ১১:২০:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জানুয়ারী ২০২৪

সরকারি কর্মচারী আচরণবিধি অমান্য করে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির নৌকা প্রতীকের প্রচারণা চালানোয় চাঁদপুরের হাইমচরে সালাউদ্দিন মিয়া নামে এক প্রাথমিক স্কুল শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

Model Hospital

বুধবার (৩ জানুয়ারি) এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা ইয়াসমিন মেহের।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বরখাস্তকৃত শিক্ষক সালাউদ্দিন হাইমচরের ৫৯ নম্বর গন্ডারামা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। তবুও তিনি সরকারি কর্মচারী আচরণবিধি অমান্য করে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে নির্বাচনি প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন। তাই সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮-এর ২(ই) ও ৩(খ) অনুযায়ী তাকে অভিযুক্ত করা হয়। একই বিধিমালার বিধি ১২ (১) অনুযায়ী তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

হাইমচর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মনিরুজ্জামান খান বলেন, একজন সরকারি শিক্ষক হিসেবে কোন শিক্ষকই সরাসরি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করতে পারেন না। তবুও তিনি তার সোশ্যাল মিডিয়াসহ সরাসরি রাজনৈতিক কর্মকান্ডে জড়িয়ে একজন প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছেন। তার বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফাতেমা ইয়াসমিন মেহের বলেন, সরকারি কর্মচারী আচরণবিধি সম্পর্কে সকলকে সচেতন করা হয়েছে। এক শিক্ষক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকারি কর্মচারী হিসেবে যে নীতিমালা মানা জরুরি তা অমান্য করায় তাকে সাময়িক বরখাস্তসহ বিভাগীয় মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

অভিযোগ প্রসঙ্গে শিক্ষক সালাহউদ্দিন বলেন, পূর্বের একটি ছবি ছড়িয়ে দিয়ে আমাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানো হচ্ছে। আমি আইনানুগভাবে বিষয়টির ব্যাখ্যা দিবো।