ঢাকা ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শাহরাস্তিতে পিতা-মাতাকে নির্যাতনের অভিযোগে পুত্র আটক

শাহরাস্তিতে পিতা-মাতাকে নির্যাতনের অভিযোগে পুত্র  শাহীনকে (৫৩) আটক করে চাঁদপুর  আদালতে প্রেরন করেছে পুলিশ।

Model Hospital

উপজেলার শুচিপাড়া উত্তর ইউপি’র শোরসাক গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার পিতা-মাতা,পুলিশ  সূত্র জানায়,ওই গ্রামের বৃদ্ধ বেলাল আহমেদ (৮০) ও তাঁর স্ত্রী সুরাইয়া বেগম (৭০) বয়সের ভারে নুব্জ।

এরই মধ্যে তাদের শরীরে বাসা বেঁধেছে নানাবিধ জরাব্যাধি। শারীরিক অক্ষমতায় কর্মহীন জীবন পার করছিল উভয়ই।এতে করে ক্রমান্বয়ে তাদের বড় ছেলে শাহীন ও তার স্ত্রী সোনিয়া সুলতানার চক্ষুশূলে পরিণত হয় তারা। ওই পারিবারিক গৃহ বিবাদকে কেন্দ্র করে রোববার সকাল ১১ টার সময় শাহিন ও তার স্ত্রী সোনিয়া সুলতানা বৃদ্ধ পিতা মাতাকে গৃহ থেকে বিতাড়িত করে তালা বন্ধ করে দেয়।

পরে বিষয়টি স্থানীয়দের সহযোগিতায় অভিযুক্তের মা সুরাইয়া বেগম শাহরাস্তি মডেল থানায় পুত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ শাহিনকে আটক করে।

পরবর্তীতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ওই বৃদ্ধ পিতা-মাতাকে নিজগৃহে থাকার সুব্যবস্থা করে দেয়।

এ ঘটনা প্রসঙ্গে ভুক্তভোগী মায়ের আরেক পুত্র সাঈদ আলী স্বপন জানান, আমার বড় ভাই শাহিন আমাদের ছোট দুই ভাই রেদোয়ান হোসেন রিপন ও ফারুক হোসেন বিরুদ্ধেও নিজের স্ত্রী দ্বারা মামলা করে আমার  পিতা মাতাকে নির্যাতন চালিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয়।

এ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত শাহিনের পিতা ক্ষুব্ধ বেলাল আহমেদ জানান, আমি ও আমার স্ত্রী জ্যেষ্ঠ ছেলে শাহিন কর্তৃক নির্যাতনের শিকার হয়ে শাহরাস্তি থানায় বিচার চাইতে এসেছি।

ওই প্রসঙ্গে বেলাল আহমেদের স্ত্রী অভিযোগকারীনি সুরাইয়া বেগম জানান, আমার পুত্র শাহীন তার স্ত্রী ও নাতি দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিবাদের ধোয়া তুলে নির্যাতন চালিয়ে আসছে।

সম্প্রতি ওইঘটনা রেশ ধরে আমাদের ভরণপোষণ একেবারে বন্ধ করে দেয়। আজ হঠাৎ করে ঘরে তালা বন্ধ করে স্ব-গৃহ থেকে বিতাড়িত করে। এমন কাণ্ড নিয়ে পূর্ব বহু দেন দরবার হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন জানান,পুত্র কর্তৃক বৃদ্ধ পিতা-মাতাকে ভরণপোষণ না দিয়ে গৃহ থেকে বিতাড়িত করার সংবাদটি পুলিশ অবহিত হয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়।

অভিযুক্ত পুত্র শাহীনকে পুলিশ আটক করে চাঁদপুর বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করেছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ঈদে স্ত্রীকে মাংস কিনে খাওয়াতে না পেরে চিরকুট লিখে আত্মহত্যা

শাহরাস্তিতে পিতা-মাতাকে নির্যাতনের অভিযোগে পুত্র আটক

আপডেট সময় : ১১:১৩:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শাহরাস্তিতে পিতা-মাতাকে নির্যাতনের অভিযোগে পুত্র  শাহীনকে (৫৩) আটক করে চাঁদপুর  আদালতে প্রেরন করেছে পুলিশ।

Model Hospital

উপজেলার শুচিপাড়া উত্তর ইউপি’র শোরসাক গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার পিতা-মাতা,পুলিশ  সূত্র জানায়,ওই গ্রামের বৃদ্ধ বেলাল আহমেদ (৮০) ও তাঁর স্ত্রী সুরাইয়া বেগম (৭০) বয়সের ভারে নুব্জ।

এরই মধ্যে তাদের শরীরে বাসা বেঁধেছে নানাবিধ জরাব্যাধি। শারীরিক অক্ষমতায় কর্মহীন জীবন পার করছিল উভয়ই।এতে করে ক্রমান্বয়ে তাদের বড় ছেলে শাহীন ও তার স্ত্রী সোনিয়া সুলতানার চক্ষুশূলে পরিণত হয় তারা। ওই পারিবারিক গৃহ বিবাদকে কেন্দ্র করে রোববার সকাল ১১ টার সময় শাহিন ও তার স্ত্রী সোনিয়া সুলতানা বৃদ্ধ পিতা মাতাকে গৃহ থেকে বিতাড়িত করে তালা বন্ধ করে দেয়।

পরে বিষয়টি স্থানীয়দের সহযোগিতায় অভিযুক্তের মা সুরাইয়া বেগম শাহরাস্তি মডেল থানায় পুত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ শাহিনকে আটক করে।

পরবর্তীতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ওই বৃদ্ধ পিতা-মাতাকে নিজগৃহে থাকার সুব্যবস্থা করে দেয়।

এ ঘটনা প্রসঙ্গে ভুক্তভোগী মায়ের আরেক পুত্র সাঈদ আলী স্বপন জানান, আমার বড় ভাই শাহিন আমাদের ছোট দুই ভাই রেদোয়ান হোসেন রিপন ও ফারুক হোসেন বিরুদ্ধেও নিজের স্ত্রী দ্বারা মামলা করে আমার  পিতা মাতাকে নির্যাতন চালিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয়।

এ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত শাহিনের পিতা ক্ষুব্ধ বেলাল আহমেদ জানান, আমি ও আমার স্ত্রী জ্যেষ্ঠ ছেলে শাহিন কর্তৃক নির্যাতনের শিকার হয়ে শাহরাস্তি থানায় বিচার চাইতে এসেছি।

ওই প্রসঙ্গে বেলাল আহমেদের স্ত্রী অভিযোগকারীনি সুরাইয়া বেগম জানান, আমার পুত্র শাহীন তার স্ত্রী ও নাতি দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিবাদের ধোয়া তুলে নির্যাতন চালিয়ে আসছে।

সম্প্রতি ওইঘটনা রেশ ধরে আমাদের ভরণপোষণ একেবারে বন্ধ করে দেয়। আজ হঠাৎ করে ঘরে তালা বন্ধ করে স্ব-গৃহ থেকে বিতাড়িত করে। এমন কাণ্ড নিয়ে পূর্ব বহু দেন দরবার হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন জানান,পুত্র কর্তৃক বৃদ্ধ পিতা-মাতাকে ভরণপোষণ না দিয়ে গৃহ থেকে বিতাড়িত করার সংবাদটি পুলিশ অবহিত হয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়।

অভিযুক্ত পুত্র শাহীনকে পুলিশ আটক করে চাঁদপুর বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করেছে।