ঢাকা ০২:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় অস্ত্রের মুখে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ’র প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহারের অভিযোগ

চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ গ্রহনের আবেদন সাথে মেশকাত হোসেন নাঈমের ফাইল ফটো।

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কড়ইয়া ইউনিয়নে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান প্রার্থী মেশকাত হোসেন নাঈমের মনোনয়নপত্র জোর পূর্বক অস্ত্রের মুখে প্রত্যাহার করতে বাধ্য করা হয়েছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

প্রার্থী মেশকাত হোসেন নাঈমের পক্ষে নির্বাচন কমিশনার কচুয়া চাঁদপুর বরাবর দায়ের করা অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে বাংলাদেশ ইসলামিক ফ্রন্ট দলের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হন মেশকাত হোসেন নাঈম। তার বিপক্ষ প্রার্থী জোর পূর্বক অস্ত্রের সম্মুখে মনোনয়ন প্রত্যাহার করতে বাধ্য করেছে এবং তাকে অনত্র গুম করা হয়েছে। এমতা বস্থায় তিনি পুনরায় নির্বাচনে অংশ গ্রহন করতে চায়। তাকে নিরাপত্তা পূর্বক নির্বাচনে অংশ গ্রহন করার জন্য নির্বাচন কমিশনার বরাবর সু-পারিশ কামনা করেছেন।

এদিকে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন, প্রতিদ্বন্দ্বি নৌকার প্রার্থী আব্দুস সালাম সওদাগর তিনি বলেন, মেশকাত হোসেন নাঈমের প্রার্থীতা প্রত্যাহারে আমার কোন হাত নেই। রিটার্নিং অফিসারের নিকট স্ব শরীরে উপস্থিত থেকে তিনি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন। আমি কেন বাধ্য করবো।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কচুয়া উপজেলা নির্বাচনী রিটার্নিং অফিসার কাজী আবু বকর সিদ্দিক কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর বিজয়ের গান গাইলেন সুনামগঞ্জের সাংবাদিক রাজু

কচুয়ায় অস্ত্রের মুখে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ’র প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহারের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০২:৩৯:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কড়ইয়া ইউনিয়নে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান প্রার্থী মেশকাত হোসেন নাঈমের মনোনয়নপত্র জোর পূর্বক অস্ত্রের মুখে প্রত্যাহার করতে বাধ্য করা হয়েছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

প্রার্থী মেশকাত হোসেন নাঈমের পক্ষে নির্বাচন কমিশনার কচুয়া চাঁদপুর বরাবর দায়ের করা অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে বাংলাদেশ ইসলামিক ফ্রন্ট দলের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হন মেশকাত হোসেন নাঈম। তার বিপক্ষ প্রার্থী জোর পূর্বক অস্ত্রের সম্মুখে মনোনয়ন প্রত্যাহার করতে বাধ্য করেছে এবং তাকে অনত্র গুম করা হয়েছে। এমতা বস্থায় তিনি পুনরায় নির্বাচনে অংশ গ্রহন করতে চায়। তাকে নিরাপত্তা পূর্বক নির্বাচনে অংশ গ্রহন করার জন্য নির্বাচন কমিশনার বরাবর সু-পারিশ কামনা করেছেন।

এদিকে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন, প্রতিদ্বন্দ্বি নৌকার প্রার্থী আব্দুস সালাম সওদাগর তিনি বলেন, মেশকাত হোসেন নাঈমের প্রার্থীতা প্রত্যাহারে আমার কোন হাত নেই। রিটার্নিং অফিসারের নিকট স্ব শরীরে উপস্থিত থেকে তিনি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন। আমি কেন বাধ্য করবো।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কচুয়া উপজেলা নির্বাচনী রিটার্নিং অফিসার কাজী আবু বকর সিদ্দিক কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।