ঢাকা ০২:৩২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মিছিল ও শোডাউন করায় মতলব উত্তর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীকে শোকজ

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে মতলব উত্তর উপজেলায় প্রতিক বরাদ্দের আগেই মিছিল ও শোডাউন করায় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ মানিক দর্জিকে কারণ দর্শানো নোটিশ (শোকজ) দেওয়া হয়েছে।
সোমবার মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ আদেশ দেওয়া হয়।
চিঠিতে তাঁর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করায় কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, সে বিষয়ে লিখিতভাবে জানতে চাওয়া হয়েছে।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোঃ মানিক দর্জি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের পরে প্রতিক বরাদ্দের আগেই (২১ এপ্রিল) রবিবার তিনি মোহনপুর স্কুল মাঠ শত শত মোটরসাইকেল নিয়ে ছাদ খোলা জীপ গাড়ী দিয়ে মেঘনা ধনাগোদা সেচ প্রকল্প বেড়িবাঁধ ও উপজেলার বিভিন্ন এলাকা মিছিল ও শোডাউন করেন।
এ সময় নেতা-কর্মীরা বিভিন্ন স্লোগান দেয়। মিছিলের পুরো সময়ে তিনি তাঁর ব্যক্তিগত ও বিভিন্ন নেতাকর্মীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট  থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে যুক্ত ছিলেন।
এ বিষয়ে প্রার্থী মোঃ মানিক দর্জি বলেন, আমি মোহনপুর যাবো শুনে আমার ইউনিয়নসহ মতলব উত্তর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে সাধারণ কর্মীরা আমার সঙ্গে দেখা করতে আসে। আমি কোনো মিছিল-মিটিং কিংবা শোডাউন করিনি। তারপরও নির্বাচন কমিশন থেকে নোটিশ করা হয়েছে শুনেছি। তবে এখনো নোটিশ পাইনি। নোটিশ হাতে পেলে আমি আমার মতো নোটিশের জবাব দেব।
চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন বলেন, ২১ এপ্রিল রবিবার চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ মানিক উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬-এর ১১ (১) (২) বিধি লঙ্ঘন করেছে। তাই মনোনয়নপত্র দাখিল ও পরবর্তী সময়ে মিছিল ও শোডাউন করে আচরণবিধি লঙ্ঘন করার অপরাধে তাঁর বিরুদ্ধে কেন আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তার ব্যাখ্যা চেয়ে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। নোটিশ প্রাপ্তির ৪৮ ঘন্টার মধ্যে মধ্যে জেলায় তাঁকে নোটিশের লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে।
উপজেলা পরিষদের প্রথম ধাপের নির্বাচন আগামী ৮ মে অনুষ্ঠিত হবে। তফসিল অনুযায়ী ২২ এপ্রিল প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং ২৩ এপ্রিল প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে।
নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের তিনটি পদের বিপরীতে ৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।
ট্যাগস :

মিছিল ও শোডাউন করায় মতলব উত্তর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীকে শোকজ

আপডেট সময় : ১২:১৯:২৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪
ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে মতলব উত্তর উপজেলায় প্রতিক বরাদ্দের আগেই মিছিল ও শোডাউন করায় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ মানিক দর্জিকে কারণ দর্শানো নোটিশ (শোকজ) দেওয়া হয়েছে।
সোমবার মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ আদেশ দেওয়া হয়।
চিঠিতে তাঁর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করায় কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, সে বিষয়ে লিখিতভাবে জানতে চাওয়া হয়েছে।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোঃ মানিক দর্জি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের পরে প্রতিক বরাদ্দের আগেই (২১ এপ্রিল) রবিবার তিনি মোহনপুর স্কুল মাঠ শত শত মোটরসাইকেল নিয়ে ছাদ খোলা জীপ গাড়ী দিয়ে মেঘনা ধনাগোদা সেচ প্রকল্প বেড়িবাঁধ ও উপজেলার বিভিন্ন এলাকা মিছিল ও শোডাউন করেন।
এ সময় নেতা-কর্মীরা বিভিন্ন স্লোগান দেয়। মিছিলের পুরো সময়ে তিনি তাঁর ব্যক্তিগত ও বিভিন্ন নেতাকর্মীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট  থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে যুক্ত ছিলেন।
এ বিষয়ে প্রার্থী মোঃ মানিক দর্জি বলেন, আমি মোহনপুর যাবো শুনে আমার ইউনিয়নসহ মতলব উত্তর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে সাধারণ কর্মীরা আমার সঙ্গে দেখা করতে আসে। আমি কোনো মিছিল-মিটিং কিংবা শোডাউন করিনি। তারপরও নির্বাচন কমিশন থেকে নোটিশ করা হয়েছে শুনেছি। তবে এখনো নোটিশ পাইনি। নোটিশ হাতে পেলে আমি আমার মতো নোটিশের জবাব দেব।
চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন বলেন, ২১ এপ্রিল রবিবার চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ মানিক উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬-এর ১১ (১) (২) বিধি লঙ্ঘন করেছে। তাই মনোনয়নপত্র দাখিল ও পরবর্তী সময়ে মিছিল ও শোডাউন করে আচরণবিধি লঙ্ঘন করার অপরাধে তাঁর বিরুদ্ধে কেন আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তার ব্যাখ্যা চেয়ে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। নোটিশ প্রাপ্তির ৪৮ ঘন্টার মধ্যে মধ্যে জেলায় তাঁকে নোটিশের লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে।
উপজেলা পরিষদের প্রথম ধাপের নির্বাচন আগামী ৮ মে অনুষ্ঠিত হবে। তফসিল অনুযায়ী ২২ এপ্রিল প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং ২৩ এপ্রিল প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে।
নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের তিনটি পদের বিপরীতে ৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।