ঢাকা ০৪:২১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চাঁসকে মাদক বিরোধী আন্তঃস্কুল বির্তক প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন ও সেমিনার

ক্যাম্পাস রিপোর্ট : মেঘনাপাড়ের বাতিঘর বলে খ্যাত চাঁদপুর সরকারি কলেজে বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল দশটায় কনফারেন্স কক্ষে সিডিএম মাদক বিরোধী আন্তঃস্কুল বির্তক প্রতিযোগিতা-২০২২ এর শুভ উদ্বোধন এবং মাদক বিরোধী সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

Model Hospital

চাঁদপুর ডিবেট মুভমেন্ট (সিডিএম) এর আয়োজনে এবং মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, চাঁদপুরের সহযোগিতায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিডিএম এর সভাপতি ভিভিয়ান ঘোষ। আব্দুল বাসিত এর সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরণ দাশ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠের প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাত, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, চাঁদপুরের সহকারী পরিচালক মোঃ এমদাদুল ইসলাম মিঠুন এবং সিসিডিএফ এর মডারেটর কিউ এম হাসান শাহরিয়ার। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও পবিত্র গীতা পাঠের মধ্যদিয়ে শুরু হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

যুক্তির শুদ্ধতায় নিজেকে গড়ি, মাদকে না বলি এই শ্লোগানে উজ্জীবিত হয়ে চাঁদপুর জেলার ১৬টি বিতর্ক দল নিয়ে ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদ স্মারক বিতর্ক উৎসব-২০২২ অংশ হিসেবে এই আন্তঃস্কুল বির্তক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর অসিত বরণ বলেন, একজন ভাল বিতার্কিক হতে হলে বাচন ভঙ্গি সুন্দর হতে হবে। সর্বশেষ তথ্য সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করতে হবে। অখন্ডনীয় যুক্তি দিতে হবে এবং বিপরীত পক্ষের যুক্তি অবশ্যই খন্ডন করতে হবে। বির্তক জ্ঞানের প্রসার ঘটায়। অন্য দিকে মাদক মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। নিজেকে তথা যুবসমাজকে বাচঁতে হলে, মাদকে না বলতে হবে। মাদক থেকে দূরে থাকতে হবে। তাহলে ভবিষ্যৎ তোমাদের উজ্জ্বল হবে।’’

চাঁদপুর কন্ঠের প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাত বিতার্কিকের গুনাবলী এবং মাদকের ভয়াবহতা নিয়ে আলোচনা করেন। মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, চাঁদপুর শাখার সহকারী পরিচালক মো. এমদাদুল ইসলাম মিঠুন মাদকের কুফল সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের অভিহিত করেন। তিনি বিভিন্ন প্রকার মাদকের ভয়াবহতা শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরেন এবং মাদক গ্রহণ করবে না বলে শিক্ষার্থীদের শপথ বাক্য পাঠ করান।

চাঁদপুর জেলার ১৬টি বিদ্যালয় নিয়ে তিনদিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে বিতর্ক প্রতিযোগিতা। মূলত মাদক বিরোধী সচেতনতা বৃদ্ধি করাই এই প্রতিযোগিতার উদ্দেশ্য। প্রথম দিন (৮ সেপ্টেম্বর) কর্মশালা ও মাদক বিরোধী সেমিনার, দ্বিতীয় দিন (৯ সেপ্টেম্বর) রাউন্ড পর্বের বির্তক প্রতিযোগিতা এবং শেষ দিন (১০ সেপ্টেম্বর) ফাইনাল প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ করা হবে। অংশগ্রহণকারী প্রতিটি স্কুলের বিতার্কিকের জন্য থাকছে সার্টিফিকেট ও পুরস্কার। চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলের জন্য থাকবে বিশেষ ট্রপি। চ্যাম্পিয়ন দল পরবর্তীতে জাতীয় টেলিভিশন বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুর শহরে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালো অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন

চাঁসকে মাদক বিরোধী আন্তঃস্কুল বির্তক প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন ও সেমিনার

আপডেট সময় : ০৬:১৮:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

ক্যাম্পাস রিপোর্ট : মেঘনাপাড়ের বাতিঘর বলে খ্যাত চাঁদপুর সরকারি কলেজে বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল দশটায় কনফারেন্স কক্ষে সিডিএম মাদক বিরোধী আন্তঃস্কুল বির্তক প্রতিযোগিতা-২০২২ এর শুভ উদ্বোধন এবং মাদক বিরোধী সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

Model Hospital

চাঁদপুর ডিবেট মুভমেন্ট (সিডিএম) এর আয়োজনে এবং মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, চাঁদপুরের সহযোগিতায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিডিএম এর সভাপতি ভিভিয়ান ঘোষ। আব্দুল বাসিত এর সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরণ দাশ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠের প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাত, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, চাঁদপুরের সহকারী পরিচালক মোঃ এমদাদুল ইসলাম মিঠুন এবং সিসিডিএফ এর মডারেটর কিউ এম হাসান শাহরিয়ার। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও পবিত্র গীতা পাঠের মধ্যদিয়ে শুরু হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

যুক্তির শুদ্ধতায় নিজেকে গড়ি, মাদকে না বলি এই শ্লোগানে উজ্জীবিত হয়ে চাঁদপুর জেলার ১৬টি বিতর্ক দল নিয়ে ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদ স্মারক বিতর্ক উৎসব-২০২২ অংশ হিসেবে এই আন্তঃস্কুল বির্তক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর অসিত বরণ বলেন, একজন ভাল বিতার্কিক হতে হলে বাচন ভঙ্গি সুন্দর হতে হবে। সর্বশেষ তথ্য সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করতে হবে। অখন্ডনীয় যুক্তি দিতে হবে এবং বিপরীত পক্ষের যুক্তি অবশ্যই খন্ডন করতে হবে। বির্তক জ্ঞানের প্রসার ঘটায়। অন্য দিকে মাদক মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। নিজেকে তথা যুবসমাজকে বাচঁতে হলে, মাদকে না বলতে হবে। মাদক থেকে দূরে থাকতে হবে। তাহলে ভবিষ্যৎ তোমাদের উজ্জ্বল হবে।’’

চাঁদপুর কন্ঠের প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাত বিতার্কিকের গুনাবলী এবং মাদকের ভয়াবহতা নিয়ে আলোচনা করেন। মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, চাঁদপুর শাখার সহকারী পরিচালক মো. এমদাদুল ইসলাম মিঠুন মাদকের কুফল সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের অভিহিত করেন। তিনি বিভিন্ন প্রকার মাদকের ভয়াবহতা শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরেন এবং মাদক গ্রহণ করবে না বলে শিক্ষার্থীদের শপথ বাক্য পাঠ করান।

চাঁদপুর জেলার ১৬টি বিদ্যালয় নিয়ে তিনদিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে বিতর্ক প্রতিযোগিতা। মূলত মাদক বিরোধী সচেতনতা বৃদ্ধি করাই এই প্রতিযোগিতার উদ্দেশ্য। প্রথম দিন (৮ সেপ্টেম্বর) কর্মশালা ও মাদক বিরোধী সেমিনার, দ্বিতীয় দিন (৯ সেপ্টেম্বর) রাউন্ড পর্বের বির্তক প্রতিযোগিতা এবং শেষ দিন (১০ সেপ্টেম্বর) ফাইনাল প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ করা হবে। অংশগ্রহণকারী প্রতিটি স্কুলের বিতার্কিকের জন্য থাকছে সার্টিফিকেট ও পুরস্কার। চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলের জন্য থাকবে বিশেষ ট্রপি। চ্যাম্পিয়ন দল পরবর্তীতে জাতীয় টেলিভিশন বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।