ঢাকা ০৯:৪৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সমাজে মানুষরূপী অনেক অসুর আছে; নুরুল আমিন রুহুল এমপি

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর-দক্ষিণ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, আমাদের সনাতন ধর্মাবলম্বীরা প্রতি বছর দূর্গা পূজা করেন, এই পূজার মুল প্রেরণা সেটা কিন্তু হতে হবে। দেবী দুর্গার যে লক্ষ্য ছিল অসুরকে নিধন করা। সমাজে মানুষরূপী অনেক অসুর আছে। তাদেরকে মোকাবেলা করে আলোর জগত সৃষ্টি করার জন্য আমরা যদি পুরো চেষ্টা না চালাই তাহলে এই দুর্গাপূজা অর্থহীন হয়ে যাবে।

Model Hospital

৩ অক্টোবর সোমবার মতলব উত্তর উপজেলার বাগানবাড়ি’সহ দুর্গাপুর ইউনিয়ন বিভিন্ন পুজামন্ডপ পরিদর্শন পুজারী ও ভক্তদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, এ দেশ আমাদের সকলের বাংলাদেশ হচ্ছে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উজ্জ্বল দৃষ্ঠান্ত। বাংলাদেশে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে সহাবস্থান করছে।

শারদীয় উৎসব শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের নয়। এখানে সকল ধর্মের মিলন মেলায় পরিণত হয়। ধর্ম যার যার আর উৎসব সবার। দেশ ও জাতির তথা এ অঞ্চলের মানব কল্যানে সবাই মিলে মিশে আমরা কাজ করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।

নুরুল আমিন রুহুল বলেন, যখনই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তখন সকল সম্প্রদায়ের লোক সুন্দর ভাবে যার যার ধর্ম পালন করতে পারে।

নুরুল আমিন রুহুল আরো বলেন, দুর্গাপূজা শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের উৎসবই নয়, এটি আজ সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। অশুভ শক্তির বিনাশ এবং সত্য ও সুন্দরের আরাধনা শারদীয় দুর্গোৎসবের প্রধান বৈশিষ্ট্য। আর সকলে মিলে যুদ্ধ করে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছি। তাই এ দেশ আমাদের সকলের। সংবিধানে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষের সমানাধিকার সুনিশ্চিত করা হয়েছে। বাংলাদেশ ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের নিরাপদ আবাসভূমি।

পরিদর্শনকালে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র দাসের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কাউন্সিলর আকাশ কুমার ভৌমিক, মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মহিউদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি রাধেশ্যাম সাহা চান্দু বাবু, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান মো. জহির।

উপস্থিত ছিলেন এমপির ব্যাক্তিগত সহকারী অ্যাড. লিয়াকত আলী সুমন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক আবদুর রব প্রধান, ইউপি সদস্য শিপলু শিকদার, মাহবুব আলম, যুবলীগ নেতা মাজহারুল ইসলাম ইকবাল, মো. দুলাল হোসেন, মিলন চৌধুরী, জিকু, রফিকুল ইসলাম রিয়াদ, ছাত্রলীগ নেতা শিহাব সরকার, মাহমুদুল হাসান’সহ নেতৃবৃন্দ।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা ঘোষণা শ্যামলী খানের

সমাজে মানুষরূপী অনেক অসুর আছে; নুরুল আমিন রুহুল এমপি

আপডেট সময় : ০৫:৫৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর-দক্ষিণ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, আমাদের সনাতন ধর্মাবলম্বীরা প্রতি বছর দূর্গা পূজা করেন, এই পূজার মুল প্রেরণা সেটা কিন্তু হতে হবে। দেবী দুর্গার যে লক্ষ্য ছিল অসুরকে নিধন করা। সমাজে মানুষরূপী অনেক অসুর আছে। তাদেরকে মোকাবেলা করে আলোর জগত সৃষ্টি করার জন্য আমরা যদি পুরো চেষ্টা না চালাই তাহলে এই দুর্গাপূজা অর্থহীন হয়ে যাবে।

Model Hospital

৩ অক্টোবর সোমবার মতলব উত্তর উপজেলার বাগানবাড়ি’সহ দুর্গাপুর ইউনিয়ন বিভিন্ন পুজামন্ডপ পরিদর্শন পুজারী ও ভক্তদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, এ দেশ আমাদের সকলের বাংলাদেশ হচ্ছে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উজ্জ্বল দৃষ্ঠান্ত। বাংলাদেশে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে সহাবস্থান করছে।

শারদীয় উৎসব শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের নয়। এখানে সকল ধর্মের মিলন মেলায় পরিণত হয়। ধর্ম যার যার আর উৎসব সবার। দেশ ও জাতির তথা এ অঞ্চলের মানব কল্যানে সবাই মিলে মিশে আমরা কাজ করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।

নুরুল আমিন রুহুল বলেন, যখনই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তখন সকল সম্প্রদায়ের লোক সুন্দর ভাবে যার যার ধর্ম পালন করতে পারে।

নুরুল আমিন রুহুল আরো বলেন, দুর্গাপূজা শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের উৎসবই নয়, এটি আজ সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। অশুভ শক্তির বিনাশ এবং সত্য ও সুন্দরের আরাধনা শারদীয় দুর্গোৎসবের প্রধান বৈশিষ্ট্য। আর সকলে মিলে যুদ্ধ করে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছি। তাই এ দেশ আমাদের সকলের। সংবিধানে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষের সমানাধিকার সুনিশ্চিত করা হয়েছে। বাংলাদেশ ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের নিরাপদ আবাসভূমি।

পরিদর্শনকালে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র দাসের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কাউন্সিলর আকাশ কুমার ভৌমিক, মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মহিউদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি রাধেশ্যাম সাহা চান্দু বাবু, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান মো. জহির।

উপস্থিত ছিলেন এমপির ব্যাক্তিগত সহকারী অ্যাড. লিয়াকত আলী সুমন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক আবদুর রব প্রধান, ইউপি সদস্য শিপলু শিকদার, মাহবুব আলম, যুবলীগ নেতা মাজহারুল ইসলাম ইকবাল, মো. দুলাল হোসেন, মিলন চৌধুরী, জিকু, রফিকুল ইসলাম রিয়াদ, ছাত্রলীগ নেতা শিহাব সরকার, মাহমুদুল হাসান’সহ নেতৃবৃন্দ।