ঢাকা ১১:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাত পোহালেই ফরিদগঞ্জ পাইকপাড়া দঃ ইউপির নির্বাচন

এস এম ইকবাল : রাত পোহালেই ২৮ নভেম্বর, সেমবার চাঁদপুর ফরিদগঞ্জে ১টি ইউপির নির্বাচন, ৮নং পাইকপাড়া দক্ষিন ইউপি’র চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই প্রথম বারের মতো ইউপি নির্বাচনে এই ইউনিয়নটিতে ৯টি ভোট কেন্দ্রে ২০ হাজার ৩শত ৩০জন ভোটার ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট প্রয়োগ করবেন।

Model Hospital

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের জন্য প্রস্তুতি রয়েছেন ৩৩২ জন আইন-শৃখলা বাহিনীর সদস্য। এছাড়াও মাঠে কাজ করবেন ৩ জন ম্যাজিষ্ট্রেট। মোবাইল টিম থাকবে প্রায় ৭ টির মত। যেকোন পরিস্থিতি মোকাবিলায় আরো রাখা হয়েছে স্ট্রাইকিং ফোর্স। যেকোন মূল্যে সুষ্ঠু ভোট গ্রহনের আশা প্রকাশ করেছেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটানিং কর্মকর্তা ও থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন।

ভোট গ্রণের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে মোট ৯টি কেন্দ্র। এই নির্বাচনকে ঘিরে র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশ এবং আনসার নিয়ে ৪স্তরের নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৭ ও সাধারণ সদস্য পদে ৫০ জন, সংরক্ষিত মহিলা সাধারণ সদস্য পদে ১২ জন প্রার্থী রয়েছেন। এসব প্রার্থীর মধ্যে ভোটারদের আকর্ষণ চেয়ারম্যান পদে ৭জন প্রার্থী। এদের মধ্যে আওয়ামীলীগের ৩জন, বিএনপির ৩জন এবং ইসলামী আন্দোলনের একজন প্রার্থী রয়েছেন।

এর হলেন, মোহাম্মদ হোসেন মিন্টু (নৌকা), সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবির কাজী (ঘোড়া), মোঃ ফারুক আহমেদ (টেলিফোন), হোসাইন আহমেদ রাজন শেখ( আনারস), রমজান আলী খান (চশমা), মোঃ হেলাল উদ্দিন (হাতপাখা), কাজী ইকবাল হোসেন পিন্টু (মটর সাইকেল)।

১ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৯ জন। কেন্দ্র গাজীপুর আহমদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা, ভোটর সংখ্যা ২৫২৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৩৬৪ এবং নারী ১১৬৪ জন। প্রার্থীরা হলেন, জসিমউদ্দিন (আপেল), শহীদুল্লাহ খান (টিউবওয়েল), ওহিদ উল্ল্যা (বৈদ্যুতিক পাখা), মোঃ আলমগীর (টর্চলাইট), মোঃ রাসেল (ভ্যান গাড়ি), ছাত্তার মুন্সী (ক্রিকেট ব্যাট), মিলন তপাদার (তালা), মাইন উদ্দিন পাটোয়ারী (ফুটবল), কামরুল হাসান (মোরগ)।

২ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪ জন। কেন্দ্র খুরুম খালী সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৬৩৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৩৮৮ এবং নারী ১২৫০ জন। প্রার্থীরা হলেন,, মোঃ সাদ্দাম হোসেন (তালা), মোঃ রানা মিয়া (আপেল), মোঃ মোস্তফা (মোরগ), মোঃ শরীফ হোসেন (ফুটবল)।

৩ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৭ জন। কেন্দ্র কড়ৈতলী উচ্চ বিদ্যালয় ও জুবলী সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৭২৩ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৪২৬ এবং নারী ১২৯৭ জন। প্রার্থীরা হলেন, মোঃ সেলিম (তালা), জাকির হোসেন মোল্লা (আপেল), মোঃ লোকমান হোসেন (ফুটবল), মোঃ আলী হায়দার পাটওয়ারী (মোরগ), মোঃ সুমন (টিউবওয়েল), আক্তার হোসেন (বৈদ্যুতিক পাখা), শাহাদাত হোসেন খান (ক্রিকেট ব্যাট)।

৪ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৬ জন। কেন্দ্র দক্সিন কড়ৈতলী সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ১২১০ জন, এর মধ্যে পুরুষ ৬৩১ এবং নারী ৫৭৯ জন। প্রার্থীরা হলেন, আলমগীর হোসেন মিয়া (টিউবওয়েল), আব্দুল কাদের হেলাল (ঘুড়ি), মাইন উদ্দিন সর্দার (ফুটবল), মমিনুল ইসলাম (তালা), সালাউদ্দিন (মোরগ), বিল্লাল হোসেন( আপেল)।

৫ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৫ জন। ভোট কেন্দ্র সাহপুর সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৪৯২ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৩১৩ এবং নারী ১১৭৯ জন। প্রার্থীরা হলেন, এমরান হোসেন তালুকদার (ফুটবল), নেওয়ামত উল্ল্যাহ (আপেল), আব্দুর রাজ্জাক তালুকদার (মোরগ), রিয়াদ হোসেন (তালা), রবিউল শেখ (টিউবওয়েল)।

৬ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪ জন। ভোট কেন্দ্র ইছাপুর সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৮৭৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৪৮৩এবং নারী ১৩৯৫ জন। প্রার্থীরা হলেন, রুহুলামিন খান গাজী (আপেল), মোঃ বশির (মোরগ), আতিকুল ইসলাম (তালা), নুরুল ইসলাম (ফুটবল)।
৭ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৫ জন। ভোট কেন্দ্র গাজীপুর পূর্ব দায়চারা সরকারী প্রাথমী বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২১৫৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১০৯৮ এবং নারী ১০৬০ জন। প্রার্থীরা হলেন, আসাদুজ্জামান (টিউবওয়েল), মহিন উদ্দিন( ফুটবল), সলিমুল্লাহ পাটোয়ারী (মোরগ), মোঃ ইউছুফ আলী( আপেল), হাসান মাহমুদ( তালা)।

৮ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪ জন। ভোট কেন্দ্র দক্ষিন নদোনা সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ১৩৯২ জন, এর মধ্যে পুরুষ ৭১২ এবং নারী ৬৮০ জন। প্রার্থীরা হলেন, শাহিন শহীদ (ফুটবল), কামরুল হাসান( তালা), আব্বাস আলী পাটোয়ারী (মোরগ), কামাল হোসেন (ফুটবল)।

৯ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৬ জন। ভোট কেন্দ্র কবি রুপসা সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৩১১ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১১৮০এবং নারী ১১৩১ জন। প্রার্থীরা হলেন, মোঃ নুরে রহমান (আপেল), মোঃ সুজন(ফুটবল), মোঃ নেছার উদ্দিন(বৈদ্যুতিক পাখা), মাকসুদুর রহমান( তালা), মনির হোসেন(মোরগ), আবুল খালেক পাটোয়ারী (টিউবওয়েল)।
উক্ত ইউনিয়নে সংরক্ষিত ৩ টি ওয়ার্ডে মহিলা সাধারণ সদস্য পদে নির্বাচন করছেন ১২ জন।

১ ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করছেন ৫ জন। তারা হলেন, রাশিদা বেগম( মাইক), ফাহিমা বেগম (বই), শিখা রানী মজুমদার (কলম), জাহানারা বেগম (সূর্যমূখী ফুল), রীনা আক্তার (ক্যামরা) প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন ।

২ ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করছেন ৪ জন। তারা হলে, আয়েশা বেগম (হেলিকাপ্টার), মরিয়ম বেগম (মাইক), রানুবেগম (সূর্যমুখী ফুল), জাহানারাবেগম (বই) প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন ।

৩ ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করছেন ৩ জন। তারা হলেন, কুসুম আকতার (কলম), আমেনা আক্তার (মাইক), শাহানারা বেগম (বই) প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন ।

নির্বাচন অফিস ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে প্রতিটি কেন্দ্রে ১৭জন আনসার , অফিসারসহ ৬জন পুলিশ সার্বক্ষনিক মোতায়েন থাকবে। এছাড়া প্রতি ৩টি কেন্দ্রের জন্য একজন করে নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট এবং পুলিশের একজন ইন্সপেক্টরের নেতত্বে পুরো ইউনিয়নে ৫টি মোবাইল টিমে মোতায়েন থাকবে। এছাড়া বিজিবির দুই প্লাটুন এবং র‌্যাবের একটি টিম সার্বক্ষনিক টহল দিবে।

এব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহিদ হোসেন জানান, শান্তিপূর্ণ এবং অবাধ নির্বাচনের জন্য সবধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষও নির্বাচনে আইনশৃংখলা বিষয়টি তদারিক করছেন।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ইউপির রিটানিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী আবু বকর ছিদ্দিক বলেন, ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশন’র চাঁদপুর জেলা শাখার উদ্যোক্তা মিটআপ

রাত পোহালেই ফরিদগঞ্জ পাইকপাড়া দঃ ইউপির নির্বাচন

আপডেট সময় : ০১:১০:৪৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২

এস এম ইকবাল : রাত পোহালেই ২৮ নভেম্বর, সেমবার চাঁদপুর ফরিদগঞ্জে ১টি ইউপির নির্বাচন, ৮নং পাইকপাড়া দক্ষিন ইউপি’র চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই প্রথম বারের মতো ইউপি নির্বাচনে এই ইউনিয়নটিতে ৯টি ভোট কেন্দ্রে ২০ হাজার ৩শত ৩০জন ভোটার ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট প্রয়োগ করবেন।

Model Hospital

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের জন্য প্রস্তুতি রয়েছেন ৩৩২ জন আইন-শৃখলা বাহিনীর সদস্য। এছাড়াও মাঠে কাজ করবেন ৩ জন ম্যাজিষ্ট্রেট। মোবাইল টিম থাকবে প্রায় ৭ টির মত। যেকোন পরিস্থিতি মোকাবিলায় আরো রাখা হয়েছে স্ট্রাইকিং ফোর্স। যেকোন মূল্যে সুষ্ঠু ভোট গ্রহনের আশা প্রকাশ করেছেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটানিং কর্মকর্তা ও থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন।

ভোট গ্রণের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে মোট ৯টি কেন্দ্র। এই নির্বাচনকে ঘিরে র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশ এবং আনসার নিয়ে ৪স্তরের নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৭ ও সাধারণ সদস্য পদে ৫০ জন, সংরক্ষিত মহিলা সাধারণ সদস্য পদে ১২ জন প্রার্থী রয়েছেন। এসব প্রার্থীর মধ্যে ভোটারদের আকর্ষণ চেয়ারম্যান পদে ৭জন প্রার্থী। এদের মধ্যে আওয়ামীলীগের ৩জন, বিএনপির ৩জন এবং ইসলামী আন্দোলনের একজন প্রার্থী রয়েছেন।

এর হলেন, মোহাম্মদ হোসেন মিন্টু (নৌকা), সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবির কাজী (ঘোড়া), মোঃ ফারুক আহমেদ (টেলিফোন), হোসাইন আহমেদ রাজন শেখ( আনারস), রমজান আলী খান (চশমা), মোঃ হেলাল উদ্দিন (হাতপাখা), কাজী ইকবাল হোসেন পিন্টু (মটর সাইকেল)।

১ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৯ জন। কেন্দ্র গাজীপুর আহমদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা, ভোটর সংখ্যা ২৫২৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৩৬৪ এবং নারী ১১৬৪ জন। প্রার্থীরা হলেন, জসিমউদ্দিন (আপেল), শহীদুল্লাহ খান (টিউবওয়েল), ওহিদ উল্ল্যা (বৈদ্যুতিক পাখা), মোঃ আলমগীর (টর্চলাইট), মোঃ রাসেল (ভ্যান গাড়ি), ছাত্তার মুন্সী (ক্রিকেট ব্যাট), মিলন তপাদার (তালা), মাইন উদ্দিন পাটোয়ারী (ফুটবল), কামরুল হাসান (মোরগ)।

২ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪ জন। কেন্দ্র খুরুম খালী সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৬৩৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৩৮৮ এবং নারী ১২৫০ জন। প্রার্থীরা হলেন,, মোঃ সাদ্দাম হোসেন (তালা), মোঃ রানা মিয়া (আপেল), মোঃ মোস্তফা (মোরগ), মোঃ শরীফ হোসেন (ফুটবল)।

৩ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৭ জন। কেন্দ্র কড়ৈতলী উচ্চ বিদ্যালয় ও জুবলী সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৭২৩ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৪২৬ এবং নারী ১২৯৭ জন। প্রার্থীরা হলেন, মোঃ সেলিম (তালা), জাকির হোসেন মোল্লা (আপেল), মোঃ লোকমান হোসেন (ফুটবল), মোঃ আলী হায়দার পাটওয়ারী (মোরগ), মোঃ সুমন (টিউবওয়েল), আক্তার হোসেন (বৈদ্যুতিক পাখা), শাহাদাত হোসেন খান (ক্রিকেট ব্যাট)।

৪ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৬ জন। কেন্দ্র দক্সিন কড়ৈতলী সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ১২১০ জন, এর মধ্যে পুরুষ ৬৩১ এবং নারী ৫৭৯ জন। প্রার্থীরা হলেন, আলমগীর হোসেন মিয়া (টিউবওয়েল), আব্দুল কাদের হেলাল (ঘুড়ি), মাইন উদ্দিন সর্দার (ফুটবল), মমিনুল ইসলাম (তালা), সালাউদ্দিন (মোরগ), বিল্লাল হোসেন( আপেল)।

৫ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৫ জন। ভোট কেন্দ্র সাহপুর সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৪৯২ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৩১৩ এবং নারী ১১৭৯ জন। প্রার্থীরা হলেন, এমরান হোসেন তালুকদার (ফুটবল), নেওয়ামত উল্ল্যাহ (আপেল), আব্দুর রাজ্জাক তালুকদার (মোরগ), রিয়াদ হোসেন (তালা), রবিউল শেখ (টিউবওয়েল)।

৬ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪ জন। ভোট কেন্দ্র ইছাপুর সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৮৭৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১৪৮৩এবং নারী ১৩৯৫ জন। প্রার্থীরা হলেন, রুহুলামিন খান গাজী (আপেল), মোঃ বশির (মোরগ), আতিকুল ইসলাম (তালা), নুরুল ইসলাম (ফুটবল)।
৭ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৫ জন। ভোট কেন্দ্র গাজীপুর পূর্ব দায়চারা সরকারী প্রাথমী বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২১৫৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১০৯৮ এবং নারী ১০৬০ জন। প্রার্থীরা হলেন, আসাদুজ্জামান (টিউবওয়েল), মহিন উদ্দিন( ফুটবল), সলিমুল্লাহ পাটোয়ারী (মোরগ), মোঃ ইউছুফ আলী( আপেল), হাসান মাহমুদ( তালা)।

৮ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪ জন। ভোট কেন্দ্র দক্ষিন নদোনা সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ১৩৯২ জন, এর মধ্যে পুরুষ ৭১২ এবং নারী ৬৮০ জন। প্রার্থীরা হলেন, শাহিন শহীদ (ফুটবল), কামরুল হাসান( তালা), আব্বাস আলী পাটোয়ারী (মোরগ), কামাল হোসেন (ফুটবল)।

৯ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ৬ জন। ভোট কেন্দ্র কবি রুপসা সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, ভোটর সংখ্যা ২৩১১ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১১৮০এবং নারী ১১৩১ জন। প্রার্থীরা হলেন, মোঃ নুরে রহমান (আপেল), মোঃ সুজন(ফুটবল), মোঃ নেছার উদ্দিন(বৈদ্যুতিক পাখা), মাকসুদুর রহমান( তালা), মনির হোসেন(মোরগ), আবুল খালেক পাটোয়ারী (টিউবওয়েল)।
উক্ত ইউনিয়নে সংরক্ষিত ৩ টি ওয়ার্ডে মহিলা সাধারণ সদস্য পদে নির্বাচন করছেন ১২ জন।

১ ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করছেন ৫ জন। তারা হলেন, রাশিদা বেগম( মাইক), ফাহিমা বেগম (বই), শিখা রানী মজুমদার (কলম), জাহানারা বেগম (সূর্যমূখী ফুল), রীনা আক্তার (ক্যামরা) প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন ।

২ ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করছেন ৪ জন। তারা হলে, আয়েশা বেগম (হেলিকাপ্টার), মরিয়ম বেগম (মাইক), রানুবেগম (সূর্যমুখী ফুল), জাহানারাবেগম (বই) প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন ।

৩ ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করছেন ৩ জন। তারা হলেন, কুসুম আকতার (কলম), আমেনা আক্তার (মাইক), শাহানারা বেগম (বই) প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন ।

নির্বাচন অফিস ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে প্রতিটি কেন্দ্রে ১৭জন আনসার , অফিসারসহ ৬জন পুলিশ সার্বক্ষনিক মোতায়েন থাকবে। এছাড়া প্রতি ৩টি কেন্দ্রের জন্য একজন করে নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট এবং পুলিশের একজন ইন্সপেক্টরের নেতত্বে পুরো ইউনিয়নে ৫টি মোবাইল টিমে মোতায়েন থাকবে। এছাড়া বিজিবির দুই প্লাটুন এবং র‌্যাবের একটি টিম সার্বক্ষনিক টহল দিবে।

এব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহিদ হোসেন জানান, শান্তিপূর্ণ এবং অবাধ নির্বাচনের জন্য সবধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষও নির্বাচনে আইনশৃংখলা বিষয়টি তদারিক করছেন।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ইউপির রিটানিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী আবু বকর ছিদ্দিক বলেন, ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।