ঢাকা ০৭:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভড়ঙ্গারচরে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ত্রাণমন্ত্রণালয়ের অনুদান

  • সজীব খান
  • আপডেট সময় : ০৩:০৭:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৩
  • 153

চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নে ভড়ঙ্গারচর গ্রামে অগ্নিকান্ডে পুড়ে যাওয়া স্থান পরির্দশন করে অসহায় জোসনা বেগমকে দুর্যোগ ও ত্রাণমন্ত্রণালয়ের বরাদ্ধকৃত অর্থ থেকে ৬ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হয়েছে।

Model Hospital

সোমবার সরজমিনে গিয়ে ঘঁনাস্থল পরিদর্শন করে নগদ অনুদান ও ২০ কেজি চাল ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে প্রদান করেন তিনি।

এ সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের খোঁজ খবর নেন এবং শান্তনা দিয়ে সর্তক হয়ে জীবন যাপন করার পরামর্শ প্রদান করেন।

এ সময় চাঁদপুর সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার রফিকুল ইসরাম উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় রফিকুল ইসলাম বলেন ত্রাণমন্ত্রণালয় থেকে তাদের অনুদান প্রদান করা হয়েছে। ঘরের নির্মানের জন্য টিন দেওয়া হবে, অনুমোদ আসলেই সাথে সাথেই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে টিন দেওয়া হবে।

তিনি জানান, যে কোন দুর্যোগে ত্রাণমন্ত্রাণালয় মানুষের পাশে থেকে সেবা দিচ্ছে। সরকার দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার জন্য ত্রাণমন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা প্রদান করেছে, সরকারের নির্দেশনা আমরা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি।

উল্লেখ্য ১৫ এপ্রিল মাগরিবের নামাজের পর এ ঘটনা ঘটে । ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ঘর মালামালসহ পুড়ে গেছে পুরো ঘর ক্ষতি হয়েছে। এতে তাদের নগদ ২ লাখ টাকাসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

স্থানীয়রা অগ্নিকন্ড নিয়ন্ত্রনে আনতে না পারায় চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে ততক্ষনে ঘরে থাকা বাড়ির দলিল, টাকা পয়সা, জামা কাপড়সহ সকল কিছু পুড়ে ছাই হয়।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সুমন

ভড়ঙ্গারচরে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ত্রাণমন্ত্রণালয়ের অনুদান

আপডেট সময় : ০৩:০৭:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৩

চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নে ভড়ঙ্গারচর গ্রামে অগ্নিকান্ডে পুড়ে যাওয়া স্থান পরির্দশন করে অসহায় জোসনা বেগমকে দুর্যোগ ও ত্রাণমন্ত্রণালয়ের বরাদ্ধকৃত অর্থ থেকে ৬ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হয়েছে।

Model Hospital

সোমবার সরজমিনে গিয়ে ঘঁনাস্থল পরিদর্শন করে নগদ অনুদান ও ২০ কেজি চাল ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে প্রদান করেন তিনি।

এ সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের খোঁজ খবর নেন এবং শান্তনা দিয়ে সর্তক হয়ে জীবন যাপন করার পরামর্শ প্রদান করেন।

এ সময় চাঁদপুর সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার রফিকুল ইসরাম উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় রফিকুল ইসলাম বলেন ত্রাণমন্ত্রণালয় থেকে তাদের অনুদান প্রদান করা হয়েছে। ঘরের নির্মানের জন্য টিন দেওয়া হবে, অনুমোদ আসলেই সাথে সাথেই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে টিন দেওয়া হবে।

তিনি জানান, যে কোন দুর্যোগে ত্রাণমন্ত্রাণালয় মানুষের পাশে থেকে সেবা দিচ্ছে। সরকার দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার জন্য ত্রাণমন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা প্রদান করেছে, সরকারের নির্দেশনা আমরা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি।

উল্লেখ্য ১৫ এপ্রিল মাগরিবের নামাজের পর এ ঘটনা ঘটে । ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ঘর মালামালসহ পুড়ে গেছে পুরো ঘর ক্ষতি হয়েছে। এতে তাদের নগদ ২ লাখ টাকাসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

স্থানীয়রা অগ্নিকন্ড নিয়ন্ত্রনে আনতে না পারায় চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে ততক্ষনে ঘরে থাকা বাড়ির দলিল, টাকা পয়সা, জামা কাপড়সহ সকল কিছু পুড়ে ছাই হয়।