ঢাকা ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওসি কামরুজ্জামানের সৃজনশীলতায় বদলেছে চাঁদপুর নৌ থানার চিত্র

ইন্সপেক্টর (ওসি) মো.কামরুজ্জামানের সৃজনশীলতায় বদলে গেছে চাঁদপুর নৌ সদর থানা’র চিত্র। পুলিশের আচরণ যেমন পাল্টেছে, তেমন থানার চিত্রও বদলেছে। এতে আগের তুলনায় থানায় সেবার মানও বেড়েছে।
ব্যক্তি হিসেবেও চাঁদপুর নৌ সদর থানা’র ওসি কামরুজ্জামান সদালাপী ও মিষ্টভাষী। তার আচরণ ও কাজকর্মে আধুনিক পুলিশের ছোঁয়া দেখা যায়। সহকর্মীরাও তার আচরণে সন্তুষ্ট। তিনি এই থানায় যোগদানের পর থেকেই মানবিক ও জনবান্ধব পুলিশ তবে যে কোন মানবিক কাজের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে
ওসি মো.কামরুজ্জামান কখনো ভুলে যায় নাই তার পেশাগত দায়িত্বের কথা। যেকোনো অপরাধ দমন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা ও সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে সর্বদা তিনি সজাগ আছেন। থানায় আসলে তিনি সব সময় অসহায় মানুষদের নিয়ে তার পাশে বসিয়ে এক কাপ চা হলেও অন্তত খেয়ে আসতে হয়। তিনি আসলেই একজন মানবিক অফিসার ইন্সপেক্টর (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান। মা ইলিশ ও জাটকা নিধন অভিযান বিচক্ষণতার কারণে সফল করেছে, বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার, ঘূর্ণিঝড় মোখা প্রতিরোধে কঠোর ভূমিকা পালন করেন, ঈদুল ফিতরে যাত্রীদের নিরাপদে যেতে পারে সেই লক্ষ্যে পুলিশ ভূমিকা ছিল প্রশংসনীয়, বর্তমানে লঞ্চ টার্মিনালে ২৪ ঘন্টা পুলিশের ডিউটি চলে যেন যাত্রীদের কোন সমস্যা না হয় সেই দিকে দৃষ্টি রাখে। পুরো লঞ্চঘাট এলাকা সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রনে রেখেছে।
চাঁদপুর নৌ থানা’র ওসি মো.কামরুজ্জামান বলেন, কোনো চাওয়া-পাওয়ার জন্য নয়, পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি ভালো লাগার জায়গা থেকে মানবিক ও জনবান্ধব পুলিশ হিসেবে জনগণের পাশে দাঁড়াতে সর্বদা কাজ করে যাচ্ছি। মানবিক দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি যে কোনো অপরাধ দমন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা ও সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে সর্বদা আমি সজাগ আছি। একজন পুলিশের কাছে সেটাও সম্ভব একজন অপরাধীকে ঘৃণার দৃষ্টিতে না দেখে আইনের মাধ্যমে তাকে ভালোবাসার দৃষ্টিতে দেখে আলোর পথে নিয়ে আসা। আমরা চেষ্টা করতে পারি তাকে ভালো করার সুযোগ দেয়ার। আপনারা আমাদের সাহায্য করুন আমরা সত্যিই মানুষের স্বপ্নের পুলিশ হতে চাই।
তিনি আরও বলেন আইনের সেবক হয়ে জনতার সারিতে থেকে সাধারণ মানুষের সেবা করে যাবো, প্রতিটি মানুষ আমাকে খুব কাছ থেকে পাবে এবং তাদের সমস্যার কথা গুলি বলতে পারবে। তিনি দৃঢ়ভাবে বলেন চাঁদপুরের
সুযোগ্য নৌ- পুলিশ সুপার মহোদয়ের দিকনির্দেশনায় নিজ কর্মস্থলে সম্পূর্ণ পেশাদারিত্বের সহিত দায়িত্ব পালনে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।
চাঁদপুর নৌ থানা’র ওসি মো.কামরুজ্জামান সদা হাস্যোজ্জল প্রশাসনিক দক্ষতাসম্পন্ন চৌকশ একজন অফিসার, তিনি দক্ষতা দিয়ে প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডকে যেমনি সচল রেখেছেন তেমনি আন্তরিকতা দিয়ে সহকর্মীদের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। তিনি একজন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন ও বিচক্ষণ অফিসার। কাজের প্রতি নিষ্ঠা ও দায়িত্ববোধের কারণে তিনি সকলের নিকট প্রশংসিত।
উল্লেখ্য: মো.কামরুজ্জামান ২০২২ সালের ৮ মার্চ চাঁদপুর নৌ থানা’র ওসি হিসেবে যোগদান করেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

গরু জবাই করার সময় হার্ট অ্যাটাকে মৃ’ত্যু

ওসি কামরুজ্জামানের সৃজনশীলতায় বদলেছে চাঁদপুর নৌ থানার চিত্র

আপডেট সময় : ০৭:২৩:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ জুন ২০২৩
ইন্সপেক্টর (ওসি) মো.কামরুজ্জামানের সৃজনশীলতায় বদলে গেছে চাঁদপুর নৌ সদর থানা’র চিত্র। পুলিশের আচরণ যেমন পাল্টেছে, তেমন থানার চিত্রও বদলেছে। এতে আগের তুলনায় থানায় সেবার মানও বেড়েছে।
ব্যক্তি হিসেবেও চাঁদপুর নৌ সদর থানা’র ওসি কামরুজ্জামান সদালাপী ও মিষ্টভাষী। তার আচরণ ও কাজকর্মে আধুনিক পুলিশের ছোঁয়া দেখা যায়। সহকর্মীরাও তার আচরণে সন্তুষ্ট। তিনি এই থানায় যোগদানের পর থেকেই মানবিক ও জনবান্ধব পুলিশ তবে যে কোন মানবিক কাজের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে
ওসি মো.কামরুজ্জামান কখনো ভুলে যায় নাই তার পেশাগত দায়িত্বের কথা। যেকোনো অপরাধ দমন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা ও সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে সর্বদা তিনি সজাগ আছেন। থানায় আসলে তিনি সব সময় অসহায় মানুষদের নিয়ে তার পাশে বসিয়ে এক কাপ চা হলেও অন্তত খেয়ে আসতে হয়। তিনি আসলেই একজন মানবিক অফিসার ইন্সপেক্টর (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান। মা ইলিশ ও জাটকা নিধন অভিযান বিচক্ষণতার কারণে সফল করেছে, বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার, ঘূর্ণিঝড় মোখা প্রতিরোধে কঠোর ভূমিকা পালন করেন, ঈদুল ফিতরে যাত্রীদের নিরাপদে যেতে পারে সেই লক্ষ্যে পুলিশ ভূমিকা ছিল প্রশংসনীয়, বর্তমানে লঞ্চ টার্মিনালে ২৪ ঘন্টা পুলিশের ডিউটি চলে যেন যাত্রীদের কোন সমস্যা না হয় সেই দিকে দৃষ্টি রাখে। পুরো লঞ্চঘাট এলাকা সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রনে রেখেছে।
চাঁদপুর নৌ থানা’র ওসি মো.কামরুজ্জামান বলেন, কোনো চাওয়া-পাওয়ার জন্য নয়, পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি ভালো লাগার জায়গা থেকে মানবিক ও জনবান্ধব পুলিশ হিসেবে জনগণের পাশে দাঁড়াতে সর্বদা কাজ করে যাচ্ছি। মানবিক দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি যে কোনো অপরাধ দমন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা ও সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে সর্বদা আমি সজাগ আছি। একজন পুলিশের কাছে সেটাও সম্ভব একজন অপরাধীকে ঘৃণার দৃষ্টিতে না দেখে আইনের মাধ্যমে তাকে ভালোবাসার দৃষ্টিতে দেখে আলোর পথে নিয়ে আসা। আমরা চেষ্টা করতে পারি তাকে ভালো করার সুযোগ দেয়ার। আপনারা আমাদের সাহায্য করুন আমরা সত্যিই মানুষের স্বপ্নের পুলিশ হতে চাই।
তিনি আরও বলেন আইনের সেবক হয়ে জনতার সারিতে থেকে সাধারণ মানুষের সেবা করে যাবো, প্রতিটি মানুষ আমাকে খুব কাছ থেকে পাবে এবং তাদের সমস্যার কথা গুলি বলতে পারবে। তিনি দৃঢ়ভাবে বলেন চাঁদপুরের
সুযোগ্য নৌ- পুলিশ সুপার মহোদয়ের দিকনির্দেশনায় নিজ কর্মস্থলে সম্পূর্ণ পেশাদারিত্বের সহিত দায়িত্ব পালনে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।
চাঁদপুর নৌ থানা’র ওসি মো.কামরুজ্জামান সদা হাস্যোজ্জল প্রশাসনিক দক্ষতাসম্পন্ন চৌকশ একজন অফিসার, তিনি দক্ষতা দিয়ে প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডকে যেমনি সচল রেখেছেন তেমনি আন্তরিকতা দিয়ে সহকর্মীদের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। তিনি একজন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন ও বিচক্ষণ অফিসার। কাজের প্রতি নিষ্ঠা ও দায়িত্ববোধের কারণে তিনি সকলের নিকট প্রশংসিত।
উল্লেখ্য: মো.কামরুজ্জামান ২০২২ সালের ৮ মার্চ চাঁদপুর নৌ থানা’র ওসি হিসেবে যোগদান করেন।