ঢাকা ১২:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মতলব সারা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ ও সমাজসেবকদের সম্মাননা প্রদান

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তর উপজেলার সমাজসেবামূলক ও মানবিক সেবামূলক সংগঠন সারা ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

Model Hospital

রোববার দুপুরে গজরা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পাঁচ শতাধিক অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল প্রদান করা হয়। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ ও সমাজসেবকদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয় সংগঠনের পক্ষ থেকে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গজরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব হানিফ দর্জি। সারা ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আমির হোসেন প্রধান (রাসেল) এর সভাপত্বি ও ওটারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কবি সাইদ আশিকের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, গজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানা উল্লাহ মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক ওহেদুজ্জামান সরকার ওয়াদুদ, গজরা ইউনিয়ন পরিষদ সচিব মহিউদ্দিন আহমেদ সোহেল, প্যানেল চেয়ারম্যান-২ শহিদ উল্লাহ, আলী আকবর মাস্টার, গজরা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি টিপু মুন্সি, ইউপি সদস্য জাহিদ হোসেন, নুরুল ইসলাম নুরু প্রমুখ। এছাড়াও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সারা ফাউন্ডেশনের সকল সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলহাজ্ব হানিফ দর্জি বলেন, সব মানুষের ধন থাকলেই সমাজসেবা করার মন থাকে না। আবার অনেকের ধন নেই তাদেরও সমাজসেবা করার মন থাকে। তারই একটি প্রমাণ আমির হোসেন রাসেল। তিনি সারা ফাউন্ডেশন সংগঠনের নামে সমাজসেবা করে যাচ্ছেন ও অসহায় মানুষের পাশে দাড়াঁচ্ছেন। তাই আমি তাকে বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানাই। তিনি আরও বলেন, এধরনের সমাজসেবায় আমাদের সকলের এগিয়ে আসা উচিৎ। যার যার জায়গা থেকে সাধ্য অনুযায়ী সহায়তা করলে আমাদের সমাজ আরও উন্নত হবে। তাই আসুন কেউ কারো সমালোচনা না করে সবাই হাতে হাত রেখে সমাজসেবায় ঝাঁপিয়ে পড়ি। তাহলেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে স্বপ্ন উন্নত ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া তা দ্রুত বাস্তবায়ন হবে।

হানিফ দর্জি বলেন, আমি দীর্ঘ ৫ টি বছর আপনাদের সেবা করেছি। চেষ্টা করেছি সবাইকে সেবা দেওয়ার। আমি যদি কাউকে উপকার করতে নাও পেরেছি, কিন্তু কাউকে কোন ক্ষতি করিনি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন। আমি আছি আগামীতেও গজরা ইউনিয়নবাসীর পাশে থাকবো। নতুন যিনি চেয়ারম্যান হয়েছেন শহীদ উল্লা স্যার সবাই তাকে সহযোগীতা করবেন, তাহলেই সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় গজরাকে একটি আধুনিক ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব হবে।

উল্লেখ্য, গজরা ইউনিয়নের ডুবগী গ্রামের কৃতি সন্তান মোহাম্মদ আমির হোসেন প্রধান (রাসেল) ২০১৬ সালে সারা ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। উক্ত ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে গরীব দুঃখী ও অসহায় মানুষকে বিভিন্নভাবে সহায়তা প্রদান করে আসছেন।

গত ৫ বছরে তিনি ১০ লাখ টাকারও বেশি সমাজসেবায় ব্যয় করেছেন। প্রতিবন্ধী শিশুদের হুইল চেয়ার, শীর্তাদের মাঝে কম্বল, অসহায় নারীকে সেলাই মেশিন, অসহায় মানুষকে চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা ও করোনা মহামারীতে অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং ত্রাণ সহায়তা সহ নানান ভাবে মানুষকে সহযোগীতা করে আসছে সংগঠনটি।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তির কৃতি সন্তান মাসুদ আলম যশোরের নতুন এসপি 

মতলব সারা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ ও সমাজসেবকদের সম্মাননা প্রদান

আপডেট সময় : ০১:৫২:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২১

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তর উপজেলার সমাজসেবামূলক ও মানবিক সেবামূলক সংগঠন সারা ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

Model Hospital

রোববার দুপুরে গজরা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পাঁচ শতাধিক অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল প্রদান করা হয়। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ ও সমাজসেবকদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয় সংগঠনের পক্ষ থেকে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গজরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব হানিফ দর্জি। সারা ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আমির হোসেন প্রধান (রাসেল) এর সভাপত্বি ও ওটারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কবি সাইদ আশিকের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, গজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানা উল্লাহ মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক ওহেদুজ্জামান সরকার ওয়াদুদ, গজরা ইউনিয়ন পরিষদ সচিব মহিউদ্দিন আহমেদ সোহেল, প্যানেল চেয়ারম্যান-২ শহিদ উল্লাহ, আলী আকবর মাস্টার, গজরা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি টিপু মুন্সি, ইউপি সদস্য জাহিদ হোসেন, নুরুল ইসলাম নুরু প্রমুখ। এছাড়াও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সারা ফাউন্ডেশনের সকল সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলহাজ্ব হানিফ দর্জি বলেন, সব মানুষের ধন থাকলেই সমাজসেবা করার মন থাকে না। আবার অনেকের ধন নেই তাদেরও সমাজসেবা করার মন থাকে। তারই একটি প্রমাণ আমির হোসেন রাসেল। তিনি সারা ফাউন্ডেশন সংগঠনের নামে সমাজসেবা করে যাচ্ছেন ও অসহায় মানুষের পাশে দাড়াঁচ্ছেন। তাই আমি তাকে বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানাই। তিনি আরও বলেন, এধরনের সমাজসেবায় আমাদের সকলের এগিয়ে আসা উচিৎ। যার যার জায়গা থেকে সাধ্য অনুযায়ী সহায়তা করলে আমাদের সমাজ আরও উন্নত হবে। তাই আসুন কেউ কারো সমালোচনা না করে সবাই হাতে হাত রেখে সমাজসেবায় ঝাঁপিয়ে পড়ি। তাহলেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে স্বপ্ন উন্নত ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া তা দ্রুত বাস্তবায়ন হবে।

হানিফ দর্জি বলেন, আমি দীর্ঘ ৫ টি বছর আপনাদের সেবা করেছি। চেষ্টা করেছি সবাইকে সেবা দেওয়ার। আমি যদি কাউকে উপকার করতে নাও পেরেছি, কিন্তু কাউকে কোন ক্ষতি করিনি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন। আমি আছি আগামীতেও গজরা ইউনিয়নবাসীর পাশে থাকবো। নতুন যিনি চেয়ারম্যান হয়েছেন শহীদ উল্লা স্যার সবাই তাকে সহযোগীতা করবেন, তাহলেই সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় গজরাকে একটি আধুনিক ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব হবে।

উল্লেখ্য, গজরা ইউনিয়নের ডুবগী গ্রামের কৃতি সন্তান মোহাম্মদ আমির হোসেন প্রধান (রাসেল) ২০১৬ সালে সারা ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। উক্ত ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে গরীব দুঃখী ও অসহায় মানুষকে বিভিন্নভাবে সহায়তা প্রদান করে আসছেন।

গত ৫ বছরে তিনি ১০ লাখ টাকারও বেশি সমাজসেবায় ব্যয় করেছেন। প্রতিবন্ধী শিশুদের হুইল চেয়ার, শীর্তাদের মাঝে কম্বল, অসহায় নারীকে সেলাই মেশিন, অসহায় মানুষকে চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা ও করোনা মহামারীতে অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং ত্রাণ সহায়তা সহ নানান ভাবে মানুষকে সহযোগীতা করে আসছে সংগঠনটি।