ঢাকা ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
কারা বন্দিদের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মাদকবিরোধী আলোচনা সভা

একজন মাদক সেবীর কারনে পুরো পরিবার ধ্বংসের দিকে ধাবিত হয় : জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান

চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কামরুল হাসান বলেছেন, কোন ব্যক্তিই একাকী নন, তার সাথে পুরো পরিবার থাকে। যদি কেই মাদক সেবন বা ব্যবসা করে তাহলে তার প্রভাব পড়ে পুরো পরিবারের উপর। একজন মাদক সেবীর কারনে পুরো পরিবার ধ্বংসের দিকে ধাবিত হয়।

Model Hospital

১২ ফেব্রুয়ারি সোমবার জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও চাঁদপুর জেলা কারাগারের উদ্যোগে কারাগার অভ্যন্তরে জেলখানায় কারা বন্দিদের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মাদকবিরোধী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন।

তিনি মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্তদের উদ্দেশ্যে বলেন, আজ আপনার কারনে আপনার বাবা, মা, ভাই, বোন, স্ত্রী, সন্তান পরিজন কষ্ট পাচ্ছে। তারা সমাজে মাথা উচু করে দাড়াতে পারছে না। আবার একজন সাজাপ্রাপ্ত মাদক মামলার আসামীর কারনে তার সন্তানরা নানারকম অভাবে পড়ে পরিপূর্ণভাবে বিকশিত হতে পারছে না। তাই পরিবার ও দেশের কথা চিন্তা করে মাদক সেবন ও মাদক ব্যবসা থেকে দূরে থাকতে হবে। সুস্থ স্বাভাবিক মানুষ হিসেবে সমাজে ভূমিকা রাখতে হবে।

জেলা প্রশাসক বলেন, সমাজ থেকে মাদকাসক্তি দূর করতে পরিবারের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিটি পরিবারের সচেতনতা, ভালবাসা, দৃঢ় অঙ্গীকার ও সক্রিয় ভূমিকা মাদকাসক্তি নামক বিভীষিকাকে কঠোরভাবে প্রতিরোধ করবে। একই সাথে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা দরকার এবং প্রত্যেক পরিবার, সমাজ এবং সরকারকে একাজে এগিয়ে আসতে হবে।

চাঁদপুরে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এ এস এম মোসার সভাপতিত্বে ও ডেপুটি জেলার আবু ইউসুফ এর পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম, সিভিল সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ সাহাদাৎ হোসেন, চাঁদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, জেল সুপার মোহাম্মদ ফোরকান ওয়াহিদ, জেলার মুহাম্মদ মুনীর হোসাইন।

আলোচনা সভায় চাঁদপুর জেলা কারাগারে মাদক মামলায় আটক বন্দিরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

রমজানের আগেই ‘দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ কমিশন’ দাবি নতুনধারার

কারা বন্দিদের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মাদকবিরোধী আলোচনা সভা

একজন মাদক সেবীর কারনে পুরো পরিবার ধ্বংসের দিকে ধাবিত হয় : জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান

আপডেট সময় : ০৭:০৬:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কামরুল হাসান বলেছেন, কোন ব্যক্তিই একাকী নন, তার সাথে পুরো পরিবার থাকে। যদি কেই মাদক সেবন বা ব্যবসা করে তাহলে তার প্রভাব পড়ে পুরো পরিবারের উপর। একজন মাদক সেবীর কারনে পুরো পরিবার ধ্বংসের দিকে ধাবিত হয়।

Model Hospital

১২ ফেব্রুয়ারি সোমবার জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও চাঁদপুর জেলা কারাগারের উদ্যোগে কারাগার অভ্যন্তরে জেলখানায় কারা বন্দিদের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মাদকবিরোধী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন।

তিনি মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্তদের উদ্দেশ্যে বলেন, আজ আপনার কারনে আপনার বাবা, মা, ভাই, বোন, স্ত্রী, সন্তান পরিজন কষ্ট পাচ্ছে। তারা সমাজে মাথা উচু করে দাড়াতে পারছে না। আবার একজন সাজাপ্রাপ্ত মাদক মামলার আসামীর কারনে তার সন্তানরা নানারকম অভাবে পড়ে পরিপূর্ণভাবে বিকশিত হতে পারছে না। তাই পরিবার ও দেশের কথা চিন্তা করে মাদক সেবন ও মাদক ব্যবসা থেকে দূরে থাকতে হবে। সুস্থ স্বাভাবিক মানুষ হিসেবে সমাজে ভূমিকা রাখতে হবে।

জেলা প্রশাসক বলেন, সমাজ থেকে মাদকাসক্তি দূর করতে পরিবারের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিটি পরিবারের সচেতনতা, ভালবাসা, দৃঢ় অঙ্গীকার ও সক্রিয় ভূমিকা মাদকাসক্তি নামক বিভীষিকাকে কঠোরভাবে প্রতিরোধ করবে। একই সাথে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা দরকার এবং প্রত্যেক পরিবার, সমাজ এবং সরকারকে একাজে এগিয়ে আসতে হবে।

চাঁদপুরে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এ এস এম মোসার সভাপতিত্বে ও ডেপুটি জেলার আবু ইউসুফ এর পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম, সিভিল সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ সাহাদাৎ হোসেন, চাঁদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, জেল সুপার মোহাম্মদ ফোরকান ওয়াহিদ, জেলার মুহাম্মদ মুনীর হোসাইন।

আলোচনা সভায় চাঁদপুর জেলা কারাগারে মাদক মামলায় আটক বন্দিরা উপস্থিত ছিলেন।