ঢাকা ০২:১৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় তিন ছাগল চোরকে আটক

মো. রাছেল : কচুয়া উপজেলার জগতপুর গ্রামে তিন ছাগল চোরকে জনতা আটক করে থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ্দ করেছে। শনিবার বিকালে আশ্রাফপুর ইউনিয়নের জগতপুর বড় ভবানিপুর রাস্তার উপর থেকে তাদের আটক করেন। আটককৃত চোর চক্রের সদস্যরা হচ্ছেন- জগতপুর ষোল পুকুরিয়া পাড়ার আনিসুর রহমানের পুত্র আফজল হোসেন (২১), একই পাড়ার হাসানুর জ্জামানের পুত্র নরুল ইসলাম (২০) ও শাহরাস্তি উপজেলার বোগরা গ্রামের তালুকদার বাড়ির ইসরাফিল হোসেনের পুত্র জহিরুল ইসলাম (২১)। এব্যাপারে ছাগলের মালিক কচুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

Model Hospital

ছাগলের মালিক জগতপুর মুন্সী বাড়ীর মৌলভী নজরুল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার মধ্যেরাতে যেকোন সময় নরুল ইসলাম মুন্সীর বাড়ীর কাছারিতে বেধে রাখা ৩টি ছাগল চুরি করেন চোর চক্র। ষোল পুকুরিয়া গ্রামের দেলেয়ার হোসেন মাষ্টার ভোরে ফজরের নামাজ পড়ার প্রস্তুতি নেওয়া কালীন বাড়ির পাশে রাস্তার উপর ২টি ছাগল সহ ২জন যুবক দেখতে পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে জিজ্ঞাসা বাদে সন্দেহ হয়ে পড়ার অন্যান্য লোকজনদের ঘটনা স্থলে ডেকে নিয়ে আনে। ঘটনাস্থলে ছুটে আসা লোকজনরা তাদেরকে আটক করে ফেলেন।

তিনি আরো বলেন- আমার প্রায় ৮টি ছাগল চোর চক্র নিয়ে যায়। তার মধ্যে তিনটি ছাগল ফিরত পাই। আমার প্রায় ৬০ হাজার টাকার মত ক্ষতিসাধন হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

জিজ্ঞাসা বাদে আটককৃত চোররা চুরির কথা স্বীকার জানান- চুরি করা তিনটি ছাগলের মধ্যে একটি ছাগল শাহরাস্তির উপজেলার বোগরা গ্রামের জহিরুলের নিকট ৮ হাজার টাকা বিক্রি করেন। লোকজন কৌশলে ছাগল সহ জহিরুলকে জগতপুর বাজারে নিয়ে এসে পুলিশকে খবর দিলে ৩জনকে পুলিশের সোপর্দ করে।

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ মো. মহিউদ্দিন ঘটনার সত্যাতা স্বীকার করে জানায়, এ বিষয়ে কচুয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তিতে নিজের পায়ুপথে ৬ ইঞ্চি ডাব প্রবেশ করিয়ে বিপাকে যুবক

কচুয়ায় তিন ছাগল চোরকে আটক

আপডেট সময় : ০১:৩৮:০৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২২

মো. রাছেল : কচুয়া উপজেলার জগতপুর গ্রামে তিন ছাগল চোরকে জনতা আটক করে থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ্দ করেছে। শনিবার বিকালে আশ্রাফপুর ইউনিয়নের জগতপুর বড় ভবানিপুর রাস্তার উপর থেকে তাদের আটক করেন। আটককৃত চোর চক্রের সদস্যরা হচ্ছেন- জগতপুর ষোল পুকুরিয়া পাড়ার আনিসুর রহমানের পুত্র আফজল হোসেন (২১), একই পাড়ার হাসানুর জ্জামানের পুত্র নরুল ইসলাম (২০) ও শাহরাস্তি উপজেলার বোগরা গ্রামের তালুকদার বাড়ির ইসরাফিল হোসেনের পুত্র জহিরুল ইসলাম (২১)। এব্যাপারে ছাগলের মালিক কচুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

Model Hospital

ছাগলের মালিক জগতপুর মুন্সী বাড়ীর মৌলভী নজরুল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার মধ্যেরাতে যেকোন সময় নরুল ইসলাম মুন্সীর বাড়ীর কাছারিতে বেধে রাখা ৩টি ছাগল চুরি করেন চোর চক্র। ষোল পুকুরিয়া গ্রামের দেলেয়ার হোসেন মাষ্টার ভোরে ফজরের নামাজ পড়ার প্রস্তুতি নেওয়া কালীন বাড়ির পাশে রাস্তার উপর ২টি ছাগল সহ ২জন যুবক দেখতে পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে জিজ্ঞাসা বাদে সন্দেহ হয়ে পড়ার অন্যান্য লোকজনদের ঘটনা স্থলে ডেকে নিয়ে আনে। ঘটনাস্থলে ছুটে আসা লোকজনরা তাদেরকে আটক করে ফেলেন।

তিনি আরো বলেন- আমার প্রায় ৮টি ছাগল চোর চক্র নিয়ে যায়। তার মধ্যে তিনটি ছাগল ফিরত পাই। আমার প্রায় ৬০ হাজার টাকার মত ক্ষতিসাধন হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

জিজ্ঞাসা বাদে আটককৃত চোররা চুরির কথা স্বীকার জানান- চুরি করা তিনটি ছাগলের মধ্যে একটি ছাগল শাহরাস্তির উপজেলার বোগরা গ্রামের জহিরুলের নিকট ৮ হাজার টাকা বিক্রি করেন। লোকজন কৌশলে ছাগল সহ জহিরুলকে জগতপুর বাজারে নিয়ে এসে পুলিশকে খবর দিলে ৩জনকে পুলিশের সোপর্দ করে।

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ মো. মহিউদ্দিন ঘটনার সত্যাতা স্বীকার করে জানায়, এ বিষয়ে কচুয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।