ঢাকা ১২:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে মদিনা শপিং সেন্টারের ফের দোকান দখলের চেষ্টা, দোকান মালিকের উপর হামলা

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরে মদিনা শপিং সেন্টারে প্রবেশমুখে একটি দোকান দখলের ঘটনার প্রতিবাদ করায় দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগমের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দুপুরে শহরের প্রাণকেন্দ্রে কালীবাড়ি মন্দিরের সামনে মদিনা শপিং সেন্টারের প্রবেশ মুখে একটি দোকান দখল নিয়ে দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগমকে অতর্কিত ভাবে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনা ঘটেছে।প্রতিপক্ষ আবুল হাসান লিটন দোকান মালিক রহিমা বেগমের জামা কাপড় ছিড়ে ফেলে শ্রীলতাহানি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

Model Hospital

রক্তাক্ত জখম অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা করায়। এ ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানায় তিন জনকে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

একজন অবলা অসহায় নারী ও দোকান মালিক রহিমা বেগমের উপর অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা ও শ্রীলতাহানি ঘটনা খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানার সহকারী পরিদর্শক শহীদুল্লাহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করেন। এছাড়া এই দোকান দখল করার চেষ্টায় চাঁদপুর আদালতের নিষেধাজ্ঞা মামলা করেছেন দোকান মালিক রহিমা বেগম।

আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে প্রতিপক্ষ আবুল হাসান লিটন পেশী শক্তি ব্যবহার করে রোটারিয়ান রহিমা বেগমের মালিকানাধীন দোকানটি রাতের আধারে দখল করার পাঁয়তারা করছে।

জানা যায়, ৯৩ নং চাঁদপুর মিউনিসিপ্যালিটি মৌজার নির্মাণাধীন মদিনা শপিং সেন্টারে প্রবেশমুখে ৫০ পয়েন্ট ৫৮ সেন্টিমিটার একটি দোকান ২০১৮ সালে ২ ডিসেম্বর স্বর্ণখোলা রোডের মৃত সাদীর মিয়ার মেয়ে রোটারিয়ান রহিমা বেগম ৩০ লক্ষ টাকা মূল্য দিয়ে মফিজ উদ্দিন সরকারের কাছ থেকে দোকানটি ক্রয় করে।

কিন্তু সেই দোকানটি গুয়াখোলা রোডের মৃত হোসেন মিয়ার ছেলে আবুল হাসান লিটনের নজর পড়ে।
একজন নিরীহ মহিলার অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে আবুল হাসান লিটন জোরপূর্বক সেই দোকানটি দখল করার চেষ্টা করেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদ করলে দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগম উপর দুই দফা অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে আহত করে।
আহত রহিমা বেগম বাদী হয়ে চাঁদপুর মডেল থানায় আবুল হাসান লিটন ও তার স্ত্রী রুমা আক্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।
দোকান মালিক রহিমা বেগম জানান, ২০১৮ সালে দোকানটি ক্রয় করার পর সেটি দখল নিতে আবুল হাসান লিটন চেষ্টা চালায়। রাতের আধারে দলবল নিয়ে দোকানটি দখল করার চেষ্টা করলে বাধা দিলে লিটন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে প্রথম দফায় হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন।

তাতেও ক্ষেন্ত না হয়ে শনিবার দুপুরে পুনরায় বহিরাগত সন্ত্রাসীদের এনে দোকানটি দখল করার চেষ্টা করে। এ সময় বাধা দিলে সে দ্বিতীয় দফা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আবারও একই কায়দায় হামলা চালিয়ে আহত করে। এম এ হাসান লিটন জামাকাপড় ছিড়ে শ্রীলতাহানি করে ও গলা থেকে স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

সে পেশী শক্তি ব্যবহার করে অন্যের দোকান দখল করার চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় আদালতের শরণাপন্ন হয়ে নিষেধাজ্ঞা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আবুল হাসান লিটন সরকারী জায়গা দখল সহ হিন্দুদের সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল করার অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
এখন আমরা পুরো পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। ভূমিদস্যুর হাত থেকে রক্ষা করে দোকানটি বুঝিয়ে দেওয়ার জোর দাবি জানান প্রশাসনের কাছে।

এদিকে এই বিষয়ে অভিযুক্ত আবুল হাসান লিটনের মুঠোফোনে বেশ কয়েক বার ফোন করেও সেই রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

চাঁদপুর মডেল থানার এএসআই শহিদুল্লাহ জানান, মদিনা শপিং সেন্টারে দোকান দখল নিয়ে হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনা করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হলে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনা তদন্ত করা হয়েছে। দোকান দখল নিয়ে যদি আইন শৃঙ্খলা অবনতি হয় তাহলে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তির কৃতি সন্তান মাসুদ আলম যশোরের নতুন এসপি 

চাঁদপুরে মদিনা শপিং সেন্টারের ফের দোকান দখলের চেষ্টা, দোকান মালিকের উপর হামলা

আপডেট সময় : ০১:৫৬:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরে মদিনা শপিং সেন্টারে প্রবেশমুখে একটি দোকান দখলের ঘটনার প্রতিবাদ করায় দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগমের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দুপুরে শহরের প্রাণকেন্দ্রে কালীবাড়ি মন্দিরের সামনে মদিনা শপিং সেন্টারের প্রবেশ মুখে একটি দোকান দখল নিয়ে দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগমকে অতর্কিত ভাবে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনা ঘটেছে।প্রতিপক্ষ আবুল হাসান লিটন দোকান মালিক রহিমা বেগমের জামা কাপড় ছিড়ে ফেলে শ্রীলতাহানি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

Model Hospital

রক্তাক্ত জখম অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা করায়। এ ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানায় তিন জনকে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

একজন অবলা অসহায় নারী ও দোকান মালিক রহিমা বেগমের উপর অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা ও শ্রীলতাহানি ঘটনা খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানার সহকারী পরিদর্শক শহীদুল্লাহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করেন। এছাড়া এই দোকান দখল করার চেষ্টায় চাঁদপুর আদালতের নিষেধাজ্ঞা মামলা করেছেন দোকান মালিক রহিমা বেগম।

আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে প্রতিপক্ষ আবুল হাসান লিটন পেশী শক্তি ব্যবহার করে রোটারিয়ান রহিমা বেগমের মালিকানাধীন দোকানটি রাতের আধারে দখল করার পাঁয়তারা করছে।

জানা যায়, ৯৩ নং চাঁদপুর মিউনিসিপ্যালিটি মৌজার নির্মাণাধীন মদিনা শপিং সেন্টারে প্রবেশমুখে ৫০ পয়েন্ট ৫৮ সেন্টিমিটার একটি দোকান ২০১৮ সালে ২ ডিসেম্বর স্বর্ণখোলা রোডের মৃত সাদীর মিয়ার মেয়ে রোটারিয়ান রহিমা বেগম ৩০ লক্ষ টাকা মূল্য দিয়ে মফিজ উদ্দিন সরকারের কাছ থেকে দোকানটি ক্রয় করে।

কিন্তু সেই দোকানটি গুয়াখোলা রোডের মৃত হোসেন মিয়ার ছেলে আবুল হাসান লিটনের নজর পড়ে।
একজন নিরীহ মহিলার অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে আবুল হাসান লিটন জোরপূর্বক সেই দোকানটি দখল করার চেষ্টা করেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদ করলে দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগম উপর দুই দফা অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে আহত করে।
আহত রহিমা বেগম বাদী হয়ে চাঁদপুর মডেল থানায় আবুল হাসান লিটন ও তার স্ত্রী রুমা আক্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।
দোকান মালিক রহিমা বেগম জানান, ২০১৮ সালে দোকানটি ক্রয় করার পর সেটি দখল নিতে আবুল হাসান লিটন চেষ্টা চালায়। রাতের আধারে দলবল নিয়ে দোকানটি দখল করার চেষ্টা করলে বাধা দিলে লিটন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে প্রথম দফায় হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন।

তাতেও ক্ষেন্ত না হয়ে শনিবার দুপুরে পুনরায় বহিরাগত সন্ত্রাসীদের এনে দোকানটি দখল করার চেষ্টা করে। এ সময় বাধা দিলে সে দ্বিতীয় দফা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আবারও একই কায়দায় হামলা চালিয়ে আহত করে। এম এ হাসান লিটন জামাকাপড় ছিড়ে শ্রীলতাহানি করে ও গলা থেকে স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

সে পেশী শক্তি ব্যবহার করে অন্যের দোকান দখল করার চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় আদালতের শরণাপন্ন হয়ে নিষেধাজ্ঞা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আবুল হাসান লিটন সরকারী জায়গা দখল সহ হিন্দুদের সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল করার অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
এখন আমরা পুরো পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। ভূমিদস্যুর হাত থেকে রক্ষা করে দোকানটি বুঝিয়ে দেওয়ার জোর দাবি জানান প্রশাসনের কাছে।

এদিকে এই বিষয়ে অভিযুক্ত আবুল হাসান লিটনের মুঠোফোনে বেশ কয়েক বার ফোন করেও সেই রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

চাঁদপুর মডেল থানার এএসআই শহিদুল্লাহ জানান, মদিনা শপিং সেন্টারে দোকান দখল নিয়ে হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনা করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হলে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনা তদন্ত করা হয়েছে। দোকান দখল নিয়ে যদি আইন শৃঙ্খলা অবনতি হয় তাহলে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।