ঢাকা ১২:৪৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মতলব উত্তরে বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে চলাচলের রাস্তা অবরুদ্ধ

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তর উপজেলার মমরুজকান্দি গ্রামে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জায়গার উপর ঘর নির্মাণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, মামলার বাদীর ছেলে হানিফ নিজেই আদালতের নিষেধাজ্ঞা করে ঘর নির্মাণ করেছেন। শুধু তাই নয় বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে চলাচলের রাস্তা অবরুদ্ধ করেও রেখেছেন তিনি। উক্ত ঘটনায় শৃঙ্খলা নস্ট হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে।

Model Hospital

জানা গেছে, মমরুজকান্দি মৌজার ১৩৯নং খতিয়ানের ৫৫১ দাগে ০.০৫ একর ভূমি মোসাম্মৎ হালিমা বেগমের কাছ থেকে প্রতিবেশী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী আহম্মদ এর মেয়ে আমেনা আক্তার দলিল মুলে ক্রয় করে ভোগদখলে আছেন। দাতা হালিমা বেগমের ভাই মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে আছু মিয়া উক্ত জায়গা ওয়ারিশ সূত্রে মালিকানা দাবী করে চাঁদপুর কোর্টে মৃত বক্স আলীর ছেলে আলী আহম্মদ, আলী আহম্মদের মেয়ে আছমা সহ ৭ জনকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলার প্রেক্ষিতে আদালত উক্ত ভূমির উপর স্থিতিশীলতা বজায় রাখার আদেশ দেন। গত ১২ নভেম্বর’২১ তারিখে মতলব উত্তর থানার এসএসআই মোঃ দুলাল হোসেন নিষেধাজ্ঞা নোটিশ জারি করেন।

পরবর্তীতে প্রতিপক্ষও আদালতে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার প্রেক্ষিতে উপজেলা ভূমি অফিস সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করেন। উক্ত জায়গা গ্রহীতা আমেনা আক্তার দলিল মুলে ক্রয় করে ভোগদখলে প্রতীয়মান আছেন। কিন্তু গত ১০ ফেব্রুয়ারী প্রথম মামলার বাদী আছু মিয়ার ছেলে হানিফ সহ আরো কয়েকজন জোড়পূর্বক আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ওই জায়গার উপর ঘর নির্মাণ করেন। আলী আহম্মদ মিয়ার মেয়ে আছমা বলেন, আমি সহ কয়েকজন ঘর তোলতে বাঁধা দিলে আমাদেরকে হুমকি ধামকি দেয়। এবং বেশি কথা বললে মেরে ফেলবে বলেও হুমকি দেয়। আমার বাবা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। আমাদের বাড়ি থেকে বের হওয়ার পথ অবরুদ্ধ করে রেখেছে।

সরজমিনে আছু মিয়ার ছেলে হানিফের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, এখানে আমার দোকান আছে। উক্ত দোকান মেরামত করছি। কেউ কিছু বললে খবর আছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

মতলব উত্তরে বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে চলাচলের রাস্তা অবরুদ্ধ

আপডেট সময় : ০৩:৪৮:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তর উপজেলার মমরুজকান্দি গ্রামে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জায়গার উপর ঘর নির্মাণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, মামলার বাদীর ছেলে হানিফ নিজেই আদালতের নিষেধাজ্ঞা করে ঘর নির্মাণ করেছেন। শুধু তাই নয় বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে চলাচলের রাস্তা অবরুদ্ধ করেও রেখেছেন তিনি। উক্ত ঘটনায় শৃঙ্খলা নস্ট হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে।

Model Hospital

জানা গেছে, মমরুজকান্দি মৌজার ১৩৯নং খতিয়ানের ৫৫১ দাগে ০.০৫ একর ভূমি মোসাম্মৎ হালিমা বেগমের কাছ থেকে প্রতিবেশী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী আহম্মদ এর মেয়ে আমেনা আক্তার দলিল মুলে ক্রয় করে ভোগদখলে আছেন। দাতা হালিমা বেগমের ভাই মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে আছু মিয়া উক্ত জায়গা ওয়ারিশ সূত্রে মালিকানা দাবী করে চাঁদপুর কোর্টে মৃত বক্স আলীর ছেলে আলী আহম্মদ, আলী আহম্মদের মেয়ে আছমা সহ ৭ জনকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলার প্রেক্ষিতে আদালত উক্ত ভূমির উপর স্থিতিশীলতা বজায় রাখার আদেশ দেন। গত ১২ নভেম্বর’২১ তারিখে মতলব উত্তর থানার এসএসআই মোঃ দুলাল হোসেন নিষেধাজ্ঞা নোটিশ জারি করেন।

পরবর্তীতে প্রতিপক্ষও আদালতে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার প্রেক্ষিতে উপজেলা ভূমি অফিস সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করেন। উক্ত জায়গা গ্রহীতা আমেনা আক্তার দলিল মুলে ক্রয় করে ভোগদখলে প্রতীয়মান আছেন। কিন্তু গত ১০ ফেব্রুয়ারী প্রথম মামলার বাদী আছু মিয়ার ছেলে হানিফ সহ আরো কয়েকজন জোড়পূর্বক আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ওই জায়গার উপর ঘর নির্মাণ করেন। আলী আহম্মদ মিয়ার মেয়ে আছমা বলেন, আমি সহ কয়েকজন ঘর তোলতে বাঁধা দিলে আমাদেরকে হুমকি ধামকি দেয়। এবং বেশি কথা বললে মেরে ফেলবে বলেও হুমকি দেয়। আমার বাবা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। আমাদের বাড়ি থেকে বের হওয়ার পথ অবরুদ্ধ করে রেখেছে।

সরজমিনে আছু মিয়ার ছেলে হানিফের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, এখানে আমার দোকান আছে। উক্ত দোকান মেরামত করছি। কেউ কিছু বললে খবর আছে।