ঢাকা ১১:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাহরাস্তিতে নানার বাড়িতে কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

মোঃ মাসুদ রানা : চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে নানার বাড়ি থেকে এক কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ ।
মঙ্গলবার দিবাগত রাত (১৭-নভেম্বর) উপজেলার চিতোষী পূর্ব ইউপির কাদরা গ্রামের মুন্সি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
বুধবার সকালে নিহতের মরদেহ শাহরাস্তি মডেল থানার পুলিশ উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সম্প্রতি কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার শাকতলা গ্রামের পাটোয়ারি বাড়ির মোঃ বিল্লাল হোসেনের কন্যা রাবেয়া আক্তার আনিসা (১৭)  শাহরাস্তি উপজেলার কাদরা গ্রামের তার নানার মুন্সি বাড়ীতে বেড়াতে আসে। ওই কিশোরী এখানে আসার ১ বছর পূর্বে মুঠোফোনে নোয়াখালী জেলার চাটখিল উপজেলার পাংশা গ্রামের ছালে আহম্মদের (প্রবাসী) পুত্র মোঃ বাদলের সাথে বিয়ের কথা পাকাপোক্ত হয়। ওই হিসেবে বুধবার ঘটনার দিন আনিসা ওই বর বাদল ও তার পিতা-মাতার  সঙ্গে রাতের বেলায় প্রতিদিনের ন্যায় মুঠোফোনে কথা বলে।
পরে সে রাতের খাবার খেয়ে তার নানা মৃত  ইসাক মিয়ার পুত্র মামা মোহাম্মদ ওমর ফারুকের ঘরে ঘুমাতে  যায়। সে ঘরে ভোররাত তার খালতো বোন তোহা (১২) আনিসাকে ঘরের আড়ায় চাদর পেঁচিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। ওই দৃশ্য দেখতে পেয়ে সে ডাক চিৎকার দিলে স্বজনরা ছুটে এসে আনিসাকে মৃত দেখতে পায়। পরে শাহরাস্তি মডেল থানাকে স্থানীয়রা বিষয়টি  অভিহিত করলে পুলিশ এসে সুরতহাল সংগ্রহ করে মরদেহ উদ্ধার করে শাহরাস্তি মডেল থানায় নিয়ে আসে।
এদিকে অনাকাঙ্ক্ষিত এই মৃত্যু প্রসঙ্গে আনিসার ভাই সোহাগ মুঠোফোনে জানায়, আমার বোনের সঙ্গে মুঠোফোনে এমন কথা বার্তা হয়েছে যার কারণে সে আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে।
এছাড়া আনিসার মামার বাড়ি ও স্থানীয় লোকজন তার বিয়ে সংক্রান্ত ধুম্রজাল  কাণ্ডে  এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে।
অবশ্য তার স্বজনরা একথার সাথে দ্বিমত পোষণ করছে।
এ বিষয়ে শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুল মান্নান জানান, মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে পাঠানো   হয়েছে। এই ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে বাকি বিষয় উদঘাটন করা হবে।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

মতলব উত্তরে কাপ-পিরিচ প্রতীকে উঠান বৈঠক ও ব্যাপক গণসংযোগ

শাহরাস্তিতে নানার বাড়িতে কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৩:৫৫:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ নভেম্বর ২০২১
মোঃ মাসুদ রানা : চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে নানার বাড়ি থেকে এক কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ ।
মঙ্গলবার দিবাগত রাত (১৭-নভেম্বর) উপজেলার চিতোষী পূর্ব ইউপির কাদরা গ্রামের মুন্সি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
বুধবার সকালে নিহতের মরদেহ শাহরাস্তি মডেল থানার পুলিশ উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সম্প্রতি কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার শাকতলা গ্রামের পাটোয়ারি বাড়ির মোঃ বিল্লাল হোসেনের কন্যা রাবেয়া আক্তার আনিসা (১৭)  শাহরাস্তি উপজেলার কাদরা গ্রামের তার নানার মুন্সি বাড়ীতে বেড়াতে আসে। ওই কিশোরী এখানে আসার ১ বছর পূর্বে মুঠোফোনে নোয়াখালী জেলার চাটখিল উপজেলার পাংশা গ্রামের ছালে আহম্মদের (প্রবাসী) পুত্র মোঃ বাদলের সাথে বিয়ের কথা পাকাপোক্ত হয়। ওই হিসেবে বুধবার ঘটনার দিন আনিসা ওই বর বাদল ও তার পিতা-মাতার  সঙ্গে রাতের বেলায় প্রতিদিনের ন্যায় মুঠোফোনে কথা বলে।
পরে সে রাতের খাবার খেয়ে তার নানা মৃত  ইসাক মিয়ার পুত্র মামা মোহাম্মদ ওমর ফারুকের ঘরে ঘুমাতে  যায়। সে ঘরে ভোররাত তার খালতো বোন তোহা (১২) আনিসাকে ঘরের আড়ায় চাদর পেঁচিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। ওই দৃশ্য দেখতে পেয়ে সে ডাক চিৎকার দিলে স্বজনরা ছুটে এসে আনিসাকে মৃত দেখতে পায়। পরে শাহরাস্তি মডেল থানাকে স্থানীয়রা বিষয়টি  অভিহিত করলে পুলিশ এসে সুরতহাল সংগ্রহ করে মরদেহ উদ্ধার করে শাহরাস্তি মডেল থানায় নিয়ে আসে।
এদিকে অনাকাঙ্ক্ষিত এই মৃত্যু প্রসঙ্গে আনিসার ভাই সোহাগ মুঠোফোনে জানায়, আমার বোনের সঙ্গে মুঠোফোনে এমন কথা বার্তা হয়েছে যার কারণে সে আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে।
এছাড়া আনিসার মামার বাড়ি ও স্থানীয় লোকজন তার বিয়ে সংক্রান্ত ধুম্রজাল  কাণ্ডে  এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে।
অবশ্য তার স্বজনরা একথার সাথে দ্বিমত পোষণ করছে।
এ বিষয়ে শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুল মান্নান জানান, মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে পাঠানো   হয়েছে। এই ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে বাকি বিষয় উদঘাটন করা হবে।