ঢাকা ০৭:২৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মতলব দক্ষিণে দোকান ভাংচুর ও স্বর্ণলংকার লুটের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : মতলব দক্ষিণ উপজেলার ৬নং উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের করবন্দ গ্রামে ক্রয়কৃত সম্পত্তিতে নির্মানকৃত দোকান ভাংচুর এবং স্বর্ণলংকার লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে, বুধবার সকালে আব্দুল মান্নান মাল গং ও  হেলাল তপদারের নের্তৃত্বে নব নির্মিত দোকান ভাংচুর করা হয়।
এ ঘটনায় এলাকার সর্বস্তরের মানুষের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে, যে কোন সময় এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বড় ধরনের দূর্ঘটনার আশংকা করছে এলাকাবাসী।
ঘটনার বিবরনে জানা যায়, করবন্দ গ্রামের আরশাদ উল্ল্যাহ পাটওয়ারী ছেলে মোস্তফা পাটওয়ারী রাস্তার পাশে ১০ শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় করেন সৈয়দ এবং নুরু তপদারের কাছ থেকে যার দলিল নং ২৮৮৫। ১০শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় করার পর মোস্তফা তার সম্পত্তিতে ভরাট করে মার্কেট নির্মানের কাজ চলমান রয়েছে। সে সব নির্মিত মার্কেট মঙ্গলবার জুলহাস ৪৫, হাসান ৫০, শাহাদাৎ ৩৫, জসিম ৪৫, সবার পিতা মান্নান মাল, লিয়াকত আলী ৬৫ পিতা ওয়াহেদ আলী মুন্সি, মানিক মুন্সি ৪৫, পিতা উচু মুন্সি সহ বেশ কয়েকজন গিয়ে দোকানের দেয়াল সার্টার ভাংচুর করে। এ সময় মোস্তফার মা বাধা দিতে গেলে তাকে মারধর করে তার সাথে থাকা স্বর্ণালঙ্কার অভিযুক্তরা লুট করে। এ ঘটনার পর ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ৯৯৯ ফোন করলে মতলব দক্ষিণ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরির্দশন করে ঘটনার তথ্য সংগ্রহ করেন।
জানা যায়, এ সম্পত্তি নিয়ে হেলাল তপদার আরশাদউল্ল্যাহকে বিবাদী করেন মামলা দায়ের করেন, সে মামলার রায় ও মোস্তফার পক্ষে আসে, রায়ের পর মোস্তফা তার সম্পত্তিতে মার্কেট করেন। কিন্তু কোন অদৃশ্য ঘুটির জোরে হেলাল গং নব নির্মিত দোকান ভাংচুর করে দখলের চেষ্টা করে সামনে বেড়া দিয়ে সিটকে পড়ে।
এদিকে  ক্রয়সূত্রে মালিক দাবীদার মহসিন মিজির বড় ভাই হাসান মিজি জানান, উক্ত সম্পত্তি দলিল ও খতিয়ান মুলে হেলাল তপদার মালিক হয়ে আমার ভাই মহসিন মিজির কাছে এক বছর পূর্বে বায়না দলিলে বিক্রি করে। তিনি (হেলাল তপদার) তার বিক্রিকৃত সম্পত্তি গত ৩১অক্টোবর সোমবার সকালে মহসিন মিজিকে দলিলে রেজিস্ট্রি করে গতকাল ১নভেম্বর মঙ্গলবার সরে জমিনে ভোগ দখন বুঝিয়ে দিয়েছেন। এসময় একই এলাকার আশাদ উল্লা গং সম্পত্তির মালিক দাবী করে বাধা সৃষ্টি করে। এসময় তিনি এক শ্রমিকের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ক্যাব চাঁদপুরের আয়োজনে বাজার পরিস্থিতি ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক মত বিনিময় সভা

মতলব দক্ষিণে দোকান ভাংচুর ও স্বর্ণলংকার লুটের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৬:০২:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ নভেম্বর ২০২২
স্টাফ রিপোর্টার : মতলব দক্ষিণ উপজেলার ৬নং উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের করবন্দ গ্রামে ক্রয়কৃত সম্পত্তিতে নির্মানকৃত দোকান ভাংচুর এবং স্বর্ণলংকার লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে, বুধবার সকালে আব্দুল মান্নান মাল গং ও  হেলাল তপদারের নের্তৃত্বে নব নির্মিত দোকান ভাংচুর করা হয়।
এ ঘটনায় এলাকার সর্বস্তরের মানুষের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে, যে কোন সময় এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বড় ধরনের দূর্ঘটনার আশংকা করছে এলাকাবাসী।
ঘটনার বিবরনে জানা যায়, করবন্দ গ্রামের আরশাদ উল্ল্যাহ পাটওয়ারী ছেলে মোস্তফা পাটওয়ারী রাস্তার পাশে ১০ শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় করেন সৈয়দ এবং নুরু তপদারের কাছ থেকে যার দলিল নং ২৮৮৫। ১০শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় করার পর মোস্তফা তার সম্পত্তিতে ভরাট করে মার্কেট নির্মানের কাজ চলমান রয়েছে। সে সব নির্মিত মার্কেট মঙ্গলবার জুলহাস ৪৫, হাসান ৫০, শাহাদাৎ ৩৫, জসিম ৪৫, সবার পিতা মান্নান মাল, লিয়াকত আলী ৬৫ পিতা ওয়াহেদ আলী মুন্সি, মানিক মুন্সি ৪৫, পিতা উচু মুন্সি সহ বেশ কয়েকজন গিয়ে দোকানের দেয়াল সার্টার ভাংচুর করে। এ সময় মোস্তফার মা বাধা দিতে গেলে তাকে মারধর করে তার সাথে থাকা স্বর্ণালঙ্কার অভিযুক্তরা লুট করে। এ ঘটনার পর ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ৯৯৯ ফোন করলে মতলব দক্ষিণ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরির্দশন করে ঘটনার তথ্য সংগ্রহ করেন।
জানা যায়, এ সম্পত্তি নিয়ে হেলাল তপদার আরশাদউল্ল্যাহকে বিবাদী করেন মামলা দায়ের করেন, সে মামলার রায় ও মোস্তফার পক্ষে আসে, রায়ের পর মোস্তফা তার সম্পত্তিতে মার্কেট করেন। কিন্তু কোন অদৃশ্য ঘুটির জোরে হেলাল গং নব নির্মিত দোকান ভাংচুর করে দখলের চেষ্টা করে সামনে বেড়া দিয়ে সিটকে পড়ে।
এদিকে  ক্রয়সূত্রে মালিক দাবীদার মহসিন মিজির বড় ভাই হাসান মিজি জানান, উক্ত সম্পত্তি দলিল ও খতিয়ান মুলে হেলাল তপদার মালিক হয়ে আমার ভাই মহসিন মিজির কাছে এক বছর পূর্বে বায়না দলিলে বিক্রি করে। তিনি (হেলাল তপদার) তার বিক্রিকৃত সম্পত্তি গত ৩১অক্টোবর সোমবার সকালে মহসিন মিজিকে দলিলে রেজিস্ট্রি করে গতকাল ১নভেম্বর মঙ্গলবার সরে জমিনে ভোগ দখন বুঝিয়ে দিয়েছেন। এসময় একই এলাকার আশাদ উল্লা গং সম্পত্তির মালিক দাবী করে বাধা সৃষ্টি করে। এসময় তিনি এক শ্রমিকের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে।