ঢাকা ০৯:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নেতাকর্মীদের নামে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করার আহ্বান

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় ৩রা নভেম্বর ঘৃণ্যতম জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস।

Model Hospital

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী ইলিয়াসুর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শহিদুল্লাহ প্রধান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী, আইয়ুব আলী গাজী, কবির হোসেন মাষ্টার, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক নুরুল আমিন বোরহান, সদস্য রাদেশাম শাহা চান্দু বাবু, ফতেপুর পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নুর মোহাম্মদ, জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য ও ফতেপুর পশ্চিম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সরকার আলাউদ্দিন, এখলাসপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রেহান উদ্দিন নেতা, কলাকান্দা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এটিএম মুজিবুর রহমান, জহিরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহন মিয়া, দূর্গাপুর ইউনিয়ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুব হোসেন, সুলতানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সফিকুল ইসলাম, মোহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির হাওলাদার, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান মো. জহির, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম ফারুক, দূর্গাপুর ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল লস্কর, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী লাভলী আক্তার, উপজেলা মৎস্যজীবি লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াস কুরুনী সরকার প্রমুখ।

এম এ কুদ্দুস বলেন, ৭৫ এর ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্ব-পরিবারে হত্যার পর বাংলাদেশকে পুরোপুরিভাবে মেধাশুন্য করতে স্বাধীনতা বিরোধী চক্ররা ৩রা নভেম্বর জেলের অভ্যন্তরে জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা হয়েছিল।

স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা থামিয়ে দিতে ও নেতৃত্ব শূন্য করতেই জাতীয় চার নেতাকে জেলের বদ্ধ কুঠুরিতে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল। এটি বাংলাদেশের ইতিহাসের এক কলঙ্কজনক অধ্যায়

তিনি আরো বলেন, ৭৫ এর পরাজিত শক্তিরা আবারো একত্রিত হয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দেশ বিরোধী ষড়যেন্ত্রে লিপ্ত। এসব ষড়যন্ত্রকারীদের বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য সকল নেতাকর্মীকে আহবান জানানো হয়।

মতলব উত্তরের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করে সম্মেলন সফল করতে স্থানীয় ৩ কেন্দ্রীয় নেতার এক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তারা বলেন, কেন্দ্রীয় নেতারা দ্বিধাবিভক্ত থাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হতাশায় রয়েছে।

আলোচনা সভায় বক্তারা সংগঠনের কার্যক্রম আরও তরাম্বিত করার লক্ষ্যে দলীয় সিনিয়র নেতৃবৃন্দের কাছে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের নামে সকল ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করার অনুরোধ করেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা ঘোষণা শ্যামলী খানের

নেতাকর্মীদের নামে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করার আহ্বান

আপডেট সময় : ০৪:৩৭:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ নভেম্বর ২০২২

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় ৩রা নভেম্বর ঘৃণ্যতম জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস।

Model Hospital

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী ইলিয়াসুর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শহিদুল্লাহ প্রধান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী, আইয়ুব আলী গাজী, কবির হোসেন মাষ্টার, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক নুরুল আমিন বোরহান, সদস্য রাদেশাম শাহা চান্দু বাবু, ফতেপুর পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নুর মোহাম্মদ, জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য ও ফতেপুর পশ্চিম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সরকার আলাউদ্দিন, এখলাসপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রেহান উদ্দিন নেতা, কলাকান্দা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এটিএম মুজিবুর রহমান, জহিরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহন মিয়া, দূর্গাপুর ইউনিয়ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুব হোসেন, সুলতানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সফিকুল ইসলাম, মোহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির হাওলাদার, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান মো. জহির, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম ফারুক, দূর্গাপুর ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল লস্কর, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী লাভলী আক্তার, উপজেলা মৎস্যজীবি লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াস কুরুনী সরকার প্রমুখ।

এম এ কুদ্দুস বলেন, ৭৫ এর ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্ব-পরিবারে হত্যার পর বাংলাদেশকে পুরোপুরিভাবে মেধাশুন্য করতে স্বাধীনতা বিরোধী চক্ররা ৩রা নভেম্বর জেলের অভ্যন্তরে জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা হয়েছিল।

স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা থামিয়ে দিতে ও নেতৃত্ব শূন্য করতেই জাতীয় চার নেতাকে জেলের বদ্ধ কুঠুরিতে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল। এটি বাংলাদেশের ইতিহাসের এক কলঙ্কজনক অধ্যায়

তিনি আরো বলেন, ৭৫ এর পরাজিত শক্তিরা আবারো একত্রিত হয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দেশ বিরোধী ষড়যেন্ত্রে লিপ্ত। এসব ষড়যন্ত্রকারীদের বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য সকল নেতাকর্মীকে আহবান জানানো হয়।

মতলব উত্তরের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করে সম্মেলন সফল করতে স্থানীয় ৩ কেন্দ্রীয় নেতার এক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তারা বলেন, কেন্দ্রীয় নেতারা দ্বিধাবিভক্ত থাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হতাশায় রয়েছে।

আলোচনা সভায় বক্তারা সংগঠনের কার্যক্রম আরও তরাম্বিত করার লক্ষ্যে দলীয় সিনিয়র নেতৃবৃন্দের কাছে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের নামে সকল ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করার অনুরোধ করেন।