ঢাকা ০৪:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ফরিদগঞ্জের যুবক নিহত

এস এম ইকবাল : সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশের রেমিট্যান্স যোদ্ধা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সারোয়ার হোসেনর ছেলে নিহত হয়েছে।

Model Hospital

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত যুবকের বাড়ি চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার কাছিয়াড়া গ্রামে। সড়ক দুর্ঘটনায় ইসমাইলের মৃত্যুর বিষটি ইসমাইলের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সারোয়ার হোসেন নিশ্চিত করেছেন।

গত বৃহস্পতিবার রাত ৯ঘটিকার সময় রেমিট্যান্স যোদ্ধা ফরিদগঞ্জের যুবক ইসমাইল হোসেন রাসেল(৩৫) কাজ শেষ করে বাসায় ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটে। এরপর পথচারিরা রাসেলকে উদ্ধার করে নিকটতম হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ইসমাইলের পরিবার জানায়, গত ৮ মাস পূর্বে সৌদি আরবের জিজান প্রদেশে জান ইসমাইল। সেখানে সেন্ট্রাল এসির কাজ করতেন ইসমাইল। বৃহস্পতিবার রাতে কাজ শেষ করে বাসায় ফেরার পথে সৌদি আরব সময় রাত ৯টার দিকে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি।

এদিকে ইসমাইলের মরদেহ ফিরে পেতে সরকারের কাছে আকুতি জানিয়েছে তাঁর পরিবারের লোকজন। ইসমাইলের মৃত্যুতে পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ইসমাইলকে শেষবারের মতো দেখতে অপেক্ষার প্রহর গুনছেন মা-বাবা ও এক সন্তানের জননী স্ত্রী হাফসা আক্তার।

ইসমাইলের বাবা ফরিদগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সারোয়ার হোসেন বলেন, ‘গত ৮ মাস আগে অনেক স্বপ্ন নিয়ে ছেলেকে সৌদি আরবে পাঠিয়েছি। একটি নাতি আছে, কখনো ভাবিনি ছেলের মৃত্যুর সংবাদ বাবা হিসেবে আমার শুনেতে হবে। আমার ছেলের লাশ ফিরে পেতে সরকারের কাছে সকল দরনের সহযোগিতা চাই।’

ট্যাগস :

বরযাত্রার সময় হাজির প্রথম স্ত্রী, বউ রেখে পালালেন বর

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ফরিদগঞ্জের যুবক নিহত

আপডেট সময় : ০১:৩৯:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২২

এস এম ইকবাল : সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশের রেমিট্যান্স যোদ্ধা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সারোয়ার হোসেনর ছেলে নিহত হয়েছে।

Model Hospital

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত যুবকের বাড়ি চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার কাছিয়াড়া গ্রামে। সড়ক দুর্ঘটনায় ইসমাইলের মৃত্যুর বিষটি ইসমাইলের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সারোয়ার হোসেন নিশ্চিত করেছেন।

গত বৃহস্পতিবার রাত ৯ঘটিকার সময় রেমিট্যান্স যোদ্ধা ফরিদগঞ্জের যুবক ইসমাইল হোসেন রাসেল(৩৫) কাজ শেষ করে বাসায় ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটে। এরপর পথচারিরা রাসেলকে উদ্ধার করে নিকটতম হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ইসমাইলের পরিবার জানায়, গত ৮ মাস পূর্বে সৌদি আরবের জিজান প্রদেশে জান ইসমাইল। সেখানে সেন্ট্রাল এসির কাজ করতেন ইসমাইল। বৃহস্পতিবার রাতে কাজ শেষ করে বাসায় ফেরার পথে সৌদি আরব সময় রাত ৯টার দিকে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি।

এদিকে ইসমাইলের মরদেহ ফিরে পেতে সরকারের কাছে আকুতি জানিয়েছে তাঁর পরিবারের লোকজন। ইসমাইলের মৃত্যুতে পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ইসমাইলকে শেষবারের মতো দেখতে অপেক্ষার প্রহর গুনছেন মা-বাবা ও এক সন্তানের জননী স্ত্রী হাফসা আক্তার।

ইসমাইলের বাবা ফরিদগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সারোয়ার হোসেন বলেন, ‘গত ৮ মাস আগে অনেক স্বপ্ন নিয়ে ছেলেকে সৌদি আরবে পাঠিয়েছি। একটি নাতি আছে, কখনো ভাবিনি ছেলের মৃত্যুর সংবাদ বাবা হিসেবে আমার শুনেতে হবে। আমার ছেলের লাশ ফিরে পেতে সরকারের কাছে সকল দরনের সহযোগিতা চাই।’