ঢাকা ০১:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাহরাস্তিতে নির্বাচন বর্জনের দাবিতে বিএনপির লিফলেট বিতরণ

শাহরাস্তিতে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট বর্জন, ট্যাক্স, খাজনা, অন্যান্য প্রদেয়, মামলার হাজিরা থেকে বিরত থাকা, ব্যাংকে লেনদেন এড়িয়ে চলা, ভোটগ্রহণে দায়িত্ব পালনে বিরত থাকাসহ নানা বিষয় তুলে ধরে ‘ডামী নির্বাচন বর্জন ও অসহযোগ আন্দোলনের ডাক’ শিরোনাম সম্বলিত লিফলেট বিতরণ করেছে পৌরসভা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।
শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) দুপুর ২টায় শাহরাস্তি পৌরসভার হাসপাতাল গেইট ও ঠাকুর বাজার এলাকায় এ লিফলেট বিতরণ করা হয়। এ সময় নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত।
লিফলেটে বিএনপির পক্ষ থেকে তুলে ধরা হয়, মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত গণতন্ত্র ছলে, বলে, কৌশলে হত্যা করে গত ১৫ বছর ধরে বিনা ভোটে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার সীমাহীন দূর্ণীতি, অনাচার, নির্যাতন ও অপশাসন চালিয়ে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশকে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিকভাবে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিয়েছে। বিরোধী মত দমনের জন্য গুম, খুন, গায়েবী মামলাকে হাতিয়ার বানিয়ে দেশে এক নিকৃষ্ট স্বৈরশাসন কায়েম করেছে। ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জনগণের ভোট লাগেনা বলে এই সরকারের কাছে জনগণের আশা, আকাঙ্ক্ষা, প্রয়োজন কিংবা অসন্তুষ্টির কোন মূল্য নেই। ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করার জন্য সমাজের কিছু দুর্ণীতিগ্রস্থ ধনী, আমলা, পুলিশ এবং দলীয় নেতাকর্মী দিয়ে জনগণের ন্যায়সঙ্গত আন্দোলন দমন করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। এরা দেশের সম্পদ লুট করে দেশে বিদেশে সম্পদের পাহাড় গড়ছে আর জনগণ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও ক্ষমতাসীনদের অত্যাচার-চাঁদাবাজীর শিকার হয়ে নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে।
আগামী ৭ জানুয়ারি নির্বাচনের নামে যে খেলার আয়োজন করা হচ্ছে তা শুধুই সরকারের অবৈধ ক্ষমতার মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য। এই নির্বাচনের সরকারবিরোধী কোন রাজনৈতিক দল অংশ নিচ্ছে না। প্রকৃত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে একটি অবাধ, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানের গণদাবীকে জোর করে উপেক্ষা করার ফলে এই নির্বাচনে জনগণের কোন আগ্রহ নেই। গণতান্ত্রিক বিশ্ব এমন একতরফা নির্বাচনী প্রহসনের অশুভ পরিণাম নিয়ে উৎকণ্ঠা ও সতর্কতা জানিয়েছে। কিন্তু ক্ষমতাসীন অবৈধ সরকার জাতীয় সংসদের কিছু আসন তাদের দূর্ণীতি-অনাচারের অংশীদার অনুগত দলগুলোকে অনুদান হিসেবে দিয়ে তথাকথিত প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানের তামাশা করতে যাচ্ছে। এই লক্ষ্যে তারা কিছু ডামী প্রার্থীকে নির্বাচনে রেখে এক নতুন হাস্যকর দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে যাচ্ছে।
এজন্য আগামী ৭ জানুয়ারির ডামি ভোটের খেলা বর্জন, ভোটগ্রহণে নিযুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরত থাকা, সরকারের সকল প্রকার ট্রাক্স, খাজনা, ইউটিলিটি বিল, অন্যান্য প্রদেয় স্থগিত রাখা, ব্যাংকগুলো সরকারের লুটপাটের অন্যতম মাধ্যম তাই লেনদেন এড়িয়ে চলা, রাজনৈতিক নেতাকর্মীসহ মিথ্যা ও গায়েবি মামলার হাজিরা থেকে বিরত থাকার আহবান জানানো হয়।
লিফলেট বিতরণে উপস্থিত ছিলেন- শাহরাস্তি পৌর বিএনপির সভাপতি মোঃ আবুল খায়ের সিএ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফারুক হোসেন মিয়াজী, সহ-সভাপতি সফিকুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক সোলাইমান রায়হান, ৮ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, বিএনপি নেতা মোঃ জাকির হোসেন, তোফায়েল আহমেদ সোহেল, পৌর যুবদলের সদস্য সচিব আবদুল কাইয়ুম রিপন, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক শফিকুর রহমান, সদস্য সচিব মোঃ আবুল হায়দার, পৌর ছাত্রদলের আহবায়ক মাজহারুল ইসলাম জুয়েল, যুগ্ম আহবায়ক রাজুসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে অটো চালকের মৃত্যু

শাহরাস্তিতে নির্বাচন বর্জনের দাবিতে বিএনপির লিফলেট বিতরণ

আপডেট সময় : ০৫:১৫:৪৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২৩
শাহরাস্তিতে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট বর্জন, ট্যাক্স, খাজনা, অন্যান্য প্রদেয়, মামলার হাজিরা থেকে বিরত থাকা, ব্যাংকে লেনদেন এড়িয়ে চলা, ভোটগ্রহণে দায়িত্ব পালনে বিরত থাকাসহ নানা বিষয় তুলে ধরে ‘ডামী নির্বাচন বর্জন ও অসহযোগ আন্দোলনের ডাক’ শিরোনাম সম্বলিত লিফলেট বিতরণ করেছে পৌরসভা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।
শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) দুপুর ২টায় শাহরাস্তি পৌরসভার হাসপাতাল গেইট ও ঠাকুর বাজার এলাকায় এ লিফলেট বিতরণ করা হয়। এ সময় নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত।
লিফলেটে বিএনপির পক্ষ থেকে তুলে ধরা হয়, মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত গণতন্ত্র ছলে, বলে, কৌশলে হত্যা করে গত ১৫ বছর ধরে বিনা ভোটে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার সীমাহীন দূর্ণীতি, অনাচার, নির্যাতন ও অপশাসন চালিয়ে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশকে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিকভাবে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিয়েছে। বিরোধী মত দমনের জন্য গুম, খুন, গায়েবী মামলাকে হাতিয়ার বানিয়ে দেশে এক নিকৃষ্ট স্বৈরশাসন কায়েম করেছে। ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জনগণের ভোট লাগেনা বলে এই সরকারের কাছে জনগণের আশা, আকাঙ্ক্ষা, প্রয়োজন কিংবা অসন্তুষ্টির কোন মূল্য নেই। ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করার জন্য সমাজের কিছু দুর্ণীতিগ্রস্থ ধনী, আমলা, পুলিশ এবং দলীয় নেতাকর্মী দিয়ে জনগণের ন্যায়সঙ্গত আন্দোলন দমন করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। এরা দেশের সম্পদ লুট করে দেশে বিদেশে সম্পদের পাহাড় গড়ছে আর জনগণ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও ক্ষমতাসীনদের অত্যাচার-চাঁদাবাজীর শিকার হয়ে নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে।
আগামী ৭ জানুয়ারি নির্বাচনের নামে যে খেলার আয়োজন করা হচ্ছে তা শুধুই সরকারের অবৈধ ক্ষমতার মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য। এই নির্বাচনের সরকারবিরোধী কোন রাজনৈতিক দল অংশ নিচ্ছে না। প্রকৃত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে একটি অবাধ, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানের গণদাবীকে জোর করে উপেক্ষা করার ফলে এই নির্বাচনে জনগণের কোন আগ্রহ নেই। গণতান্ত্রিক বিশ্ব এমন একতরফা নির্বাচনী প্রহসনের অশুভ পরিণাম নিয়ে উৎকণ্ঠা ও সতর্কতা জানিয়েছে। কিন্তু ক্ষমতাসীন অবৈধ সরকার জাতীয় সংসদের কিছু আসন তাদের দূর্ণীতি-অনাচারের অংশীদার অনুগত দলগুলোকে অনুদান হিসেবে দিয়ে তথাকথিত প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানের তামাশা করতে যাচ্ছে। এই লক্ষ্যে তারা কিছু ডামী প্রার্থীকে নির্বাচনে রেখে এক নতুন হাস্যকর দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে যাচ্ছে।
এজন্য আগামী ৭ জানুয়ারির ডামি ভোটের খেলা বর্জন, ভোটগ্রহণে নিযুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরত থাকা, সরকারের সকল প্রকার ট্রাক্স, খাজনা, ইউটিলিটি বিল, অন্যান্য প্রদেয় স্থগিত রাখা, ব্যাংকগুলো সরকারের লুটপাটের অন্যতম মাধ্যম তাই লেনদেন এড়িয়ে চলা, রাজনৈতিক নেতাকর্মীসহ মিথ্যা ও গায়েবি মামলার হাজিরা থেকে বিরত থাকার আহবান জানানো হয়।
লিফলেট বিতরণে উপস্থিত ছিলেন- শাহরাস্তি পৌর বিএনপির সভাপতি মোঃ আবুল খায়ের সিএ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফারুক হোসেন মিয়াজী, সহ-সভাপতি সফিকুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক সোলাইমান রায়হান, ৮ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, বিএনপি নেতা মোঃ জাকির হোসেন, তোফায়েল আহমেদ সোহেল, পৌর যুবদলের সদস্য সচিব আবদুল কাইয়ুম রিপন, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক শফিকুর রহমান, সদস্য সচিব মোঃ আবুল হায়দার, পৌর ছাত্রদলের আহবায়ক মাজহারুল ইসলাম জুয়েল, যুগ্ম আহবায়ক রাজুসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।