ঢাকা ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

স্মার্ট বাংলাদেশ, স্মার্ট জাতি গঠনই আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য : অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন

চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী, শিক্ষানুরাগী ও আইনজীবী, সদর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন গণসংযোগ করেন
১ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনি চাঁদপুর সদর উপজেলার চন্দ্রা, হানারচর ও লক্ষীপুর ইউনিয়নে ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের জনগণের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।
এসময় অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার মূল চাবিকাঠি হবে ডিজিটাল সংযোগ। স্মার্ট নাগরিক, স্মার্ট অর্থনীতি, স্মার্ট সরকার এবং স্মার্ট সমাজের জন্যে ডিজিটাল সংযোগ মূল ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে।’ ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন একটি বাস্তবতা। স্মার্ট বাংলাদেশ ও স্মার্ট জাতি গঠনই আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য পূরণে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের কোন বিকল্প নেই।’
হুমায়ুন কবির সুমন বলেন, সরকার ঘোষিত রূপকল্প ২০৪১ মূলত ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী গন্তব্য। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে আমাদের সবাইকে যার যার জায়গা থেকে কাজ করতে হবে। প্রতিটি সেক্টরে আমরা যেন সফলভাবে এগিয়ে যেতে পারি সেজন্য প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা এরই মধ্যে নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছি। আমরা নিজেদের সর্বোচ্চ দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নকে বাস্তবায়নের জন্য কাজ করে যাব।
তিনি বলেন, এখন সব নির্ভর করছে আমাদের ইয়াং জেনারেশন ও যুব সমাজের উপর। ‘তারুণ্যের শক্তি, বাংলাদেশের উন্নতি’। এটাই ছিল আমাদের ২০১৮ এর নির্বাচনী ইশতেহার। আমরা সেই কাজই করে যাচ্ছি। ২০২০ সালে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তি উদযাপনকালেই বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পায়।
এসময় চান্দ্রা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু পাটোয়ারী, সহ সভাপতি ডাঃ লক্ষণ চন্দ্র সূত্রধর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিবুল বাসার খন্দকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মুকুট চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক মুজিবুর রহমান, ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক শেখ মোহাম্মদ আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক সালাউদ্দিন মোহাম্মদ বাবু, যুগ্ম আহবায়ক ফাহিমুল ইসলাম শশী, তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, চাঁদপুর সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শিমুল হাসান সামনু, সদস্য মোস্তফা মোল্লা, জাহাঙ্গীর কবির কিশোর, আবুল হাসনাত নয়ন গাজী, ফারুক বেপারী, পৌর যুবলীগের সদস্য নিতাই চন্দ্র দাশ, আল আমিন বকাউল, সুমনুজ্জামান খান, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন গাজী, তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক জাকির হোসেন রনি, যুগ্ন আহবায়ক তাজুল ইসলাম শান্ত, পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক জিএম রাকিব উপস্থিত ছিলেন।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

রমজানের আগেই ‘দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ কমিশন’ দাবি নতুনধারার

স্মার্ট বাংলাদেশ, স্মার্ট জাতি গঠনই আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য : অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন

আপডেট সময় : ১০:০৬:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী, শিক্ষানুরাগী ও আইনজীবী, সদর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন গণসংযোগ করেন
১ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনি চাঁদপুর সদর উপজেলার চন্দ্রা, হানারচর ও লক্ষীপুর ইউনিয়নে ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের জনগণের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।
এসময় অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার মূল চাবিকাঠি হবে ডিজিটাল সংযোগ। স্মার্ট নাগরিক, স্মার্ট অর্থনীতি, স্মার্ট সরকার এবং স্মার্ট সমাজের জন্যে ডিজিটাল সংযোগ মূল ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে।’ ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন একটি বাস্তবতা। স্মার্ট বাংলাদেশ ও স্মার্ট জাতি গঠনই আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য পূরণে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের কোন বিকল্প নেই।’
হুমায়ুন কবির সুমন বলেন, সরকার ঘোষিত রূপকল্প ২০৪১ মূলত ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী গন্তব্য। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে আমাদের সবাইকে যার যার জায়গা থেকে কাজ করতে হবে। প্রতিটি সেক্টরে আমরা যেন সফলভাবে এগিয়ে যেতে পারি সেজন্য প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা এরই মধ্যে নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছি। আমরা নিজেদের সর্বোচ্চ দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নকে বাস্তবায়নের জন্য কাজ করে যাব।
তিনি বলেন, এখন সব নির্ভর করছে আমাদের ইয়াং জেনারেশন ও যুব সমাজের উপর। ‘তারুণ্যের শক্তি, বাংলাদেশের উন্নতি’। এটাই ছিল আমাদের ২০১৮ এর নির্বাচনী ইশতেহার। আমরা সেই কাজই করে যাচ্ছি। ২০২০ সালে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তি উদযাপনকালেই বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পায়।
এসময় চান্দ্রা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু পাটোয়ারী, সহ সভাপতি ডাঃ লক্ষণ চন্দ্র সূত্রধর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিবুল বাসার খন্দকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মুকুট চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক মুজিবুর রহমান, ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক শেখ মোহাম্মদ আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক সালাউদ্দিন মোহাম্মদ বাবু, যুগ্ম আহবায়ক ফাহিমুল ইসলাম শশী, তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, চাঁদপুর সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শিমুল হাসান সামনু, সদস্য মোস্তফা মোল্লা, জাহাঙ্গীর কবির কিশোর, আবুল হাসনাত নয়ন গাজী, ফারুক বেপারী, পৌর যুবলীগের সদস্য নিতাই চন্দ্র দাশ, আল আমিন বকাউল, সুমনুজ্জামান খান, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন গাজী, তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক জাকির হোসেন রনি, যুগ্ন আহবায়ক তাজুল ইসলাম শান্ত, পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক জিএম রাকিব উপস্থিত ছিলেন।