ঢাকা ০৮:৫৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে ৯ ইউপির নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরে কয়েকটি কেন্দ্রে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার মধ্য দিয়ে সদর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ ভাবে একটানা ভোটগ্রহণ চলে। প্রতিটি কেন্দ্রেই সকাল থেকে ভোটারদের উপস্থিতি বেশি থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে তা কমতে থাকে। তবে ভোটারদের উপস্থিতি পুরুষদের চেয়ে নারীদেরই বেশি দেখা যায়।

Model Hospital

অপরদিকে বিভিন্ন কেন্দ্রে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় পুলিশ ১০ থেকে ১২ জনকে আটক করেছে বলে চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুর রশিদ জানিয়েছেন।

বিভিন্ন ইউনিয়নের ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, ভোটারদের উপস্থিতি লক্ষণীয়। চেয়ারম্যান প্রার্থীদের তোড়ঝোড় না থাকলেও মেম্বার প্রার্থীরা ছিলেন সরব। তারা তাদের সমর্থিত ভোটারদের কেন্দ্রে এসে ভোট প্রদানে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেন। এতে করে সকাল থেকেই প্রতিটি কেন্দ্রে উৎসবমূখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়।

এদিকে ভোটগ্রহণের পূর্বেই সকাল সাড়ে ৭টায় আশিকাটি ইউনয়নের ৮নং ওয়ার্ড দক্ষিণ পাইকাস্তার মেম্বার প্রার্থী তাফু কাজীর (তালা মার্কা) সমর্থকদের সাথে মো. রুবেল প্রধানীয়ার (ফুটবল মার্কা) সমর্থদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় শারীরিক প্রতিবন্ধী মো. সাখাওয়াত হোসেন কাজী নামে একজন গুরুতর আহত হয়। এ ঘটনায় পুলিশ জাহাঙ্গীর গাজী ও বাপ্পী মজুমদার নামে দুজনকে আটক করে।

এছাড়াও বাগাদী, তরপুরচন্ডী, বালিয়া, শাহমাহমুদপুর, চান্দ্রা ও বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে নির্বাচনের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিভিন্ন কেন্দ্রে গিয়ে পরিদর্শন করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ ও পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ।

পুলিশ সুপার বলেন, দুএকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণ ভাবেই ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। তবে যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব, বিজিবি ও কোষ্টগার্ড সদস্যরা প্রস্তুত ছিলেন। চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তোফায়েল হোসেন বলেন, সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠানে আমাদের সকল প্রস্তুতি ছিল। ইনশাল্লাহ আমরা সফলকাম হয়েছি।

উল্লেখ, নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী দ্বিতীয় ধাপে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নির্বাচনের শেষ মুহুর্তে গত সোমবার হানারচর ইউনিয়নের নির্বাচন ৮ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করে হাইকোর্ট। ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আঃ ছাত্তার রাঢ়ীর রিটের প্রেক্ষিতে এই আদেশ দেন হাইকোর্ট।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা ঘোষণা শ্যামলী খানের

চাঁদপুরে বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে ৯ ইউপির নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন

আপডেট সময় : ০১:৫৭:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ নভেম্বর ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরে কয়েকটি কেন্দ্রে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার মধ্য দিয়ে সদর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ ভাবে একটানা ভোটগ্রহণ চলে। প্রতিটি কেন্দ্রেই সকাল থেকে ভোটারদের উপস্থিতি বেশি থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে তা কমতে থাকে। তবে ভোটারদের উপস্থিতি পুরুষদের চেয়ে নারীদেরই বেশি দেখা যায়।

Model Hospital

অপরদিকে বিভিন্ন কেন্দ্রে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় পুলিশ ১০ থেকে ১২ জনকে আটক করেছে বলে চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুর রশিদ জানিয়েছেন।

বিভিন্ন ইউনিয়নের ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, ভোটারদের উপস্থিতি লক্ষণীয়। চেয়ারম্যান প্রার্থীদের তোড়ঝোড় না থাকলেও মেম্বার প্রার্থীরা ছিলেন সরব। তারা তাদের সমর্থিত ভোটারদের কেন্দ্রে এসে ভোট প্রদানে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেন। এতে করে সকাল থেকেই প্রতিটি কেন্দ্রে উৎসবমূখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়।

এদিকে ভোটগ্রহণের পূর্বেই সকাল সাড়ে ৭টায় আশিকাটি ইউনয়নের ৮নং ওয়ার্ড দক্ষিণ পাইকাস্তার মেম্বার প্রার্থী তাফু কাজীর (তালা মার্কা) সমর্থকদের সাথে মো. রুবেল প্রধানীয়ার (ফুটবল মার্কা) সমর্থদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় শারীরিক প্রতিবন্ধী মো. সাখাওয়াত হোসেন কাজী নামে একজন গুরুতর আহত হয়। এ ঘটনায় পুলিশ জাহাঙ্গীর গাজী ও বাপ্পী মজুমদার নামে দুজনকে আটক করে।

এছাড়াও বাগাদী, তরপুরচন্ডী, বালিয়া, শাহমাহমুদপুর, চান্দ্রা ও বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে নির্বাচনের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিভিন্ন কেন্দ্রে গিয়ে পরিদর্শন করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ ও পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ।

পুলিশ সুপার বলেন, দুএকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণ ভাবেই ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। তবে যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব, বিজিবি ও কোষ্টগার্ড সদস্যরা প্রস্তুত ছিলেন। চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তোফায়েল হোসেন বলেন, সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠানে আমাদের সকল প্রস্তুতি ছিল। ইনশাল্লাহ আমরা সফলকাম হয়েছি।

উল্লেখ, নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী দ্বিতীয় ধাপে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নির্বাচনের শেষ মুহুর্তে গত সোমবার হানারচর ইউনিয়নের নির্বাচন ৮ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করে হাইকোর্ট। ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আঃ ছাত্তার রাঢ়ীর রিটের প্রেক্ষিতে এই আদেশ দেন হাইকোর্ট।