ঢাকা ০৫:৫৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ৫ দোকান পুড়ে ছাঁই

এস. এম ইকবাল : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার লতিফগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ অগ্নীকান্ডে পাঁচটি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই গেছে।
২৯ জুন বুধবার বেলা ৩টার দিকে উপজেলার গুপ্টি পশ্চিম ইউনিয়নের লতিফগঞ্জ বাজারে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ ও রামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ২ টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন।

Model Hospital

এ সময় উত্তম চন্দ্র কুরির (স্বর্নের দোকান), নেছার আহমেদের (মুদি দোকান), আক্কাছ আলীর (ফার্নিচারের দোকান), মুক্তারের ও মনিরের (চায়ের দোকান)। তারা জানান, অগ্নিকান্ডে তাদের আনুমানিক ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা জানায়, দুপুরে দোকান বন্ধ করে তারা খাবার খেতে বাড়িতে যায়। হঠাৎ বাজারে চিৎকার শুনে দৌড়ে এসে আগুনে দোকান পুড়তে দেখে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীদের প্রচেষ্টায় আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

অগ্নিকান্ডের ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমুন নেছা ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. বুলবুল আহম্মেদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অগ্নিকান্ডের বিষয়ে ফরিদগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মো. বিল্লাল হোসেন জানান, আগুনে পাঁচটি দোকান পুড়ে গেছে। আমরা খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হই। তবে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে ধারনা করা হচ্ছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ক্যাব চাঁদপুরের আয়োজনে বাজার পরিস্থিতি ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক মত বিনিময় সভা

ফরিদগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ৫ দোকান পুড়ে ছাঁই

আপডেট সময় : ০২:২৭:০৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২

এস. এম ইকবাল : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার লতিফগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ অগ্নীকান্ডে পাঁচটি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই গেছে।
২৯ জুন বুধবার বেলা ৩টার দিকে উপজেলার গুপ্টি পশ্চিম ইউনিয়নের লতিফগঞ্জ বাজারে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ ও রামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ২ টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন।

Model Hospital

এ সময় উত্তম চন্দ্র কুরির (স্বর্নের দোকান), নেছার আহমেদের (মুদি দোকান), আক্কাছ আলীর (ফার্নিচারের দোকান), মুক্তারের ও মনিরের (চায়ের দোকান)। তারা জানান, অগ্নিকান্ডে তাদের আনুমানিক ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা জানায়, দুপুরে দোকান বন্ধ করে তারা খাবার খেতে বাড়িতে যায়। হঠাৎ বাজারে চিৎকার শুনে দৌড়ে এসে আগুনে দোকান পুড়তে দেখে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীদের প্রচেষ্টায় আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

অগ্নিকান্ডের ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমুন নেছা ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. বুলবুল আহম্মেদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অগ্নিকান্ডের বিষয়ে ফরিদগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মো. বিল্লাল হোসেন জানান, আগুনে পাঁচটি দোকান পুড়ে গেছে। আমরা খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হই। তবে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে ধারনা করা হচ্ছে।