ঢাকা ০৪:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মতলব উত্তরে কান্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় মাঠ দিবস

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুর মতলব উত্তর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে কান্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় মাদ্রাজী ওলকচু’র চাষের উপর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Model Hospital

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, ব্যবসায়ী তাজুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মাহবুবুল হক, জাকির হোসেন মেম্বার, নাছিমা বেগম প্রমুখ।

পরে অতিথিবৃন্দ ওল কচু’র প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন। এসময় উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা, কৃষক-কৃষানীরা উপস্থিত ছিলেন।

চাঁদপুর মতলব উত্তর উপজেলায় কান্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় মাদ্রাজী ওলকচু ক্ষেত পরিদর্শন করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন।

কৃষানী নাছিমা বেগম বলেন, আগে তো বাড়ির আশপাশে দেশি জাতের ওলকচু চাষ করতাম। এবার মাদ্রাজী জাতের ওলকচু লাগিয়েছি। মাদ্রাজী ওলের ফলন ও গুণাগুণ বিষয়ে জানতে পেরে কৃষি অফিস থেকে বীজ সংগ্রহ করেছি। ২০ শতক জমিতে চাষ, নিড়ানী ও অন্যান্য বাবদ এ পর্যন্ত খরচ হয়েছে ছয় হাজার টাকা। ফসল তোলা পর্যন্ত আরও কিছু খরচ হবে। আশা করি আগামি ২-৩ মাসের মধ্যে ওলকচু সংগ্রহ করা যাবে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন বলেন, ওল একটি লাভজনক কন্দ জাতীয় সবজি। দেশের বিভিন্ন এলাকায় উন্নত জাতের ওলকচু চাষ করে অনেকে ভাগ্য বদলেছেন। আশা করি এ উপজেলার কৃষকরা ভালো ফলন এবং ভালো বাজার মূল্য পাবেন। এই অনুযায়ী কৃষি দপ্তরের কর্মীরা মাঠে নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শহীদ মিনারে শিশু-কিশোরা, শহীদদের ফুলেল শ্রদ্ধায় হৃদয়ে জাগরন সৃষ্টি

মতলব উত্তরে কান্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় মাঠ দিবস

আপডেট সময় : ০২:২২:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুর মতলব উত্তর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে কান্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় মাদ্রাজী ওলকচু’র চাষের উপর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Model Hospital

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, ব্যবসায়ী তাজুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মাহবুবুল হক, জাকির হোসেন মেম্বার, নাছিমা বেগম প্রমুখ।

পরে অতিথিবৃন্দ ওল কচু’র প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন। এসময় উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা, কৃষক-কৃষানীরা উপস্থিত ছিলেন।

চাঁদপুর মতলব উত্তর উপজেলায় কান্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় মাদ্রাজী ওলকচু ক্ষেত পরিদর্শন করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন।

কৃষানী নাছিমা বেগম বলেন, আগে তো বাড়ির আশপাশে দেশি জাতের ওলকচু চাষ করতাম। এবার মাদ্রাজী জাতের ওলকচু লাগিয়েছি। মাদ্রাজী ওলের ফলন ও গুণাগুণ বিষয়ে জানতে পেরে কৃষি অফিস থেকে বীজ সংগ্রহ করেছি। ২০ শতক জমিতে চাষ, নিড়ানী ও অন্যান্য বাবদ এ পর্যন্ত খরচ হয়েছে ছয় হাজার টাকা। ফসল তোলা পর্যন্ত আরও কিছু খরচ হবে। আশা করি আগামি ২-৩ মাসের মধ্যে ওলকচু সংগ্রহ করা যাবে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন বলেন, ওল একটি লাভজনক কন্দ জাতীয় সবজি। দেশের বিভিন্ন এলাকায় উন্নত জাতের ওলকচু চাষ করে অনেকে ভাগ্য বদলেছেন। আশা করি এ উপজেলার কৃষকরা ভালো ফলন এবং ভালো বাজার মূল্য পাবেন। এই অনুযায়ী কৃষি দপ্তরের কর্মীরা মাঠে নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছে।