ঢাকা ০৫:০০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আমার জীবনের শেষ বিন্দু জনগণের স্বার্থে উৎসর্গ করে দিব; মেজর রফিকুল ইসলাম

রাফিউ হাসান হামজা : চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার রহমানিয়া নুরিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার ৪তলা ভীত বিশিষ্ট ১তলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
১৯ নভেম্বর শনিবার সকালে রহমানিয়া নুরিয়া সুন্নীয়া মাদ্রাসার উদ্যোগে মাদ্রাসার মিলনায়তনে ভিত্তিপ্রস্তর  উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মহান মুক্তিযুদ্ধের ১নং সেক্টর কমাণ্ডার,সাবেক সফল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, চাঁদপুর-৫ (শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম, বীর উত্তম।
তিনি বলেন এই ভবনটি হলে শিক্ষকরা ছাত্র-ছাত্রীদেরকে একটি ভালো পরিবেশে লেখাপড়া করাতে পারবেন। ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য একটি ভালো পরিবেশ সৃষ্টি হবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই, শেখ হাসিনা না আসলে বাংলাদেশের যে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এই উন্নয়ন সম্ভব হতো না।
প্রাইমারি স্কুল, হাই স্কুল,মাদ্রাসা ভবন, একাডেমিক ভবনসহ  আমাদের দুইটি উপজেলায় প্রায় ৭শত ভবন নির্মিত হয়েছে, শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার দিকে মনোযোগী হবে। এই উপজেলা মাত্র ৬ কিলো পাকা রাস্তা ছিল, আজ প্রায় ৮শত কিলো পাকা রাস্তা করেছি। এছাড়াও এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। আমাদের আগে যারা ক্ষমতায় ছিলেন, রাষ্ট্রের দায়িত্ব ছিলেন এ কাজগুলো তাদের করা কথা ছিল, তারা করেন নাই বলেই আমাদের এত কষ্ট করে এত সময় ব্যয় করে আমাদের কাজগুলো করতে হয়েছে। তারা তাদের কাজগুলো করতে কেন ব্যর্থ হল, মানুষের এত কষ্ট করতে হচ্ছে। জনগণের কাছে প্রতিশ্রুতি দিয়ে, কোন ব্যক্তি যদি সেই প্রতিশ্রুতি না রাখে তাহলে মহান আল্লাহতালা তার উপরে অসন্তুষ্টি হন।  এই কাজগুলো করে আমি মনে আনন্দিত পাচ্ছি। আমি চেষ্টা করেছি, সেনাবাহিনীতে ছিলাম, যুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার ছিলাম, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ছিলাম, তিনটি কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ছিলাম আমি রাজনীতিতে ভোগবিলাসের জন্য আসি নাই।  আমি এখানে এসেছি আমার জীবনের শেষ বিন্দু জনগণের স্বার্থে উৎসর্গ করে দিব, সেই লক্ষ্যে আমি দিন রাত কাজ করে যাচ্ছি।
মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি এম  রেজাউর রহমানের সভাপতিত্বে ও টামটা উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদার হোসেন পাটোয়ারীর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান চৌধুরী শেফালী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হুমায়ন রশিদ, শাহরাস্তি থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মান্নান, পৌর মেয়র হাজী আব্দুল লতিফ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসার সুপার।
এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন টামটা উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান ওমর ফারুক দর্জি, উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক জেড এম আনোয়ার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুর রউফ দর্জি,  আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলামসহ মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য, শিক্ষক, অভিভাবক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শহীদ মিনারে শিশু-কিশোরা, শহীদদের ফুলেল শ্রদ্ধায় হৃদয়ে জাগরন সৃষ্টি

আমার জীবনের শেষ বিন্দু জনগণের স্বার্থে উৎসর্গ করে দিব; মেজর রফিকুল ইসলাম

আপডেট সময় : ০৩:৩১:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২২
রাফিউ হাসান হামজা : চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার রহমানিয়া নুরিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার ৪তলা ভীত বিশিষ্ট ১তলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
১৯ নভেম্বর শনিবার সকালে রহমানিয়া নুরিয়া সুন্নীয়া মাদ্রাসার উদ্যোগে মাদ্রাসার মিলনায়তনে ভিত্তিপ্রস্তর  উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মহান মুক্তিযুদ্ধের ১নং সেক্টর কমাণ্ডার,সাবেক সফল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, চাঁদপুর-৫ (শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম, বীর উত্তম।
তিনি বলেন এই ভবনটি হলে শিক্ষকরা ছাত্র-ছাত্রীদেরকে একটি ভালো পরিবেশে লেখাপড়া করাতে পারবেন। ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য একটি ভালো পরিবেশ সৃষ্টি হবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই, শেখ হাসিনা না আসলে বাংলাদেশের যে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এই উন্নয়ন সম্ভব হতো না।
প্রাইমারি স্কুল, হাই স্কুল,মাদ্রাসা ভবন, একাডেমিক ভবনসহ  আমাদের দুইটি উপজেলায় প্রায় ৭শত ভবন নির্মিত হয়েছে, শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার দিকে মনোযোগী হবে। এই উপজেলা মাত্র ৬ কিলো পাকা রাস্তা ছিল, আজ প্রায় ৮শত কিলো পাকা রাস্তা করেছি। এছাড়াও এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। আমাদের আগে যারা ক্ষমতায় ছিলেন, রাষ্ট্রের দায়িত্ব ছিলেন এ কাজগুলো তাদের করা কথা ছিল, তারা করেন নাই বলেই আমাদের এত কষ্ট করে এত সময় ব্যয় করে আমাদের কাজগুলো করতে হয়েছে। তারা তাদের কাজগুলো করতে কেন ব্যর্থ হল, মানুষের এত কষ্ট করতে হচ্ছে। জনগণের কাছে প্রতিশ্রুতি দিয়ে, কোন ব্যক্তি যদি সেই প্রতিশ্রুতি না রাখে তাহলে মহান আল্লাহতালা তার উপরে অসন্তুষ্টি হন।  এই কাজগুলো করে আমি মনে আনন্দিত পাচ্ছি। আমি চেষ্টা করেছি, সেনাবাহিনীতে ছিলাম, যুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার ছিলাম, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ছিলাম, তিনটি কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ছিলাম আমি রাজনীতিতে ভোগবিলাসের জন্য আসি নাই।  আমি এখানে এসেছি আমার জীবনের শেষ বিন্দু জনগণের স্বার্থে উৎসর্গ করে দিব, সেই লক্ষ্যে আমি দিন রাত কাজ করে যাচ্ছি।
মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি এম  রেজাউর রহমানের সভাপতিত্বে ও টামটা উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদার হোসেন পাটোয়ারীর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান চৌধুরী শেফালী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হুমায়ন রশিদ, শাহরাস্তি থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মান্নান, পৌর মেয়র হাজী আব্দুল লতিফ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসার সুপার।
এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন টামটা উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান ওমর ফারুক দর্জি, উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক জেড এম আনোয়ার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুর রউফ দর্জি,  আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলামসহ মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য, শিক্ষক, অভিভাবক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।