ঢাকা ০১:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হাইমচরে দূর্ঘটনায় আহত শিক্ষার্থীকে বোরহানের নগদ অর্থসহ চিকিৎসার দায়িত্ব বহন

গাজী মোঃ মহসিন : চাঁদপুরের সদর উপজেলার চান্দ্রা চৌরাস্তা নূরানী বিভাগের ছাত্র মুজাহিদ হোসেন (৯) গত ৬ ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যায় রাস্তা পারাপারের সময় সিএনজি চাপায় গুরুতর আহত হয়। দিনমজুর বাবার পক্ষে ছেলের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা সম্ভব হয়ে উঠেনি।
গত ১৫ দিন যাবৎ শিশু মুজাহিদ হোসেন বিনা চিকিৎসায় প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে চিৎকার করতে থাকে। অবুঝ সন্তানের অসহ্য ব্যথা আর কষ্ট সইতে না পেরে মুজাহিদের বাবা মোঃ রবিউল গাজী সাংবাদিক ও বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করেন।
পরে ঘটনাটি উল্লেখ করে অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অসহায় বাবার আর্তনাদ ও ছেলের চিকিৎসার খরচ যোগাতে সমাজের বিত্তবান মানুষের সাহায্য কামনা করেন। গত সপ্তাহে মুজাহিদকে কুমিল্লা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এক সময় মুজাহিদের বাবা সমাজের কয়েকজনের পরামর্শে যোগাযোগ করেন আওয়ামী মৎসজীবী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী মৎসজীবী লীগের সভাপতি ভয়েস বাংলা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সিটি নিয়ন গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনের নির্বাচনী এলাকার গরীব দুঃখী মানুষের বন্ধু ও জনপ্রিয় ব্যাক্তিত্ব আলহাজ্ব রেদওয়ান খান বোরহান এর সাথে। তিনিও তাৎক্ষণিক অসহায় বাবার আর্তনাদে সাড়া দিয়ে মুজাহিদের চিকিৎসা চালাতে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) নগদ ৫ হাজার টাকা পৌঁছে দেন। এবং মুজাহিদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন সেই সাথে চিকিৎসার সকল দায়-দায়িত্ব গ্রহণ করেন।
মুজাহিদের বাবা মোঃ রবিউল গাজী হাইমচর উপজেলার ২নং আলগী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের উত্তর বিঙ্গলিয়া গ্রামের হাইমচর উপজেলার ২নং আলগী উত্তর ইউনিয়নের মোহাম্মদিয়া হাফেজিয়া মাদ্রাসা সংলগ্ন গাজী বাড়ির বাসিন্দা। পেশায় সে একজন দিনমজুর।
অসুস্থ মুজাহিদের মা মরিয়ম বেগম জানান, আমার ছেলে অ্যাক্সিডেন্ট হওয়ার পরে আমি হতাশায় ছিলাম চিকিৎসা করতে পারবো কি পারবো না। পরে রেদোয়ান খান বোরহান সাহেব আমার ছেলের চিকিৎসার সকল ব্যয়ভার গ্রহণ করার সম্মতি দিলে আমাদের পরিবারে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে। আমি বোরহান সাহেবের জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া কামনা করি। এলাকাবাসী জানান, সিএনজিতে অ্যাক্সিডেন্ট হয়ে গেলে মুজাহিদের পরিবারে নেমে চরম হতাশা।
আমরা স্থানীয়ভাবে এলাকা থেকে চাঁদা কালেকশন করে মুজাহিদের প্রাথমিক চিকিৎসা করেছি। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে কুমিল্লায় প্রেরণ করা হয়। আমরা বিঙ্গলিয়াবাসী রেদোয়ান খান বোরহানকে তার এমন মানবিক কাজের জন্য আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রেদোয়ান খান বোরহান জানান, আমি গণমাধ্যমে দূর্ঘটনার বিষয়টি জেনে ও পরিবারের পক্ষ থেকে আমার সাথে যোগাযোগ করলে আমার সাধ্য অনুযায়ী অসহায় এই শিশু ছাত্রের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। এবং তার চিকিৎসার সকল খরচ বহনে থাকবে আমার সর্বাত্মক সহযোগিতা।
উল্লেখ্য, মানবতার সেবক ও বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ আলহাজ্ব রেদোয়ান খান বোরহান চাঁদপুর-হাইমচরের মানুষের সুখে দুঃখে পাশে থেকে সেবা করে যাচ্ছেন নিরলসভাবে। তিনি হাইমচর উপজেলার গত ইউপি নির্বাচনে এক প্রতিবন্ধী মেম্বার প্রার্থীকে একটি হুইল চেয়ার বিতরণ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। ঐ ব্যক্তি মূলত জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে একটি হুইল চেয়ার না পেয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন। এছাড়াও তিনি চলতি বছরের গত ২২ জানুয়ারি থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চাঁদপুর সদর ও হাইমচরের অসহায় মানুষের শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন করেন।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর বিজয়ের গান গাইলেন সুনামগঞ্জের সাংবাদিক রাজু

হাইমচরে দূর্ঘটনায় আহত শিক্ষার্থীকে বোরহানের নগদ অর্থসহ চিকিৎসার দায়িত্ব বহন

আপডেট সময় : ০৪:২৮:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২২
গাজী মোঃ মহসিন : চাঁদপুরের সদর উপজেলার চান্দ্রা চৌরাস্তা নূরানী বিভাগের ছাত্র মুজাহিদ হোসেন (৯) গত ৬ ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যায় রাস্তা পারাপারের সময় সিএনজি চাপায় গুরুতর আহত হয়। দিনমজুর বাবার পক্ষে ছেলের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা সম্ভব হয়ে উঠেনি।
গত ১৫ দিন যাবৎ শিশু মুজাহিদ হোসেন বিনা চিকিৎসায় প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে চিৎকার করতে থাকে। অবুঝ সন্তানের অসহ্য ব্যথা আর কষ্ট সইতে না পেরে মুজাহিদের বাবা মোঃ রবিউল গাজী সাংবাদিক ও বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করেন।
পরে ঘটনাটি উল্লেখ করে অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অসহায় বাবার আর্তনাদ ও ছেলের চিকিৎসার খরচ যোগাতে সমাজের বিত্তবান মানুষের সাহায্য কামনা করেন। গত সপ্তাহে মুজাহিদকে কুমিল্লা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এক সময় মুজাহিদের বাবা সমাজের কয়েকজনের পরামর্শে যোগাযোগ করেন আওয়ামী মৎসজীবী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী মৎসজীবী লীগের সভাপতি ভয়েস বাংলা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সিটি নিয়ন গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনের নির্বাচনী এলাকার গরীব দুঃখী মানুষের বন্ধু ও জনপ্রিয় ব্যাক্তিত্ব আলহাজ্ব রেদওয়ান খান বোরহান এর সাথে। তিনিও তাৎক্ষণিক অসহায় বাবার আর্তনাদে সাড়া দিয়ে মুজাহিদের চিকিৎসা চালাতে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) নগদ ৫ হাজার টাকা পৌঁছে দেন। এবং মুজাহিদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন সেই সাথে চিকিৎসার সকল দায়-দায়িত্ব গ্রহণ করেন।
মুজাহিদের বাবা মোঃ রবিউল গাজী হাইমচর উপজেলার ২নং আলগী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের উত্তর বিঙ্গলিয়া গ্রামের হাইমচর উপজেলার ২নং আলগী উত্তর ইউনিয়নের মোহাম্মদিয়া হাফেজিয়া মাদ্রাসা সংলগ্ন গাজী বাড়ির বাসিন্দা। পেশায় সে একজন দিনমজুর।
অসুস্থ মুজাহিদের মা মরিয়ম বেগম জানান, আমার ছেলে অ্যাক্সিডেন্ট হওয়ার পরে আমি হতাশায় ছিলাম চিকিৎসা করতে পারবো কি পারবো না। পরে রেদোয়ান খান বোরহান সাহেব আমার ছেলের চিকিৎসার সকল ব্যয়ভার গ্রহণ করার সম্মতি দিলে আমাদের পরিবারে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে। আমি বোরহান সাহেবের জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া কামনা করি। এলাকাবাসী জানান, সিএনজিতে অ্যাক্সিডেন্ট হয়ে গেলে মুজাহিদের পরিবারে নেমে চরম হতাশা।
আমরা স্থানীয়ভাবে এলাকা থেকে চাঁদা কালেকশন করে মুজাহিদের প্রাথমিক চিকিৎসা করেছি। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে কুমিল্লায় প্রেরণ করা হয়। আমরা বিঙ্গলিয়াবাসী রেদোয়ান খান বোরহানকে তার এমন মানবিক কাজের জন্য আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রেদোয়ান খান বোরহান জানান, আমি গণমাধ্যমে দূর্ঘটনার বিষয়টি জেনে ও পরিবারের পক্ষ থেকে আমার সাথে যোগাযোগ করলে আমার সাধ্য অনুযায়ী অসহায় এই শিশু ছাত্রের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। এবং তার চিকিৎসার সকল খরচ বহনে থাকবে আমার সর্বাত্মক সহযোগিতা।
উল্লেখ্য, মানবতার সেবক ও বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ আলহাজ্ব রেদোয়ান খান বোরহান চাঁদপুর-হাইমচরের মানুষের সুখে দুঃখে পাশে থেকে সেবা করে যাচ্ছেন নিরলসভাবে। তিনি হাইমচর উপজেলার গত ইউপি নির্বাচনে এক প্রতিবন্ধী মেম্বার প্রার্থীকে একটি হুইল চেয়ার বিতরণ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। ঐ ব্যক্তি মূলত জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে একটি হুইল চেয়ার না পেয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন। এছাড়াও তিনি চলতি বছরের গত ২২ জানুয়ারি থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চাঁদপুর সদর ও হাইমচরের অসহায় মানুষের শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন করেন।