ঢাকা ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর ভস্মিভূত 

  • এস. এম ইকবাল
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৬:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩
  • 316
ফরিদগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর পুড়ে ছাই, দিশেহারা পরিবারের লোকজন। পড়নের পোশাক ছাড়া কিছুই অবশিষ্ট রইল না।
২৯ এপ্রিল রোববার রাত আনুমানিক ৮ টার সময় উপজেলার গুপ্টি পূর্ব ইউনিয়নের ডুমুরিয়া এলাকার জমদ্দার বাড়ির আব্দুল মালেকের বসত ঘরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে মহুতের মধ্যেই সম্পূর্ণ ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ শুনে ফরিদগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ঘটনাস্থলে পৌঁছার পূর্বেই স্থানিয়রা নিজ প্রচেষ্টায় আগুন নিভিয়ে ফেলে।
অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার এসআই একরামুল হক সোহাগ সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে জানতে চাইলে ঘরের মালিক আব্দুল মালেক জানান, আমি সন্ধ্যায় গল্লাক বাজারে চা খেতে গিয়েছি এবং আমার স্ত্রী ও পাশের বাড়িতে যায়। কিন্তু কি করে যে আমার ঘরে আগুন লেগেছে তা আমি জানিনা। তিনি হাউ মাউ করে কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমার ও স্ত্রীর পড়নের কাপড় ছাড়া আর কিছুই রইলো না, আমি এখন কি করব। আমার তিল তিল করে গড়ানো সংসার পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
ঘরে নগদ টাকা স্বর্ন অলংকার আসবাবপত্রসহ প্রায় ৮ থেকে ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয় হয়েছে ঘরের মালিক আব্দুল মালেক জানিয়েছেন।
ফরিদগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ কামরুল হাসান জানান, অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ শুনে আমার ঘটনাস্থলে যাওয়ার পূর্বেই স্থানিয়রা আগুন নিভিয়ে ফেলে। আগুনে সূত্রপাতের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ধারণা করা যাচ্ছে  বিদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে।
অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ শুনে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান পাটওয়ারী ও ইউপি সদস্য ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরের তিন উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা কে কত ভোট পেলেন

ফরিদগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর ভস্মিভূত 

আপডেট সময় : ০৫:৪৬:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩
ফরিদগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর পুড়ে ছাই, দিশেহারা পরিবারের লোকজন। পড়নের পোশাক ছাড়া কিছুই অবশিষ্ট রইল না।
২৯ এপ্রিল রোববার রাত আনুমানিক ৮ টার সময় উপজেলার গুপ্টি পূর্ব ইউনিয়নের ডুমুরিয়া এলাকার জমদ্দার বাড়ির আব্দুল মালেকের বসত ঘরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে মহুতের মধ্যেই সম্পূর্ণ ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ শুনে ফরিদগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ঘটনাস্থলে পৌঁছার পূর্বেই স্থানিয়রা নিজ প্রচেষ্টায় আগুন নিভিয়ে ফেলে।
অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার এসআই একরামুল হক সোহাগ সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে জানতে চাইলে ঘরের মালিক আব্দুল মালেক জানান, আমি সন্ধ্যায় গল্লাক বাজারে চা খেতে গিয়েছি এবং আমার স্ত্রী ও পাশের বাড়িতে যায়। কিন্তু কি করে যে আমার ঘরে আগুন লেগেছে তা আমি জানিনা। তিনি হাউ মাউ করে কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমার ও স্ত্রীর পড়নের কাপড় ছাড়া আর কিছুই রইলো না, আমি এখন কি করব। আমার তিল তিল করে গড়ানো সংসার পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
ঘরে নগদ টাকা স্বর্ন অলংকার আসবাবপত্রসহ প্রায় ৮ থেকে ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয় হয়েছে ঘরের মালিক আব্দুল মালেক জানিয়েছেন।
ফরিদগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ কামরুল হাসান জানান, অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ শুনে আমার ঘটনাস্থলে যাওয়ার পূর্বেই স্থানিয়রা আগুন নিভিয়ে ফেলে। আগুনে সূত্রপাতের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ধারণা করা যাচ্ছে  বিদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে।
অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ শুনে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান পাটওয়ারী ও ইউপি সদস্য ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।