ঢাকা ১১:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ছেংগারচর পৌরসভা নির্বাচন

লাগানো পোস্টার তুলে ফেলুন, নির্দেশনা রিটার্নিং কর্মকর্তার

মতলব উত্তর উপেজেলার ছেংগারচর পৌরসভা নির্বাচনে প্রচার শুরুর আগেই যারা পোস্টার লাগিয়েছেন, তা তুলে ফেলতে বলেছে চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন।

Model Hospital

আগামী ১৭ জুলাই নির্বাচন ইভিএম এ অনুষ্ঠিত হবে। ২৫ জুলাই মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ২৫ জুন, ২৬ জুন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে।

এই পরিস্থিতিতে যারা পোস্টার লাগিয়েছেন, তাদের নিজ খরচে প্রচারণামূলক এই সামগ্রী সরানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

প্রার্থীদের পোস্টার, ব্যানার, দেয়াল লিখন, বিলবোর্ড, গেইট, তোরণ বা ঘের, প্যান্ডেল ও আলোকসজ্জা ইত্যাদি প্রচার সামগ্রী ও নির্বাচনী ক্যাম্প থাকলে সেগুলো অপসারণ করার জন্যনির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

এ লক্ষ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচার সামগ্রী থাকলে তা মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ রাত ১২টার পূর্বে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদেরকে নিজ খরচে অপসারণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিভিন্ন স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম নেয়ার কথা থাকলেও বাস্তবায়ন হয়নি।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন এরই মধ্যে স্বউদ্যোগে প্রচারণামূলক সামগ্রী সরানোর আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, প্রতীক বরাদ্দের পরই আনুষ্ঠানিক প্রচারে যেতে পারবেন প্রার্থীরা।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন জানান, প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা মাঠে ও বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার করতে পারবেন। তবে কোনো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে প্রচার চালাতে পারবেন না।

ট্যাগস :

ছেংগারচর পৌরসভা নির্বাচন

লাগানো পোস্টার তুলে ফেলুন, নির্দেশনা রিটার্নিং কর্মকর্তার

আপডেট সময় : ০৩:১২:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩

মতলব উত্তর উপেজেলার ছেংগারচর পৌরসভা নির্বাচনে প্রচার শুরুর আগেই যারা পোস্টার লাগিয়েছেন, তা তুলে ফেলতে বলেছে চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন।

Model Hospital

আগামী ১৭ জুলাই নির্বাচন ইভিএম এ অনুষ্ঠিত হবে। ২৫ জুলাই মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ২৫ জুন, ২৬ জুন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে।

এই পরিস্থিতিতে যারা পোস্টার লাগিয়েছেন, তাদের নিজ খরচে প্রচারণামূলক এই সামগ্রী সরানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

প্রার্থীদের পোস্টার, ব্যানার, দেয়াল লিখন, বিলবোর্ড, গেইট, তোরণ বা ঘের, প্যান্ডেল ও আলোকসজ্জা ইত্যাদি প্রচার সামগ্রী ও নির্বাচনী ক্যাম্প থাকলে সেগুলো অপসারণ করার জন্যনির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

এ লক্ষ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচার সামগ্রী থাকলে তা মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ রাত ১২টার পূর্বে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদেরকে নিজ খরচে অপসারণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিভিন্ন স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম নেয়ার কথা থাকলেও বাস্তবায়ন হয়নি।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন এরই মধ্যে স্বউদ্যোগে প্রচারণামূলক সামগ্রী সরানোর আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, প্রতীক বরাদ্দের পরই আনুষ্ঠানিক প্রচারে যেতে পারবেন প্রার্থীরা।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন জানান, প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা মাঠে ও বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার করতে পারবেন। তবে কোনো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে প্রচার চালাতে পারবেন না।