ঢাকা ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে ৫শ’ ৪২টি ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ, ভোটের মাঠে থাকবে ১১ হাজার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চাঁদপুরের ৫টি নির্বাচনী আসনে অতিগুরুত্বপূর্ণ অর্থাৎ ঝুঁকিপূর্ণ ৫৪২টি কেন্দ্র চিহ্নিত করেছে পুলিশ। এইসব ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রসহ মোট ৭০০ কেন্দ্রের নিরাপত্তা ও সুষ্ঠু ভোট উৎসব উপহার দিতে প্রায় ১১ হাজার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য একযোগে কাজ করতে নিয়োজিত রয়েছেন।

Model Hospital

শনিবার (৬ জানুয়ারি) বিকেলে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় হতে এসব তথ্য জানা যায়।

পুলিশ সুপার পদোন্নতিপ্রাপ্ত চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায় বলেন, আমরা সদরে ৭০টিসহ মোট ৫৪২টি অতিগুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র চিহ্নিত করে কর্মপরিকল্পনা সাজিয়েছি। সুন্দরভাবে ভোট উৎসবের জন্য এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ২ হাজারের বেশি পুলিশ সদস্য টিমভিত্তিক হয়ে একযোগে কাজ করছে।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এবার জেলার ৫ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ২১ লাখ ৫৬ হাজার ৬০৯। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১১ লাখ ১২ হাজার ৫৭৭ এবং নারী ভোটার ১০ লাখ ৪৪ হাজার ৩২ জন। জেলা মোট ভোটকেন্দ্র সংখ্যা ৭০০টি। যেখানে মোট ভোট কক্ষ ৪ হাজার ২৬৪টি এবং স্থায়ী কক্ষ ৪ হাজার ৮৭টি এবং অস্থায়ী ১৭৭টি। আসনগুলোতে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনীত প্রার্থী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ৫টি আসনের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩০ জন।

চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) এ এস এম মোসা বলেন, নির্বাচনের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে ৫টি আসনে সেনাবাহিনী ১০ প্লাটুন, বিজিবি ১৪ প্লাটুন, র‌্যাব ৫ প্লাটুন এবং প্রত্যেক কেন্দ্রে আনসার ও বিডিপির স্ট্রাইকিং ফোর্স দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়াও সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজেস্ট্রেট ৩০ জন এবং ১০ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবে।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তোফায়েল আহমেদ বলেন, সদর হাইমচর চাঁদপুর-৩ আসনের ১৬৫ কেন্দ্রের মধ্যে চরাঞ্চলের ১৮ কেন্দ্র এবং চাঁদপুর-২ মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ আসনের ২টিসহ মোট ২০টি কেন্দ্রে ব্যালট পেপারসহ নির্বাচনী সব সামগ্রী যাচ্ছে। বাকি কেন্দ্রে ভোটের দিন সকালে ব্যালট পেপার যাবে।

চাঁদপুর জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে জেলার ৫টি আসনে পুলিশ সদস্যরা কাজ করছে। যথেষ্ট পরিমাণ পুলিশ বাহিনী মোতায়েন আছে। এখন পর্যন্ত জেলায় বড় ধরনের কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

চাঁদপুর জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান বলেন, নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নির্দেশিত নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা প্রতিপালনের মাধ্যমে নির্বাচন উৎসবমুখর পরিবেশে ও শান্তিপূর্ণভাবে অবাধ, সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করার সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত আছে। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে ১১ হাজারেরও বেশি সদস্য নিয়োজিত রয়েছে। প্রত্যেকটি আসনের নির্বাচন সংশ্লিষ্টদের নির্বাচন বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও সার্বিক দিকনির্দেশনা দেওয়া সম্পন্ন হয়ে গেছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে অটো চালকের মৃত্যু

চাঁদপুরে ৫শ’ ৪২টি ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ, ভোটের মাঠে থাকবে ১১ হাজার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য

আপডেট সময় : ০৮:৩০:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চাঁদপুরের ৫টি নির্বাচনী আসনে অতিগুরুত্বপূর্ণ অর্থাৎ ঝুঁকিপূর্ণ ৫৪২টি কেন্দ্র চিহ্নিত করেছে পুলিশ। এইসব ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রসহ মোট ৭০০ কেন্দ্রের নিরাপত্তা ও সুষ্ঠু ভোট উৎসব উপহার দিতে প্রায় ১১ হাজার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য একযোগে কাজ করতে নিয়োজিত রয়েছেন।

Model Hospital

শনিবার (৬ জানুয়ারি) বিকেলে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় হতে এসব তথ্য জানা যায়।

পুলিশ সুপার পদোন্নতিপ্রাপ্ত চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায় বলেন, আমরা সদরে ৭০টিসহ মোট ৫৪২টি অতিগুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র চিহ্নিত করে কর্মপরিকল্পনা সাজিয়েছি। সুন্দরভাবে ভোট উৎসবের জন্য এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ২ হাজারের বেশি পুলিশ সদস্য টিমভিত্তিক হয়ে একযোগে কাজ করছে।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এবার জেলার ৫ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ২১ লাখ ৫৬ হাজার ৬০৯। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১১ লাখ ১২ হাজার ৫৭৭ এবং নারী ভোটার ১০ লাখ ৪৪ হাজার ৩২ জন। জেলা মোট ভোটকেন্দ্র সংখ্যা ৭০০টি। যেখানে মোট ভোট কক্ষ ৪ হাজার ২৬৪টি এবং স্থায়ী কক্ষ ৪ হাজার ৮৭টি এবং অস্থায়ী ১৭৭টি। আসনগুলোতে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনীত প্রার্থী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ৫টি আসনের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩০ জন।

চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) এ এস এম মোসা বলেন, নির্বাচনের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে ৫টি আসনে সেনাবাহিনী ১০ প্লাটুন, বিজিবি ১৪ প্লাটুন, র‌্যাব ৫ প্লাটুন এবং প্রত্যেক কেন্দ্রে আনসার ও বিডিপির স্ট্রাইকিং ফোর্স দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়াও সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজেস্ট্রেট ৩০ জন এবং ১০ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবে।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তোফায়েল আহমেদ বলেন, সদর হাইমচর চাঁদপুর-৩ আসনের ১৬৫ কেন্দ্রের মধ্যে চরাঞ্চলের ১৮ কেন্দ্র এবং চাঁদপুর-২ মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ আসনের ২টিসহ মোট ২০টি কেন্দ্রে ব্যালট পেপারসহ নির্বাচনী সব সামগ্রী যাচ্ছে। বাকি কেন্দ্রে ভোটের দিন সকালে ব্যালট পেপার যাবে।

চাঁদপুর জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে জেলার ৫টি আসনে পুলিশ সদস্যরা কাজ করছে। যথেষ্ট পরিমাণ পুলিশ বাহিনী মোতায়েন আছে। এখন পর্যন্ত জেলায় বড় ধরনের কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

চাঁদপুর জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান বলেন, নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নির্দেশিত নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা প্রতিপালনের মাধ্যমে নির্বাচন উৎসবমুখর পরিবেশে ও শান্তিপূর্ণভাবে অবাধ, সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করার সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত আছে। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে ১১ হাজারেরও বেশি সদস্য নিয়োজিত রয়েছে। প্রত্যেকটি আসনের নির্বাচন সংশ্লিষ্টদের নির্বাচন বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও সার্বিক দিকনির্দেশনা দেওয়া সম্পন্ন হয়ে গেছে।