ঢাকা ০৭:০২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মতলব দক্ষিণে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উদ্যাপন

মতলব দক্ষিণে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ১০৪ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদ্যাপন করা হয়েছে।

Model Hospital

বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানে দিবসটি পালন করা হয়।

রবিবার (১৭ মার্চ) সকাল ১১ টায় উপজেলার কালিয়াইশ ইসলামিয়া ফাযিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ১০৪ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মুনাজাতের আয়োজন করা হয়।

মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. ইউনুছ আলীর সভাপতিত্বে এবং ইংরেজী প্রভাষক ফয়জুল্লাহ পাভেলের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম, বাংলা প্রভাষক শাহ মিরান, সহকারি অধ্যাপক মফিজুল ইসলাম, সহকারি শিক্ষক মনির হোসেন ফয়েজি প্রমুখ। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. ইউনুছ আলী।

নারায়ণপুর পপুলার উচ্চ বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং সহকারি শিক্ষক কাজী জহিরুল ইসলামের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক সুভাষ চন্দ্র, শাহ আলম বিএসসি, মিজানুর রহমান, মোস্তফা কামাল, নেছার উদ্দিন, ইমরুল কায়েস তারেক প্রমুখ। আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক জিয়াউর রহমান।

এদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে দোয়া মুনাজাত, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরণের আয়োজন করেছেন লাকশিবপুর ফিরোজা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়।

আলোচনা সভায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাছির উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং সহকারি শিক্ষক আবুল কাশেম ও ইব্রাহিম সরকারের যৌথ উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. মিজানুর রহমান, সহকারি শিক্ষক জহিরুল ইসলাম বিএসসি, রোকসানা আক্তার, নিরতী রানী রায়, জহির রায়হান প্রমুখ।

দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক মাহবুবুল আলম। পরে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে মাদরাসাতু মুহাম্মদ সাঃ উদ্বোধন

মতলব দক্ষিণে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উদ্যাপন

আপডেট সময় : ১২:৪০:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০২৪

মতলব দক্ষিণে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ১০৪ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদ্যাপন করা হয়েছে।

Model Hospital

বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানে দিবসটি পালন করা হয়।

রবিবার (১৭ মার্চ) সকাল ১১ টায় উপজেলার কালিয়াইশ ইসলামিয়া ফাযিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ১০৪ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মুনাজাতের আয়োজন করা হয়।

মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. ইউনুছ আলীর সভাপতিত্বে এবং ইংরেজী প্রভাষক ফয়জুল্লাহ পাভেলের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম, বাংলা প্রভাষক শাহ মিরান, সহকারি অধ্যাপক মফিজুল ইসলাম, সহকারি শিক্ষক মনির হোসেন ফয়েজি প্রমুখ। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. ইউনুছ আলী।

নারায়ণপুর পপুলার উচ্চ বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং সহকারি শিক্ষক কাজী জহিরুল ইসলামের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক সুভাষ চন্দ্র, শাহ আলম বিএসসি, মিজানুর রহমান, মোস্তফা কামাল, নেছার উদ্দিন, ইমরুল কায়েস তারেক প্রমুখ। আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক জিয়াউর রহমান।

এদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে দোয়া মুনাজাত, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরণের আয়োজন করেছেন লাকশিবপুর ফিরোজা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়।

আলোচনা সভায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাছির উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং সহকারি শিক্ষক আবুল কাশেম ও ইব্রাহিম সরকারের যৌথ উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. মিজানুর রহমান, সহকারি শিক্ষক জহিরুল ইসলাম বিএসসি, রোকসানা আক্তার, নিরতী রানী রায়, জহির রায়হান প্রমুখ।

দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক মাহবুবুল আলম। পরে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।