ঢাকা ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় দিনব্যাপী প্রাণী সম্পদ প্রদর্শনী

দিনব্যাপী প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করেন কচুয়া পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপন।

মো. রাছেল : ‘পুষ্টি, মেধা, দারিদ্র বিমোচন প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীর আয়োজন’ শীর্ষক স্লোগানে প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্প (এলডিডিপি) প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আওতায় কচুয়া উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের আয়োজনে দিনব্যাপী প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের মাঠে আয়োজিত এই প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন কচুয়া পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপন। এসময় তিনি বলেন, এই প্রথম প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের সামনে চমৎকার একটি প্রদর্শনীর আয়োজন খুবই প্রশংসার দাবী রাখে। এমনি প্রদর্শনীর কারনে বিভিন্ন প্রজাতির গবাদি পশু ও পাখি পালনে মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি হবে।

Model Hospital

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. সাওকাত হোসেন সুমনের সভাপতিত্বে ও প্রাণিসম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ডা. এইচ এম জামশেদ আজাদের আলমের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব আলম , উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. ইবনে আল জায়েদ হোসেন, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মাসুদুল আলম, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মাহবুব উল আলম, প্রাণিসম্পদ ভেটেরিনারি কর্মকর্তা নেয়ামত উল্লাহ ও ভেটেরিনারি সার্জন ডা. আমেনা বেগম, ডা. দিলরুবা সাথী প্রমূখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কচুয়া বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা সমিতির সভাপতি জাকির হোসেন, উপ-সহকারী প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা আঃ হান্নান, অফিস সহায়ক মো. শাহাবউদ্দীন, ড্রেসার মো. জয়নাল মিয়াসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা,কর্মচারী ও খামারীবৃন্দ।
উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. সাওকাত হোসেন সুমন বলেন, “প্রাণিসম্পদের উৎপাদন বৃদ্ধি, দুগ্ধজাত পণ্যের বাজার সৃষ্টি, জনসাধারণের জন্য নিরাপদ প্রাণিজ আমিষ সরবরাহ” নিশ্চিতের লক্ষ্যে প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তর নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে আর এরই ধারাবাহিকতায় এই প্রদর্শনীর আয়োজন।

প্রদর্শনীতে ৩৬টি স্টলের ৩টি স্টলে প্রাণি সম্পদের সংশ্লিষ্ট ওষুধ কোম্পানির ওষুধ ও বাকী স্টলে বিভিন্ন প্রজাতির উন্নত প্রজাতির গরু, ছাগল, ঘোড়া, মহিষ, ভেড়া, হাঁস, মুরগি, তিতির, কোয়েল, কবুতর, টার্কি, ময়না পাখি, ছুটকি শালিকসহ দৃষ্টিনন্দন পোষা প্রাণি ও পাখি ছিল নজরকাড়ার মত । দিনব্যাপী প্রদর্শনীতে প্রান্তিক পর্যায়ের খামারীদের মধ্যে বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তিতে নিজের পায়ুপথে ৬ ইঞ্চি ডাব প্রবেশ করিয়ে বিপাকে যুবক

কচুয়ায় দিনব্যাপী প্রাণী সম্পদ প্রদর্শনী

আপডেট সময় : ০১:০৮:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২২

মো. রাছেল : ‘পুষ্টি, মেধা, দারিদ্র বিমোচন প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীর আয়োজন’ শীর্ষক স্লোগানে প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্প (এলডিডিপি) প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আওতায় কচুয়া উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের আয়োজনে দিনব্যাপী প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের মাঠে আয়োজিত এই প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন কচুয়া পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপন। এসময় তিনি বলেন, এই প্রথম প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের সামনে চমৎকার একটি প্রদর্শনীর আয়োজন খুবই প্রশংসার দাবী রাখে। এমনি প্রদর্শনীর কারনে বিভিন্ন প্রজাতির গবাদি পশু ও পাখি পালনে মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি হবে।

Model Hospital

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. সাওকাত হোসেন সুমনের সভাপতিত্বে ও প্রাণিসম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ডা. এইচ এম জামশেদ আজাদের আলমের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব আলম , উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. ইবনে আল জায়েদ হোসেন, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মাসুদুল আলম, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মাহবুব উল আলম, প্রাণিসম্পদ ভেটেরিনারি কর্মকর্তা নেয়ামত উল্লাহ ও ভেটেরিনারি সার্জন ডা. আমেনা বেগম, ডা. দিলরুবা সাথী প্রমূখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কচুয়া বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা সমিতির সভাপতি জাকির হোসেন, উপ-সহকারী প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা আঃ হান্নান, অফিস সহায়ক মো. শাহাবউদ্দীন, ড্রেসার মো. জয়নাল মিয়াসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা,কর্মচারী ও খামারীবৃন্দ।
উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. সাওকাত হোসেন সুমন বলেন, “প্রাণিসম্পদের উৎপাদন বৃদ্ধি, দুগ্ধজাত পণ্যের বাজার সৃষ্টি, জনসাধারণের জন্য নিরাপদ প্রাণিজ আমিষ সরবরাহ” নিশ্চিতের লক্ষ্যে প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তর নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে আর এরই ধারাবাহিকতায় এই প্রদর্শনীর আয়োজন।

প্রদর্শনীতে ৩৬টি স্টলের ৩টি স্টলে প্রাণি সম্পদের সংশ্লিষ্ট ওষুধ কোম্পানির ওষুধ ও বাকী স্টলে বিভিন্ন প্রজাতির উন্নত প্রজাতির গরু, ছাগল, ঘোড়া, মহিষ, ভেড়া, হাঁস, মুরগি, তিতির, কোয়েল, কবুতর, টার্কি, ময়না পাখি, ছুটকি শালিকসহ দৃষ্টিনন্দন পোষা প্রাণি ও পাখি ছিল নজরকাড়ার মত । দিনব্যাপী প্রদর্শনীতে প্রান্তিক পর্যায়ের খামারীদের মধ্যে বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে।