ঢাকা ০৬:৩৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে মেয়ে সেজে বোরকা পরা ‘জিনের বাদশাকে’ গণধোলাই

চাঁদপুরে গভীর রাতে মেয়ে সেজে বোরকা পরে বিচরণ করার সময় চোর ভেবে কথিত এক জিনের বাদশাকে গণধোলাই দিয়েছে এলাকাবাসী।

Model Hospital

১৯ মার্চ রাত ২টার দিকে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০ নং লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়ন বহরিয়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে। কথিত জিনের বাদশা সোহাগ বহরিয়া এলাকার মো. খোকন ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে সোহাগ দীর্ঘদিন যাবৎ কবিরাজি ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। জ্বীন ছুটানো, বান টোনা ও বিভিন্ন রোগের সমস্যা সমাধান করে দেওয়ার কথা বলে সোহাগ কবিরাজি করে আসছে।

ঘটনার রাতে মেয়ে সেজে বোরকা পরে জিনের বেশ ধরে বাজারের দোকানের পিছন দিয়ে যাওয়ার সময় চোর ভেবে স্থানীয় এলাকাবাসী ধাওয়া দেয়। দীর্ঘ এক ঘন্টা প্রচেষ্টার পর অবশেষে এই জিনের বাদশা সোহাগকে ধরে গণধোলাই দেয়। পরে তার কাছ থেকে কবিরাজি তাবিজ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, সোহাগ এভাবেই জিনের বাদশা সেজে কবিরাজি করে সাধারণ মানুষদের ধোকা দিয়ে আসছে। সাধারণ অসহায় মানুষ তার কাছে প্রতারিত হচ্ছে। এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবী জানান ভুক্তভোগীরা।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

স্কুলের শ্রেণিকক্ষে ‘আপত্তিকর’ অবস্থায় ছাত্রীসহ প্রধান শিক্ষক আটক

চাঁদপুরে মেয়ে সেজে বোরকা পরা ‘জিনের বাদশাকে’ গণধোলাই

আপডেট সময় : ১০:০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২১ মার্চ ২০২২

চাঁদপুরে গভীর রাতে মেয়ে সেজে বোরকা পরে বিচরণ করার সময় চোর ভেবে কথিত এক জিনের বাদশাকে গণধোলাই দিয়েছে এলাকাবাসী।

Model Hospital

১৯ মার্চ রাত ২টার দিকে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০ নং লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়ন বহরিয়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে। কথিত জিনের বাদশা সোহাগ বহরিয়া এলাকার মো. খোকন ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে সোহাগ দীর্ঘদিন যাবৎ কবিরাজি ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। জ্বীন ছুটানো, বান টোনা ও বিভিন্ন রোগের সমস্যা সমাধান করে দেওয়ার কথা বলে সোহাগ কবিরাজি করে আসছে।

ঘটনার রাতে মেয়ে সেজে বোরকা পরে জিনের বেশ ধরে বাজারের দোকানের পিছন দিয়ে যাওয়ার সময় চোর ভেবে স্থানীয় এলাকাবাসী ধাওয়া দেয়। দীর্ঘ এক ঘন্টা প্রচেষ্টার পর অবশেষে এই জিনের বাদশা সোহাগকে ধরে গণধোলাই দেয়। পরে তার কাছ থেকে কবিরাজি তাবিজ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, সোহাগ এভাবেই জিনের বাদশা সেজে কবিরাজি করে সাধারণ মানুষদের ধোকা দিয়ে আসছে। সাধারণ অসহায় মানুষ তার কাছে প্রতারিত হচ্ছে। এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবী জানান ভুক্তভোগীরা।