ঢাকা ১০:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হাজীগঞ্জে কার ছায়াতলে থেকে মেয়র ও কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে অপ-প্রচার চালাচ্ছেন নারী মিনু?

নিজস্ব প্রতিনিধি : প্রকৃত ঘটনায় আড়াল করে এবং সে ঘটনায় তার বিপক্ষে যাওয়াই এখন মেয়র আ.স.ম মাহবুবু-উল আলম লিপন ও ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজী মনির হোসেনের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপ-প্রচার চালিয়ে আসছেন।
এমন ঘটনায় ওই নারী কাউন্সিলর মিনু আক্তার অপ-প্রচার অব্যাহত রেখেছেন। কার ছায়াতলে থেকে মেয়র ও কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে এসব কুৎসা রটাচ্ছেন মিনু আক্তার? সে জবাব মিনু আক্তার শেষ পর্যন্ত জনসাধারণের নিকট দিতে হবে।
বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বরে) বিকেলে হাজীগঞ্জ পৌর ৭ ও ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে এমন কথা বলেন পৌর পরিষদের কাউন্সিলর ও স্থানীয়রা।
সাংবাদিক সম্মেলনের শুরুতে বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর ও স্থানীয় লোকজন।
তারা বলেন, অনতিবিলম্বে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর মিনু আক্তার যেন সে যে বক্তব্য ফেসবুকে দিয়েছেন অতিদ্রুত যেন প্রত্যাহার করে নেন এবং সকলের নিকট ক্ষমা চেয়ে পৌর পরিষদে ফিরে আসেন। পরিশষে আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। পরে সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কাউন্সিলর কাজী মনির খান।
সাংবাদিক সম্মেলনে প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তব্য দেন, ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আলহাজ্ব কাজী কবির হোসেন, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আজাদ হোসেন মজুমদার, সংরক্ষিত কাউন্সিলর নুর জাহান বেগম মুক্তা, ৭নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর সিরাজ খান, এমরান হোসেন মুন্সী, পৌর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি কাজী মনির হোসেন মিঠু, সাংগঠনিক সম্পাদক আহসান উল্ল্যাহ মৃর্ধা।
ওই সময় অন্যান্য কাউন্সিলর, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশন’র চাঁদপুর জেলা শাখার উদ্যোক্তা মিটআপ

হাজীগঞ্জে কার ছায়াতলে থেকে মেয়র ও কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে অপ-প্রচার চালাচ্ছেন নারী মিনু?

আপডেট সময় : ০৩:৪৯:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ নভেম্বর ২০২২
নিজস্ব প্রতিনিধি : প্রকৃত ঘটনায় আড়াল করে এবং সে ঘটনায় তার বিপক্ষে যাওয়াই এখন মেয়র আ.স.ম মাহবুবু-উল আলম লিপন ও ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজী মনির হোসেনের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপ-প্রচার চালিয়ে আসছেন।
এমন ঘটনায় ওই নারী কাউন্সিলর মিনু আক্তার অপ-প্রচার অব্যাহত রেখেছেন। কার ছায়াতলে থেকে মেয়র ও কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে এসব কুৎসা রটাচ্ছেন মিনু আক্তার? সে জবাব মিনু আক্তার শেষ পর্যন্ত জনসাধারণের নিকট দিতে হবে।
বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বরে) বিকেলে হাজীগঞ্জ পৌর ৭ ও ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে এমন কথা বলেন পৌর পরিষদের কাউন্সিলর ও স্থানীয়রা।
সাংবাদিক সম্মেলনের শুরুতে বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর ও স্থানীয় লোকজন।
তারা বলেন, অনতিবিলম্বে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর মিনু আক্তার যেন সে যে বক্তব্য ফেসবুকে দিয়েছেন অতিদ্রুত যেন প্রত্যাহার করে নেন এবং সকলের নিকট ক্ষমা চেয়ে পৌর পরিষদে ফিরে আসেন। পরিশষে আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। পরে সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কাউন্সিলর কাজী মনির খান।
সাংবাদিক সম্মেলনে প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তব্য দেন, ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আলহাজ্ব কাজী কবির হোসেন, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আজাদ হোসেন মজুমদার, সংরক্ষিত কাউন্সিলর নুর জাহান বেগম মুক্তা, ৭নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর সিরাজ খান, এমরান হোসেন মুন্সী, পৌর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি কাজী মনির হোসেন মিঠু, সাংগঠনিক সম্পাদক আহসান উল্ল্যাহ মৃর্ধা।
ওই সময় অন্যান্য কাউন্সিলর, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।