ঢাকা ১২:৫১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

থানায় অভিযোগ দিয়েও আতঙ্কিত প্রতিবন্ধী পরিবার

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তর উপজেলায় বখাটে ও মাদকসেবী দ্বারা প্রতিবন্ধী মাসুদ রানা নির্যাতিত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। মতলব উত্তর থানার নেদামদী বরইকান্দি গ্রামের বাসিন্দা জিসান মিজি ও জাহাঙ্গীর মিজির বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে ভুক্তভোগী প্রতিবন্ধী মাসদ রানা মতলভ উত্তর থানায় অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে নির্যাতিত শারীরিক প্রতিবন্ধী মাসুদ রানা ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে।

Model Hospital

ভুক্তভোগী মাসুদ রানা বলেন, আমাদেরকে রাস্তা ঘাটে, হাটে বাজারে’সহ বাড়ীর উঠানে পর্যন্ত এসে গালমন্দ, বাড়ীতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ’সহ ক্ষতি করতে থাকার এক পর্যায় ২৭ নভেম্বর দুপুর ২টায় আমি বাড়ী থেকে আমার দোকানের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিলে জাহাঙ্গীর মিজির হুকুমে জিসান মিজি’সহ অজ্ঞাত নামা ২/৩জন দাঙ্গাবাজ প্রকৃতির লোকজন নিয়ে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হাতে লাঠি সোটা, লোহার দাড়ালো দা, লোহার পাইপ ইত্যাদি দেশিয় অস্ত্রে সস্ত্র দিয়ে আমার পথরোধ করে। জিসান মিজি তাহার হাতে থাকা লোহার পাইপ দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথারী পিটাইয়া আমার হাতে, পায়ে, পিঠে, কোমড়ে, বাম চোখের পার্শ্বেসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তমূখা জখম করে।

তিনি আরো বলেন, স্কুটার থেকে মাটিতে পরিয়া গেলে, জিসান মিজি’সহ অজ্ঞাত নামা আসামীরা লাঠি সোটা দ্বারা আমাকে এলোপাথারী পিটাইয়া আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথা লক্ষ্য করে বারি মারলে, উক্ত বারি আমি আমার দুই হাতদ্বারা প্রতিহত করিতে গেলে, উক্ত বারি আমার ডান হাতে পরে, হাতের একটি আঙ্গুলে হাড় ভাঙ্গা জখম হয়।

প্রতিবন্ধী মাসুদ রানা বলেন, জিসান মিজি আমার সাথে থাকা বিকাশ ব্যবসার ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা জোর করে ছিনিয়ে নেয়। তারা আমার স্কুটার ও স্কুটারের মধ্যে থাকা ব্যবহৃত এনড্রোয়েট মোবাইল ফোন, ১টি ঘরি ভাংচুর করে ২০ হাজার টাকার ক্ষতি করে।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন বলেন, বিষয়টি দেখছি। জমি সম্পর্কে বিরোধে এমনটি হচ্ছে। একজন অফিসারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

ট্যাগস :

কেক কাটার মধ্য দিয়ে “প্রিয় চাঁদপুর” এর ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

থানায় অভিযোগ দিয়েও আতঙ্কিত প্রতিবন্ধী পরিবার

আপডেট সময় : ০১:০৯:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তর উপজেলায় বখাটে ও মাদকসেবী দ্বারা প্রতিবন্ধী মাসুদ রানা নির্যাতিত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। মতলব উত্তর থানার নেদামদী বরইকান্দি গ্রামের বাসিন্দা জিসান মিজি ও জাহাঙ্গীর মিজির বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে ভুক্তভোগী প্রতিবন্ধী মাসদ রানা মতলভ উত্তর থানায় অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে নির্যাতিত শারীরিক প্রতিবন্ধী মাসুদ রানা ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে।

Model Hospital

ভুক্তভোগী মাসুদ রানা বলেন, আমাদেরকে রাস্তা ঘাটে, হাটে বাজারে’সহ বাড়ীর উঠানে পর্যন্ত এসে গালমন্দ, বাড়ীতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ’সহ ক্ষতি করতে থাকার এক পর্যায় ২৭ নভেম্বর দুপুর ২টায় আমি বাড়ী থেকে আমার দোকানের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিলে জাহাঙ্গীর মিজির হুকুমে জিসান মিজি’সহ অজ্ঞাত নামা ২/৩জন দাঙ্গাবাজ প্রকৃতির লোকজন নিয়ে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হাতে লাঠি সোটা, লোহার দাড়ালো দা, লোহার পাইপ ইত্যাদি দেশিয় অস্ত্রে সস্ত্র দিয়ে আমার পথরোধ করে। জিসান মিজি তাহার হাতে থাকা লোহার পাইপ দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথারী পিটাইয়া আমার হাতে, পায়ে, পিঠে, কোমড়ে, বাম চোখের পার্শ্বেসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তমূখা জখম করে।

তিনি আরো বলেন, স্কুটার থেকে মাটিতে পরিয়া গেলে, জিসান মিজি’সহ অজ্ঞাত নামা আসামীরা লাঠি সোটা দ্বারা আমাকে এলোপাথারী পিটাইয়া আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথা লক্ষ্য করে বারি মারলে, উক্ত বারি আমি আমার দুই হাতদ্বারা প্রতিহত করিতে গেলে, উক্ত বারি আমার ডান হাতে পরে, হাতের একটি আঙ্গুলে হাড় ভাঙ্গা জখম হয়।

প্রতিবন্ধী মাসুদ রানা বলেন, জিসান মিজি আমার সাথে থাকা বিকাশ ব্যবসার ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা জোর করে ছিনিয়ে নেয়। তারা আমার স্কুটার ও স্কুটারের মধ্যে থাকা ব্যবহৃত এনড্রোয়েট মোবাইল ফোন, ১টি ঘরি ভাংচুর করে ২০ হাজার টাকার ক্ষতি করে।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন বলেন, বিষয়টি দেখছি। জমি সম্পর্কে বিরোধে এমনটি হচ্ছে। একজন অফিসারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।