ঢাকা ০৪:৩২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তরপুরচন্ডীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ; ইউএনও এবং ইউপি চেয়ারম্যানের ঘটনাস্থল পরিদর্শন

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর সদর উপজেলার তরপুরচন্ডী ইউনিয়নের সেনের দীঘির পাড় এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ২২ মার্চ বুধবার বিকেল ওই এলাকার গাজী বাড়িতে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

Model Hospital

অগ্নিকাণ্ডে ওই বাড়ির আনোয়ার গাজী এবং তার দুই পুত্রের ৩টি ঘর সম্পূর্ণ ভষ্মিভূত হয়ে যায়। আগুনের লেলিহান শিখা দেখতে পেয়ে এলাকার লোকজন ছুটে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালায়।

পরে খবর পেয়ে চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসের দমকল বাহিনীর সদস্যরা ছুটে এসে আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনেন। তবে ঘটনার সময় পরিবারের লোকজন ঘরে না থাকায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার আরশাদ মোল্লা জানান, অগ্নিকাণ্ডে আনোয়ার গাজী এবং তার দুই পুত্র সোহাগ গাজী ও নাঈম গাজী ৩টি ঘর সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ঘরে থাকা আসবাবপত্র, ফার্নিচার, স্বর্ণালংকার এবং একটি মোটরসাইকেল পুড়ে গেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শানজিদা সাহানাজ ও তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমাম হাসান রাসেল গাজী।

তারা অসহায় পরিবারগুলোকে সমবেদনা জানান। পাশাপাশি সদর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৩টি পরিবারকে নগদ ৬ হাজার টাকা করে ১৮ হাজার টাকা এবং ২ বান করে টিন ও খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন।

এছাড়া তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমাম হাসান রাসেল গাজীর ব্যক্তিগত অর্থে ৩টি পরিবারকে রমজানের বাজারসহ খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন।

এ সময় এ সময় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী এবং ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস :

বরযাত্রার সময় হাজির প্রথম স্ত্রী, বউ রেখে পালালেন বর

তরপুরচন্ডীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ; ইউএনও এবং ইউপি চেয়ারম্যানের ঘটনাস্থল পরিদর্শন

আপডেট সময় : ০২:২৩:১৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মার্চ ২০২৩

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর সদর উপজেলার তরপুরচন্ডী ইউনিয়নের সেনের দীঘির পাড় এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ২২ মার্চ বুধবার বিকেল ওই এলাকার গাজী বাড়িতে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

Model Hospital

অগ্নিকাণ্ডে ওই বাড়ির আনোয়ার গাজী এবং তার দুই পুত্রের ৩টি ঘর সম্পূর্ণ ভষ্মিভূত হয়ে যায়। আগুনের লেলিহান শিখা দেখতে পেয়ে এলাকার লোকজন ছুটে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালায়।

পরে খবর পেয়ে চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসের দমকল বাহিনীর সদস্যরা ছুটে এসে আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনেন। তবে ঘটনার সময় পরিবারের লোকজন ঘরে না থাকায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার আরশাদ মোল্লা জানান, অগ্নিকাণ্ডে আনোয়ার গাজী এবং তার দুই পুত্র সোহাগ গাজী ও নাঈম গাজী ৩টি ঘর সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ঘরে থাকা আসবাবপত্র, ফার্নিচার, স্বর্ণালংকার এবং একটি মোটরসাইকেল পুড়ে গেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শানজিদা সাহানাজ ও তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমাম হাসান রাসেল গাজী।

তারা অসহায় পরিবারগুলোকে সমবেদনা জানান। পাশাপাশি সদর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৩টি পরিবারকে নগদ ৬ হাজার টাকা করে ১৮ হাজার টাকা এবং ২ বান করে টিন ও খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন।

এছাড়া তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমাম হাসান রাসেল গাজীর ব্যক্তিগত অর্থে ৩টি পরিবারকে রমজানের বাজারসহ খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন।

এ সময় এ সময় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী এবং ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।