ঢাকা ০৭:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাজীগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল স্ত্রীরও!

হাজীগঞ্জে বিদ্যুৎতায়িত হয়ে মারা গেছেন স্বামী স্ত্রী দু’জনেই।

Model Hospital

শুক্রবার (২ জুন) বিকালে উপজেলার কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের মিজি বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন মিজি বাড়ীর মৃত আ. গফুর মিজির ছেলে হাজী মো. মমিন মিজি (৭০) ও তার স্ত্রী নুরজাহান বেগম (৬০)। নিহত দম্পতি ১ ছেলে ও ৩ মেয়ে জনক-জননী।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মমিন মিজি বাড়ীতে কবুতর পালতেন। কবুতরের বাচ্চা বিড়ালে খেয়ে ফেলায় কবুতরের বাসার দু’পাশে বিদ্যুতের তার প্যাচিয়ে রেখেছেন।

এদিন বিকালে তিনি কবুতরের বাসায় কবুতর দেখতে গিয়ে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে যান।

এ সময় পাশে অবস্থানকারী স্ত্রী নূরজাহান তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে তিনি ও বিদ্যুৎতায়িত হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান দু’জনে। কিছু পরো বাড়ীর লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে, তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক দু’জনকেই মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা স্বপন বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। মৃতদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফনের ব্যবস্থা করেছি।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ জানান, পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়াই মৃতদেহ দাফনের অনুমতি দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সুমন

হাজীগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল স্ত্রীরও!

আপডেট সময় : ০৮:৪১:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২ জুন ২০২৩

হাজীগঞ্জে বিদ্যুৎতায়িত হয়ে মারা গেছেন স্বামী স্ত্রী দু’জনেই।

Model Hospital

শুক্রবার (২ জুন) বিকালে উপজেলার কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের মিজি বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন মিজি বাড়ীর মৃত আ. গফুর মিজির ছেলে হাজী মো. মমিন মিজি (৭০) ও তার স্ত্রী নুরজাহান বেগম (৬০)। নিহত দম্পতি ১ ছেলে ও ৩ মেয়ে জনক-জননী।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মমিন মিজি বাড়ীতে কবুতর পালতেন। কবুতরের বাচ্চা বিড়ালে খেয়ে ফেলায় কবুতরের বাসার দু’পাশে বিদ্যুতের তার প্যাচিয়ে রেখেছেন।

এদিন বিকালে তিনি কবুতরের বাসায় কবুতর দেখতে গিয়ে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে যান।

এ সময় পাশে অবস্থানকারী স্ত্রী নূরজাহান তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে তিনি ও বিদ্যুৎতায়িত হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান দু’জনে। কিছু পরো বাড়ীর লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে, তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক দু’জনকেই মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা স্বপন বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। মৃতদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফনের ব্যবস্থা করেছি।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ জানান, পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়াই মৃতদেহ দাফনের অনুমতি দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।