ঢাকা ০৫:৩৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মতলব উত্তরে বন্দুক ও দেশীয় অস্ত্রসহ আটক ৩ ডাকাত

মতলব উত্তরে একটি দুইনলা বন্দুক, বিভিন্ন ধরনের দেশিয় অস্ত্র ও বিপুল অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জামাদিসহ ডাকাত দলের তিন সদস্যকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। শনিবার (২৪ জুন) সকালে কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান এ তথ্য জানান।

Model Hospital

আটক ডাকাতরা হলেন, মো. আরিফ হোসেন (২৩), সাব্বির হোসেন (১৯) ও ইমন হোসেন (১৯)। তারা সবাই মতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুর গ্রামের বাসিন্দা।

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার ভোর ৪টার দিকে চাঁদপুর কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার মাশহাদ উদ্দিন নাহিয়ানের নেতৃত্বে মতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুরে বিশেষ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে স্থানীয় একটি বাড়িতে তল্লাশি করে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি দুইনলা বন্দুক, একটি রামদা, একটি চাইনিজ কুড়াল, তিনটি ছুরি ও বিপুল অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামাদিসহ তিন ডাকাত সদস্যকে আটক করা হয়।

কোস্টগার্ডের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ঘটনাস্থল চাঁদপুর থেকে দূরবর্তী, বিচ্ছিন্ন ও জনশূন্য হওয়ায় একটি সংঘবদ্ধ চক্র দীর্ঘদিন বিভিন্ন সময়ে মোহনপুর থেকে নারায়ণগঞ্জ পর্যন্ত চলাচলকারী লঞ্চ, বাল্কহেড, কার্গোজাহাজসহ বিভিন্ন নৌযানে ডাকাতি করত। এ ছাড়া, অস্ত্র তৈরি করে বিভিন্ন ডাকাত দলের সদস্যদের কাছে বিক্রি করত।

কোস্টগার্ড চাঁদপুর স্টেশন কমান্ডার মাশহাদ উদ্দিন নাহিয়ান বলেন, আমরা জানতে পেরেছি ওই এলাকায় ডাকাত দলের তিনটি গ্রুপ আছে। তবে, সদস্য সংখ্যা কত তা জানা যায়নি। এরা ঈদকে কেন্দ্র করে যেসব নৌযানে মূল্যবান মালামাল থাকে ও নৌযানের শ্রমিকরা কোন সময় তাদের বেতন পায় এই ধরনের তথ্য জেনে ডাকাতি করে। মূলত তারা এখলাছপুর, মোহনপুর ও চেঙ্গারচর এলাকা থেকে ডাকাতি কার্যক্রম পরিচালনা করে।

আটক তিন ডাকাত সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য চাঁদপুর সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

মতলব উত্তরে বন্দুক ও দেশীয় অস্ত্রসহ আটক ৩ ডাকাত

আপডেট সময় : ০৯:৩৫:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ জুন ২০২৩

মতলব উত্তরে একটি দুইনলা বন্দুক, বিভিন্ন ধরনের দেশিয় অস্ত্র ও বিপুল অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জামাদিসহ ডাকাত দলের তিন সদস্যকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। শনিবার (২৪ জুন) সকালে কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান এ তথ্য জানান।

Model Hospital

আটক ডাকাতরা হলেন, মো. আরিফ হোসেন (২৩), সাব্বির হোসেন (১৯) ও ইমন হোসেন (১৯)। তারা সবাই মতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুর গ্রামের বাসিন্দা।

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার ভোর ৪টার দিকে চাঁদপুর কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার মাশহাদ উদ্দিন নাহিয়ানের নেতৃত্বে মতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুরে বিশেষ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে স্থানীয় একটি বাড়িতে তল্লাশি করে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি দুইনলা বন্দুক, একটি রামদা, একটি চাইনিজ কুড়াল, তিনটি ছুরি ও বিপুল অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামাদিসহ তিন ডাকাত সদস্যকে আটক করা হয়।

কোস্টগার্ডের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ঘটনাস্থল চাঁদপুর থেকে দূরবর্তী, বিচ্ছিন্ন ও জনশূন্য হওয়ায় একটি সংঘবদ্ধ চক্র দীর্ঘদিন বিভিন্ন সময়ে মোহনপুর থেকে নারায়ণগঞ্জ পর্যন্ত চলাচলকারী লঞ্চ, বাল্কহেড, কার্গোজাহাজসহ বিভিন্ন নৌযানে ডাকাতি করত। এ ছাড়া, অস্ত্র তৈরি করে বিভিন্ন ডাকাত দলের সদস্যদের কাছে বিক্রি করত।

কোস্টগার্ড চাঁদপুর স্টেশন কমান্ডার মাশহাদ উদ্দিন নাহিয়ান বলেন, আমরা জানতে পেরেছি ওই এলাকায় ডাকাত দলের তিনটি গ্রুপ আছে। তবে, সদস্য সংখ্যা কত তা জানা যায়নি। এরা ঈদকে কেন্দ্র করে যেসব নৌযানে মূল্যবান মালামাল থাকে ও নৌযানের শ্রমিকরা কোন সময় তাদের বেতন পায় এই ধরনের তথ্য জেনে ডাকাতি করে। মূলত তারা এখলাছপুর, মোহনপুর ও চেঙ্গারচর এলাকা থেকে ডাকাতি কার্যক্রম পরিচালনা করে।

আটক তিন ডাকাত সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য চাঁদপুর সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।