ঢাকা ০৯:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুর-কুমিল্লা মহাসড়কের কুমারডুগীতে ফের মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় চালকের মৃত্যু

মাসুদ হোসেন : চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের কুমারডুগী মাজার গেইট এলাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের মোঃ নুরুল আমিন (২৭) নামে এক যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।
মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত আনুমানিক দেড় ঘটিকার সময় কুমারডুগী মাজার গেইট এলাকায় চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের উত্তর পাশে পার্কিং করা পূর্ব মূখী একটি কাভার্ড ভ্যানের সাথে চলন্ত মোটরসাইকেল সজোরে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল চালক মাথায় আঘাত পেয়ে সাথে সাথে মাটিতে লুটে পড়েন। নিহত নুরুল আমিন মিজি চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫নং রামপুর ইউনিয়নের উত্তর সকদী পাঁচগাঁও গ্রামের হাফেজ রুহুল আমিন মিজির একমাত্র ছেলে। যদিও তারা শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড ভাটেরগাঁও গ্রামে গিয়ে নতুন বাড়ি করেন। পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে নুরুল আমিন ছিল সবার বড়।
নিহতের বাড়িতে গিয়ে জানা যায়, নুরুল আমিনের ছোট চার বোনের মধ্যে এক বোনের বিয়ে হয়ে স্বামী সহ সে ইতালিতে বসবাসরত। বাকী ৩ বোন এখনো অবিবাহিত। কৃষক বাবার একমাত্র ছেলে নুরুল আমিনও অবিবাহিত ছিলেন। সে চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগাদী চৌরাস্তা বাজারে ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের এজেন্ট শাখায় চাকুরী করতো।
দুর্ঘটনার দিন রাতে সকল কাজ সেরে বাড়িতে ফেরার পথে রাত আনুমানিক দেড়টার সময় পার্কিং করা কাভার্ড ভ্যানের সাথে ধাক্কা খেয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় সড়কের উপর কাতরাতে থাকতে পেয়ে এক সিএনজি চালকের দৃষ্টি কাড়ে। সিএনজি চালক তাকে উদ্ধার করে দ্রুত ২৫০ শয্যা চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।
কর্তব্যরত চিকিৎসক আহত নুরুল আমিনকে চিকিৎসা প্রদান করেন এবং হাসপাতালে নেয়ার আধা ঘণ্টা পরেই তার মৃত্যু হয়।
প্রতিবেশীরা জানান, নুরুল আমিন দুর্ঘটনার আগে অর্থাৎ রাত ১টার দিকেও তার মায়ের সাথে মোবাইলে কথা বলেন। দুর্ঘটনার পর খবর পেয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানার এএসআই আজাদ নিহতের সাথে থাকা মোবাইল থেকে সিম খুলে অন্য মোবাইলে ঢুকিয়ে তার খালাকে কল দিয়ে পরিবারকে বিষয়টি জানান। বুধবার সকালে চাঁদপুর সদর মডেল থানার এস আই রাশেদ, শাহমাহমুদপুরের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান নান্টু পাটওয়ারী ও ৬নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য মোঃ সোহেল হোসেন (সোহাগ) এর সার্বিক সহযোগিতায় পোস্ট মর্টেম ছাড়াই পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করেন মডেল থানা পুলিশ। এদিকে কাভার্ড ভ্যানটি আটক করেন চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশ।
নিহত নুরুল আমিনকে একনজর দেখতে দুরদূরান্ত থেকে ছুটে আসেন বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজন, সহকর্মীসহ আশেপাশের শত শত লোকজন। নিহতের বাড়িতে বইছে শোকের মাতম। বুধবার বাদ আছর রামপুর ইউনিয়নের সকদী পাঁচগাঁও জামে মসজিদ মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

উদয়ন প্রিমিয়ার লীগ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ সম্পূর্ণ

চাঁদপুর-কুমিল্লা মহাসড়কের কুমারডুগীতে ফের মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় চালকের মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৪:০৭:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২১
মাসুদ হোসেন : চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের কুমারডুগী মাজার গেইট এলাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের মোঃ নুরুল আমিন (২৭) নামে এক যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।
মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত আনুমানিক দেড় ঘটিকার সময় কুমারডুগী মাজার গেইট এলাকায় চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের উত্তর পাশে পার্কিং করা পূর্ব মূখী একটি কাভার্ড ভ্যানের সাথে চলন্ত মোটরসাইকেল সজোরে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল চালক মাথায় আঘাত পেয়ে সাথে সাথে মাটিতে লুটে পড়েন। নিহত নুরুল আমিন মিজি চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫নং রামপুর ইউনিয়নের উত্তর সকদী পাঁচগাঁও গ্রামের হাফেজ রুহুল আমিন মিজির একমাত্র ছেলে। যদিও তারা শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড ভাটেরগাঁও গ্রামে গিয়ে নতুন বাড়ি করেন। পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে নুরুল আমিন ছিল সবার বড়।
নিহতের বাড়িতে গিয়ে জানা যায়, নুরুল আমিনের ছোট চার বোনের মধ্যে এক বোনের বিয়ে হয়ে স্বামী সহ সে ইতালিতে বসবাসরত। বাকী ৩ বোন এখনো অবিবাহিত। কৃষক বাবার একমাত্র ছেলে নুরুল আমিনও অবিবাহিত ছিলেন। সে চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগাদী চৌরাস্তা বাজারে ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের এজেন্ট শাখায় চাকুরী করতো।
দুর্ঘটনার দিন রাতে সকল কাজ সেরে বাড়িতে ফেরার পথে রাত আনুমানিক দেড়টার সময় পার্কিং করা কাভার্ড ভ্যানের সাথে ধাক্কা খেয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় সড়কের উপর কাতরাতে থাকতে পেয়ে এক সিএনজি চালকের দৃষ্টি কাড়ে। সিএনজি চালক তাকে উদ্ধার করে দ্রুত ২৫০ শয্যা চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।
কর্তব্যরত চিকিৎসক আহত নুরুল আমিনকে চিকিৎসা প্রদান করেন এবং হাসপাতালে নেয়ার আধা ঘণ্টা পরেই তার মৃত্যু হয়।
প্রতিবেশীরা জানান, নুরুল আমিন দুর্ঘটনার আগে অর্থাৎ রাত ১টার দিকেও তার মায়ের সাথে মোবাইলে কথা বলেন। দুর্ঘটনার পর খবর পেয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানার এএসআই আজাদ নিহতের সাথে থাকা মোবাইল থেকে সিম খুলে অন্য মোবাইলে ঢুকিয়ে তার খালাকে কল দিয়ে পরিবারকে বিষয়টি জানান। বুধবার সকালে চাঁদপুর সদর মডেল থানার এস আই রাশেদ, শাহমাহমুদপুরের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান নান্টু পাটওয়ারী ও ৬নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য মোঃ সোহেল হোসেন (সোহাগ) এর সার্বিক সহযোগিতায় পোস্ট মর্টেম ছাড়াই পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করেন মডেল থানা পুলিশ। এদিকে কাভার্ড ভ্যানটি আটক করেন চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশ।
নিহত নুরুল আমিনকে একনজর দেখতে দুরদূরান্ত থেকে ছুটে আসেন বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজন, সহকর্মীসহ আশেপাশের শত শত লোকজন। নিহতের বাড়িতে বইছে শোকের মাতম। বুধবার বাদ আছর রামপুর ইউনিয়নের সকদী পাঁচগাঁও জামে মসজিদ মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।