ঢাকা ০২:৫১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন পরিষদে সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কার্যক্রমের উদ্বোধন

জীবন সাজাবে জীবন বাঁচাবে সামাজিক সুরক্ষা রক্ষাকবচ সর্বজনীন পেনশন স্কিম’ এই প্রতিপাদ্যে প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নে বৈষম্যহীন সামাজিক কাঠামোয় সকল নাগরিকের বিশেষ করে বয়স্ক জনগোষ্ঠীর আর্থিক সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন পরিষদে সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কার্যক্রমের উদ্বোধন ও অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রবিবার (২১ এপ্রিল) সকাল ১১টায় ইউনিয়ন পরিষদের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা বিষয়ক অবহিতকরণ সভার সভাপতিত্ব করেন ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মাসুদুর রহমান নান্টু পাটওয়ারী। ইউপি সচিব মোহাম্মদ কুদ্দুছ আখন্দ রোকন এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আখতারুজ্জামান পাটওয়ারী।
সভায় বক্তারা বলেন, সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাস্তবায়নে আমাদের এই ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) উদ্যোক্তাগণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদী।
সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচি এমনভাবে করা হয়েছে যাতে দেশের ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী সব নাগরিকই এ ব্যবস্থার আওতায় আসতে পারবেন এবং ৬০ বছর বয়স থেকে তারা আজীবন পেনশন পাবেন। শুরুর দিকে চিন্তা না থাকলেও পরে ৫০ বছরের বেশি বয়সীদেরও পেনশন কর্মসূচির আওতায় রাখার সুযোগ তৈরি করা হয়েছে। তারা টানা ১০ বছর চাঁদা দেওয়ার পরই পেনশন সুবিধা পাবেন। আপাতত চার শ্রেণির জনগোষ্ঠীর জন্য চার ধরনের পেনশন কর্মসূচি চালু করা হয়েছে।
অবহিতকরণ সভা শেষে সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কার্যক্রমের বুথ ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান নান্টু পাটওয়ারী।
এসময় উপস্থিত ছিলেন শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহাজান হাওলাদার সাজু, ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন, ইউপি সদস্য নাজির হোসেন, কবির হোসেন রনি, হাবিবুর রহমান, সোহেল পাটওয়ারী সোহাগ, ইব্রাহিম মিজি, জিয়াউর রহমান, ফিরোজা বেগম, লাকী বেগম, মুক্তা আক্তার, হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর আবুল হোসেন, উদ্যোক্তা ইলিয়াছ বেপারী মিঠু, সুমি আক্তার সহ উক্ত ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।
উল্লেখ্য, এর আগে সকাল ৯টায় চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে একযোগে জেলার ২২৭ টি রেজিস্ট্রেশন বুথের ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) কামরুল হাসান।
২২৭টি রেজিস্ট্রেশন হচ্ছে- উপজেলা পর্যায়ে নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কার্যালয়ে ৯টি, সহকারী কমিশনার ভূমি অফিসে ৮টি, পৌরসভায় ৭টি, ইউনিয়ন পরিষদে ৯৩টি, ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ৬৫টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৩৫টি, সিটি ব্যাংকে ৪টি, মতলব দক্ষিণ থানায় ১টি এবং উপজেলার অন্যান্য অফিসে ৪টি।

শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন পরিষদে সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কার্যক্রমের উদ্বোধন

আপডেট সময় : ০৪:২৭:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
জীবন সাজাবে জীবন বাঁচাবে সামাজিক সুরক্ষা রক্ষাকবচ সর্বজনীন পেনশন স্কিম’ এই প্রতিপাদ্যে প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নে বৈষম্যহীন সামাজিক কাঠামোয় সকল নাগরিকের বিশেষ করে বয়স্ক জনগোষ্ঠীর আর্থিক সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন পরিষদে সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কার্যক্রমের উদ্বোধন ও অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রবিবার (২১ এপ্রিল) সকাল ১১টায় ইউনিয়ন পরিষদের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা বিষয়ক অবহিতকরণ সভার সভাপতিত্ব করেন ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মাসুদুর রহমান নান্টু পাটওয়ারী। ইউপি সচিব মোহাম্মদ কুদ্দুছ আখন্দ রোকন এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আখতারুজ্জামান পাটওয়ারী।
সভায় বক্তারা বলেন, সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাস্তবায়নে আমাদের এই ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) উদ্যোক্তাগণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদী।
সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচি এমনভাবে করা হয়েছে যাতে দেশের ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী সব নাগরিকই এ ব্যবস্থার আওতায় আসতে পারবেন এবং ৬০ বছর বয়স থেকে তারা আজীবন পেনশন পাবেন। শুরুর দিকে চিন্তা না থাকলেও পরে ৫০ বছরের বেশি বয়সীদেরও পেনশন কর্মসূচির আওতায় রাখার সুযোগ তৈরি করা হয়েছে। তারা টানা ১০ বছর চাঁদা দেওয়ার পরই পেনশন সুবিধা পাবেন। আপাতত চার শ্রেণির জনগোষ্ঠীর জন্য চার ধরনের পেনশন কর্মসূচি চালু করা হয়েছে।
অবহিতকরণ সভা শেষে সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কার্যক্রমের বুথ ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান নান্টু পাটওয়ারী।
এসময় উপস্থিত ছিলেন শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহাজান হাওলাদার সাজু, ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন, ইউপি সদস্য নাজির হোসেন, কবির হোসেন রনি, হাবিবুর রহমান, সোহেল পাটওয়ারী সোহাগ, ইব্রাহিম মিজি, জিয়াউর রহমান, ফিরোজা বেগম, লাকী বেগম, মুক্তা আক্তার, হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর আবুল হোসেন, উদ্যোক্তা ইলিয়াছ বেপারী মিঠু, সুমি আক্তার সহ উক্ত ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।
উল্লেখ্য, এর আগে সকাল ৯টায় চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে একযোগে জেলার ২২৭ টি রেজিস্ট্রেশন বুথের ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) কামরুল হাসান।
২২৭টি রেজিস্ট্রেশন হচ্ছে- উপজেলা পর্যায়ে নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কার্যালয়ে ৯টি, সহকারী কমিশনার ভূমি অফিসে ৮টি, পৌরসভায় ৭টি, ইউনিয়ন পরিষদে ৯৩টি, ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ৬৫টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৩৫টি, সিটি ব্যাংকে ৪টি, মতলব দক্ষিণ থানায় ১টি এবং উপজেলার অন্যান্য অফিসে ৪টি।