ঢাকা ০২:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিমানের জাল টিকেট বিক্রি করে সাদরা দরবারের পীর মিশকাতের মাসে আয় কয়েক লাখ টাকা

হজ্জ ও ওমরা ট্রাভেলস এজেন্সি ব্যবসায়ী কে টার্গেট করে সক্রিয় হয়ে উঠেছে প্রতারক চক্র। এরই মধ্যে হজ্জের টিকেট নিয়ে প্রতারণার দায়ে পুলিশে হাতে আটক হয়েছে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের সাদরা দরবার শরীফের পীর আল্লামা ডক্টর খাজা বাকীবিল্লাহ মিশকাত চৌধুরী।

Model Hospital

বিভিন্ন সময় লোভনীয় অফারের প্রচারণা চালাচ্ছে তার অনুসারি বিভিন্ন মসজিদের ইমাম মুয়াজ্জিনের মাধ্যমে (ইমাম মুয়াজ্জিন তার প্রতারণা সম্পর্কে অবগত নয়)। নামি দামী গাড়ী হাকিয়ে চলেন সড়কে। তার এসব বেশবুশ দেখে তার কাছে আসে সাধারণ মানুষ হজ্জের টাকা জমা দিতে। আর হজ্জের টিকেটের নামে পীরের লেবাসে সে সাধারণ হজ্জ যাত্রীদের সাথে প্রতারণা করে প্রতি মাসে আয় করছে ৫/৬ লাখ টাকা।

এসব প্রচারণার ফাঁদে পা দিয়ে অনেক নামীদামী ট্রাভেলস ব্যাবসায়ী তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এই প্রতারণায় পড়েন ওয়ালিয়া এয়ার ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল এজেন্সীর চেয়ারম্যান মো: অলিউল্লাহ ভূইয়া (৪২), তিনি তার সাথে এজেন্ট ব্যাংকিং বা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে করেছিলেন লেনদেন।

অনলাইনেই দেওয়া হচ্ছে এয়ার টিকিট। কিন্তু ফ্লাইটের দিন বিমানবন্দরে গিয়ে হজ্জ যাত্রীরা বুঝতে পারছেন তার টিকিটটি ভুয়া। এভাবে মানুষকে ফাঁদে ফেলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে সাদরা দরবার শরীফের বাকিবিল্লাহ মেশকাত চৌধুরী।

গত ৬ মে পুলিশ মোবাইল ট্র্যাকিং এর মাধ্যমে জানতে পারে বাকিবিল্লাহ মেশকাত চৌধুরী তার নিজ বাসায়, তখন পুলিশ তার বাসায় উপস্থিত হয়ে তার রান্না ঘরের রুমের বাক্স থেকে বের করে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। প্রতারণার দায়ে ১ নম্বর বিবাদী বাকিবিল্লাহ মেশকাত চৌধুরী (৩৮), গ্রেফতার করেছে ডিবি, আরো বাকি তিন জনের গ্রেপ্তার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান ডিবি।

জানা গেছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভিন্ন এয়ারলাইনের ওমরাহ টিকিট কম দামে বিক্রির বিজ্ঞাপন দিতো পীর ডক্তর বাকিবিল্লাহ মেশকাত চৌধুরী। সাশ্রয়ী দামে টিকিট বিক্রির প্রলোভন দেখিয়ে টাকা নিতো। সরবরাহ করতো জাল টিকিট।

আল্লামা ডক্টর খাজা বাকীবিল্লাহ মিশকাত চৌধুরী সদ্য অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ- শাহরাস্তি) আসনে বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন এর মনোনীত প্রার্থী ছিলেন।

ট্যাগস :

বিমানের জাল টিকেট বিক্রি করে সাদরা দরবারের পীর মিশকাতের মাসে আয় কয়েক লাখ টাকা

আপডেট সময় : ১১:৫৭:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪

হজ্জ ও ওমরা ট্রাভেলস এজেন্সি ব্যবসায়ী কে টার্গেট করে সক্রিয় হয়ে উঠেছে প্রতারক চক্র। এরই মধ্যে হজ্জের টিকেট নিয়ে প্রতারণার দায়ে পুলিশে হাতে আটক হয়েছে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের সাদরা দরবার শরীফের পীর আল্লামা ডক্টর খাজা বাকীবিল্লাহ মিশকাত চৌধুরী।

Model Hospital

বিভিন্ন সময় লোভনীয় অফারের প্রচারণা চালাচ্ছে তার অনুসারি বিভিন্ন মসজিদের ইমাম মুয়াজ্জিনের মাধ্যমে (ইমাম মুয়াজ্জিন তার প্রতারণা সম্পর্কে অবগত নয়)। নামি দামী গাড়ী হাকিয়ে চলেন সড়কে। তার এসব বেশবুশ দেখে তার কাছে আসে সাধারণ মানুষ হজ্জের টাকা জমা দিতে। আর হজ্জের টিকেটের নামে পীরের লেবাসে সে সাধারণ হজ্জ যাত্রীদের সাথে প্রতারণা করে প্রতি মাসে আয় করছে ৫/৬ লাখ টাকা।

এসব প্রচারণার ফাঁদে পা দিয়ে অনেক নামীদামী ট্রাভেলস ব্যাবসায়ী তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এই প্রতারণায় পড়েন ওয়ালিয়া এয়ার ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল এজেন্সীর চেয়ারম্যান মো: অলিউল্লাহ ভূইয়া (৪২), তিনি তার সাথে এজেন্ট ব্যাংকিং বা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে করেছিলেন লেনদেন।

অনলাইনেই দেওয়া হচ্ছে এয়ার টিকিট। কিন্তু ফ্লাইটের দিন বিমানবন্দরে গিয়ে হজ্জ যাত্রীরা বুঝতে পারছেন তার টিকিটটি ভুয়া। এভাবে মানুষকে ফাঁদে ফেলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে সাদরা দরবার শরীফের বাকিবিল্লাহ মেশকাত চৌধুরী।

গত ৬ মে পুলিশ মোবাইল ট্র্যাকিং এর মাধ্যমে জানতে পারে বাকিবিল্লাহ মেশকাত চৌধুরী তার নিজ বাসায়, তখন পুলিশ তার বাসায় উপস্থিত হয়ে তার রান্না ঘরের রুমের বাক্স থেকে বের করে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। প্রতারণার দায়ে ১ নম্বর বিবাদী বাকিবিল্লাহ মেশকাত চৌধুরী (৩৮), গ্রেফতার করেছে ডিবি, আরো বাকি তিন জনের গ্রেপ্তার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান ডিবি।

জানা গেছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভিন্ন এয়ারলাইনের ওমরাহ টিকিট কম দামে বিক্রির বিজ্ঞাপন দিতো পীর ডক্তর বাকিবিল্লাহ মেশকাত চৌধুরী। সাশ্রয়ী দামে টিকিট বিক্রির প্রলোভন দেখিয়ে টাকা নিতো। সরবরাহ করতো জাল টিকিট।

আল্লামা ডক্টর খাজা বাকীবিল্লাহ মিশকাত চৌধুরী সদ্য অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ- শাহরাস্তি) আসনে বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন এর মনোনীত প্রার্থী ছিলেন।