ঢাকা ০২:৩১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাজীগঞ্জে পিকআপ চাপায় পিতা-পুত্র নিহত

নিজস্ব প্রতিনিধি : দোকান উদ্বোধনের পর তাবাররুক বিতরণ করতে গিয়ে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে পিকআপের চাপায় নিহত হয়েছেন বাবা ও ছেলে।  নিহতরা হলেন : জিল্লুর রহমান (৪৬) ও ছোট ছেলে বায়জিদ (৮)। তাদের গ্রামের বাড়ি বি-বাড়িয়া জেলার নাছির নগর উপজেলার শ্রীপুর গ্রামে ।

Model Hospital

মিলাদ শেষে তাবারক বিলাতে সড়ক পার হতে যায় আট বছরের বায়জিত ও তার বাবা জিল্লুর রহমান। পার হতে পারলো না তারা। চাঁদপুরগামী একটি পিক-আপ ভ্যানের চাপায় পড়ে এখন পার হয়ে গেলো এই পৃথিবী। নিথর দেহ নিয়ে চলে গেলেন পরপারে।

শুক্রবার রাত সাড়ে আটটায় বলাখাল বাজারে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা বি-বাড়িয়া জেলার নাছিরনগর উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের বাসিন্দা।

জিল্লুর রহমানের আরেক ছেলে জুবায়ের। সে দুই বছর ধরে হাজীগঞ্জের বলাখাল বাজারে একটি প্লাস্টিকের দোকানে চাকরি করেন। সেই দোকানটি নিজের নামে কিনে উদ্বোধন করেন শুক্রবার সন্ধ্যায়। দোকান উদ্বোধন করতে প্রথমবারের মতো হাজীগঞ্জে আসা জিল্লুর রহমানের। সাথে আসেন শিশু বায়জিত।

বড় ছেলে জুবায়ের জানান, মদিনা প্লাস্টিকের দোকান উদ্বোধন শেষে পাশের দোকানদারকে মিলাদের তাবারক দিতে গিয়ে এই দুর্ঘটনার শিকার হন বাবা আর ছোট ভাইটা।বাবার স্বপ্নটা পূরণ হলো কিন্তু দেখতে পারলো না।

দুর্ঘটনাস্থলে মারা যান শিশু বায়জিত। তার বাবা জিল্লুর রহমানকে স্থানীয়রা হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকেও মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে সড়ক দুর্ঘটনার পর ঘন্টাব্যাপী সড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাজেদুল করিম জোয়ার্দার দমকল বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে শিশুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

হাজীগঞ্জ থানা তদন্ত ওসি ইব্রাহিম খলিল সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘাতক পিক-আপ ভ্যানটি জব্দ করা হয়েছে।

ট্যাগস :

মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচিতদের গেজেট প্রকাশ

হাজীগঞ্জে পিকআপ চাপায় পিতা-পুত্র নিহত

আপডেট সময় : ০৫:৫৯:৩২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ মার্চ ২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধি : দোকান উদ্বোধনের পর তাবাররুক বিতরণ করতে গিয়ে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে পিকআপের চাপায় নিহত হয়েছেন বাবা ও ছেলে।  নিহতরা হলেন : জিল্লুর রহমান (৪৬) ও ছোট ছেলে বায়জিদ (৮)। তাদের গ্রামের বাড়ি বি-বাড়িয়া জেলার নাছির নগর উপজেলার শ্রীপুর গ্রামে ।

Model Hospital

মিলাদ শেষে তাবারক বিলাতে সড়ক পার হতে যায় আট বছরের বায়জিত ও তার বাবা জিল্লুর রহমান। পার হতে পারলো না তারা। চাঁদপুরগামী একটি পিক-আপ ভ্যানের চাপায় পড়ে এখন পার হয়ে গেলো এই পৃথিবী। নিথর দেহ নিয়ে চলে গেলেন পরপারে।

শুক্রবার রাত সাড়ে আটটায় বলাখাল বাজারে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা বি-বাড়িয়া জেলার নাছিরনগর উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের বাসিন্দা।

জিল্লুর রহমানের আরেক ছেলে জুবায়ের। সে দুই বছর ধরে হাজীগঞ্জের বলাখাল বাজারে একটি প্লাস্টিকের দোকানে চাকরি করেন। সেই দোকানটি নিজের নামে কিনে উদ্বোধন করেন শুক্রবার সন্ধ্যায়। দোকান উদ্বোধন করতে প্রথমবারের মতো হাজীগঞ্জে আসা জিল্লুর রহমানের। সাথে আসেন শিশু বায়জিত।

বড় ছেলে জুবায়ের জানান, মদিনা প্লাস্টিকের দোকান উদ্বোধন শেষে পাশের দোকানদারকে মিলাদের তাবারক দিতে গিয়ে এই দুর্ঘটনার শিকার হন বাবা আর ছোট ভাইটা।বাবার স্বপ্নটা পূরণ হলো কিন্তু দেখতে পারলো না।

দুর্ঘটনাস্থলে মারা যান শিশু বায়জিত। তার বাবা জিল্লুর রহমানকে স্থানীয়রা হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকেও মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে সড়ক দুর্ঘটনার পর ঘন্টাব্যাপী সড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাজেদুল করিম জোয়ার্দার দমকল বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে শিশুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

হাজীগঞ্জ থানা তদন্ত ওসি ইব্রাহিম খলিল সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘাতক পিক-আপ ভ্যানটি জব্দ করা হয়েছে।