ঢাকা ০৩:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্যার আজ বাহির হচ্ছে, ভেকু সরিয়ে পেলুন!

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রতি বছরেই চাষযোগ্য কৃষি জমিতে মাটি খেকোদের হামলা চলে আসছে। ওদের হাত না কি অনেক লম্বা। প্রশাসনের এতো নজরদারিতেও থামছে না কৃষি জমির উর্বকৃত মাটি কাটা। স্থানিয়দের মনে প্রশ্ন প্রশাসন না কী মাটি খেকোদের হাত লম্বা। কেউ কেউ জমির মালিক ও প্রশাসনকেই দায়ি করছে। প্রশাসন মালিক পক্ষ এবং মাটি ক্রেতাদের আইনের কাঠগড়ায় দাড় না করায় এমন ঘটনা ঘটে চলছে।
শাহরাস্তির স্থানীয়রা জানাচ্ছেন, প্রশাসনের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারির যোগসাজশে মাটি বিক্রেতা ও ক্রেতারা মাটি কাটার মহাউৎসবে মেতে উঠেছে। প্রশাসনের কর্তারা যখনই অভিযানে বাহির হতে প্রস্তুত তখন চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারিদের মোবাইল হতে মাটি ক্রেতাদের কাছে চলে যায় তথ্য, স্যার আজ বাহির হচ্ছে, গাড়ি, ভেকু সরিয়ে পেলুন। যেমন কথা তেমন কাজ। গুনাক্ষরেও স্যার জানতে পারে না কি হচ্ছে।
নিষ্ফল অভিযানের কারণে কেউই সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ না দিয়ে নিশ্চুপ সকল কষ্ঠ সয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি কৃষি সংশ্লিষ্ট হলেও মাঠ পর্যায়ের কিছু কিছু কৃষি অফিসার অন্ধত্বের ভাব ধরে বসে রয়েছে। তারা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বা ভূমি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে অবহিত করছে না। অপর দিকে কিছু কিছু এলাকায় সংশ্লিষ্ট  প্রশাসন ব্যবস্থা নিলেও ২/৪ দিন পর তার রেশ কেটে গেলে পুনরায় মাটি কাটার কাজে নেমে যায়। কেউ রাতে বা দিনে মাটি কাটা চলে বলে একাধিক সুত্রে জানায়।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

স্কুলের শ্রেণিকক্ষে ‘আপত্তিকর’ অবস্থায় ছাত্রীসহ প্রধান শিক্ষক আটক

স্যার আজ বাহির হচ্ছে, ভেকু সরিয়ে পেলুন!

আপডেট সময় : ০৭:০৭:০২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩০ মার্চ ২০২২
নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রতি বছরেই চাষযোগ্য কৃষি জমিতে মাটি খেকোদের হামলা চলে আসছে। ওদের হাত না কি অনেক লম্বা। প্রশাসনের এতো নজরদারিতেও থামছে না কৃষি জমির উর্বকৃত মাটি কাটা। স্থানিয়দের মনে প্রশ্ন প্রশাসন না কী মাটি খেকোদের হাত লম্বা। কেউ কেউ জমির মালিক ও প্রশাসনকেই দায়ি করছে। প্রশাসন মালিক পক্ষ এবং মাটি ক্রেতাদের আইনের কাঠগড়ায় দাড় না করায় এমন ঘটনা ঘটে চলছে।
শাহরাস্তির স্থানীয়রা জানাচ্ছেন, প্রশাসনের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারির যোগসাজশে মাটি বিক্রেতা ও ক্রেতারা মাটি কাটার মহাউৎসবে মেতে উঠেছে। প্রশাসনের কর্তারা যখনই অভিযানে বাহির হতে প্রস্তুত তখন চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারিদের মোবাইল হতে মাটি ক্রেতাদের কাছে চলে যায় তথ্য, স্যার আজ বাহির হচ্ছে, গাড়ি, ভেকু সরিয়ে পেলুন। যেমন কথা তেমন কাজ। গুনাক্ষরেও স্যার জানতে পারে না কি হচ্ছে।
নিষ্ফল অভিযানের কারণে কেউই সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ না দিয়ে নিশ্চুপ সকল কষ্ঠ সয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি কৃষি সংশ্লিষ্ট হলেও মাঠ পর্যায়ের কিছু কিছু কৃষি অফিসার অন্ধত্বের ভাব ধরে বসে রয়েছে। তারা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বা ভূমি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে অবহিত করছে না। অপর দিকে কিছু কিছু এলাকায় সংশ্লিষ্ট  প্রশাসন ব্যবস্থা নিলেও ২/৪ দিন পর তার রেশ কেটে গেলে পুনরায় মাটি কাটার কাজে নেমে যায়। কেউ রাতে বা দিনে মাটি কাটা চলে বলে একাধিক সুত্রে জানায়।