ঢাকা ০২:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জ পৌর সচিবের ইন্তেকাল

এস এম ইকবাল : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ পৌরসভার সচিব ও বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশন চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি এ-কে-এম খোরশেদ আলম আর নেই। (ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

Model Hospital

৫ এপ্রিল মঙ্গলবার রাত ১টা ৩০মিনিটের সময় ঢাকার ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন। তিনি গত প্রায় একমাস ধরে ল্যাব এইড চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন লিভার সিরোসিসসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।

ফরিদগঞ্জ পৌরসভার সচিব এ কে এম খোরশেদ আলম চাঁদপুর সদর উপজেলার ৮নং বাগাদী ইউনিয়নের নানুপুর এলাকার মিয়াজী বাড়ির মৃত আব্দুস ছাত্তারের ছেলে।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর। তিনি, স্ত্রী ও তিন ছেলে আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মঙ্গলবার বাদ আছর ফরিদগঞ্জ পৌরসভা মাঠে প্রথম জানাজা নামাজ ও বাদ মাগরী উনার নিজ বাড়িতে ২য় জানাজা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

এদিকে ফরিদগঞ্জ পৌরসভার সচিবের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটওয়ারী, ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের চাঁদপুর জেলা শাখা ও বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের ফরিদগঞ্জ উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, এ-কে-এম খোরশেদ আলম ১৯৯৪ সালের ৪ এপ্রিল ফরিদগঞ্জ (১৩ নং) উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ সচিব হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তীতে ফরিদগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নটি পৌরসভায় উন্নিত হলে পর্যায়কমে পদোন্নতি পেয়ে পৌরসভার সচিব হিসেবে মৃত্যুর পূর্বসময় পর্যন্ত কাজ করে গেছেন।

ট্যাগস :

বরযাত্রার সময় হাজির প্রথম স্ত্রী, বউ রেখে পালালেন বর

ফরিদগঞ্জ পৌর সচিবের ইন্তেকাল

আপডেট সময় : ০৪:১২:৩৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ এপ্রিল ২০২২

এস এম ইকবাল : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ পৌরসভার সচিব ও বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশন চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি এ-কে-এম খোরশেদ আলম আর নেই। (ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

Model Hospital

৫ এপ্রিল মঙ্গলবার রাত ১টা ৩০মিনিটের সময় ঢাকার ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন। তিনি গত প্রায় একমাস ধরে ল্যাব এইড চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন লিভার সিরোসিসসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।

ফরিদগঞ্জ পৌরসভার সচিব এ কে এম খোরশেদ আলম চাঁদপুর সদর উপজেলার ৮নং বাগাদী ইউনিয়নের নানুপুর এলাকার মিয়াজী বাড়ির মৃত আব্দুস ছাত্তারের ছেলে।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর। তিনি, স্ত্রী ও তিন ছেলে আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মঙ্গলবার বাদ আছর ফরিদগঞ্জ পৌরসভা মাঠে প্রথম জানাজা নামাজ ও বাদ মাগরী উনার নিজ বাড়িতে ২য় জানাজা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

এদিকে ফরিদগঞ্জ পৌরসভার সচিবের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটওয়ারী, ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের চাঁদপুর জেলা শাখা ও বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের ফরিদগঞ্জ উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, এ-কে-এম খোরশেদ আলম ১৯৯৪ সালের ৪ এপ্রিল ফরিদগঞ্জ (১৩ নং) উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ সচিব হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তীতে ফরিদগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নটি পৌরসভায় উন্নিত হলে পর্যায়কমে পদোন্নতি পেয়ে পৌরসভার সচিব হিসেবে মৃত্যুর পূর্বসময় পর্যন্ত কাজ করে গেছেন।