ঢাকা ০৭:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মাদক নির্মূলের বিকল্প নেই; উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ কুদ্দুস

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Model Hospital

বুধবার (২২ জুন) দুপুরে উপজেলার অডিটোরিয়ামে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে কর্মশালা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস।

উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ কুদ্দুস বলেন, মাদকের অপব্যবহার রোধে আমাদের সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কার্যকর ভূমিকা পালন করতে হবে। কোনভাবে সামাজিক পরিবেশ বিঘ্নিত হতে দেয়া যাবে না। এখনই সময় মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশরাফুল হাসানের সভাপতিত্বে ও সহকারী শিক্ষা অফিসার মাহফুজ মিয়ার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ছেংগারচর পৌরসভার প্রশাসক ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. হেদায়েত উল্ল্যাহ, চাঁদপুর জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ইমদাদুল হক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন খান সুফল, সুলতানাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক খোকন, মতলব উত্তর প্রেসক্লাবের সভাপতি বোরহান উদ্দিন ডালিম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সাদুল্লাপুর ইউপি চেয়ারম্যান জোবায়ের আজিম পাঠান স্বপন, ইসলামাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান সাখোয়াত হোসেন সরকার মুকুল’সহ বিভিন্ন দপ্তরের অফিসার, স্কুল প্রধান, মসজিদের ইমাম, মন্দিরের পুরোহিত, সাংবাদিক’সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

বক্তারা বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্ব প্রথম মাদকের বিরুদ্ধে প্রদক্ষেপ গ্রহন করেছিলেন। কারন মাদক একটি দেশ ও জাতিকে ধ্বংস করে দেয়। দেশের অর্থসামাজিক উন্নয়নে মাদকের অপব্যবহার বাধার কারন হয়ে দাঁড়ায়। এজন্য বর্তমান সরকার মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স নীতি গ্রহন করেছে। আমাদের ছেলে-মেয়েরা যাতে করে মাদকের স্পর্শে না আসতে পারে এজন্য পরিবার থেকে মাদক বিরোধী সচেতনতা গড়ে তুলতে পারলে মাদকের আগ্রাসন থেকে আমরা দেশকে রক্ষা করতে পারবো।

তারা আরো বলেন, মাদকের ব্যাপারে সকলকে সচেতন হতে হবে। পাশাপাশি যারাই মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মাদকের বিষয়ে আমাদের ধারাবাহিক অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ক্যাব চাঁদপুরের আয়োজনে বাজার পরিস্থিতি ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক মত বিনিময় সভা

মাদক নির্মূলের বিকল্প নেই; উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ কুদ্দুস

আপডেট সময় : ০৩:২৩:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ জুন ২০২২

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Model Hospital

বুধবার (২২ জুন) দুপুরে উপজেলার অডিটোরিয়ামে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে কর্মশালা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস।

উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ কুদ্দুস বলেন, মাদকের অপব্যবহার রোধে আমাদের সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কার্যকর ভূমিকা পালন করতে হবে। কোনভাবে সামাজিক পরিবেশ বিঘ্নিত হতে দেয়া যাবে না। এখনই সময় মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশরাফুল হাসানের সভাপতিত্বে ও সহকারী শিক্ষা অফিসার মাহফুজ মিয়ার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ছেংগারচর পৌরসভার প্রশাসক ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. হেদায়েত উল্ল্যাহ, চাঁদপুর জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ইমদাদুল হক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন খান সুফল, সুলতানাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক খোকন, মতলব উত্তর প্রেসক্লাবের সভাপতি বোরহান উদ্দিন ডালিম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সাদুল্লাপুর ইউপি চেয়ারম্যান জোবায়ের আজিম পাঠান স্বপন, ইসলামাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান সাখোয়াত হোসেন সরকার মুকুল’সহ বিভিন্ন দপ্তরের অফিসার, স্কুল প্রধান, মসজিদের ইমাম, মন্দিরের পুরোহিত, সাংবাদিক’সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

বক্তারা বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্ব প্রথম মাদকের বিরুদ্ধে প্রদক্ষেপ গ্রহন করেছিলেন। কারন মাদক একটি দেশ ও জাতিকে ধ্বংস করে দেয়। দেশের অর্থসামাজিক উন্নয়নে মাদকের অপব্যবহার বাধার কারন হয়ে দাঁড়ায়। এজন্য বর্তমান সরকার মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স নীতি গ্রহন করেছে। আমাদের ছেলে-মেয়েরা যাতে করে মাদকের স্পর্শে না আসতে পারে এজন্য পরিবার থেকে মাদক বিরোধী সচেতনতা গড়ে তুলতে পারলে মাদকের আগ্রাসন থেকে আমরা দেশকে রক্ষা করতে পারবো।

তারা আরো বলেন, মাদকের ব্যাপারে সকলকে সচেতন হতে হবে। পাশাপাশি যারাই মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মাদকের বিষয়ে আমাদের ধারাবাহিক অভিযান অব্যাহত থাকবে।